খুমেকে করোনা-রোগীকে শ্লী’লতাহা’নির চেষ্টা, চিকিৎসাকর্মী বরখা’স্ত

0

খুলনা প্রতিনিধি:

করোনা ভাইরাসের এমন মহামা’রী চলছে যেখন, তখন বিভিন্ন পেশাজীবী মানুষ, যারা মাঠপর্যায়ে কাজ করছেন, তাদের মধ্যে দেখা দিয়েছে আরও অধিক দায়িত্বশীল আচরণ। প্রাণপনে চেষ্টা করছেন সম্মিলিতভাবে এই দুর্যোগ মোকাবেলা করতে। জীবন বাজি রেখে সাধারণ মানুষের পাশে আছেন তারা। বিশেষ করে স্বাস্থ্য সংশ্লিষ্ট অনেকে প্রাণ দিয়েছেন। তবে ব্যতিক্রমও নিশ্চয় আছে।

খুলনায় করোনা ডেডিকেটেড হাসপাতালে চিকিৎসাধীন এক গৃহবধূকে শ্লী’লতাহা’নির চেষ্টায় ধরা পড়েছে হাসপাতালে চুক্তিভিত্তিক নিয়োগকৃত (আউট সোর্সিং) চিকিৎসা কর্মী নজরুল ইসলাম।

গতকাল ১৫ জুন, সোমবার সন্ধ্যায় বিষয়টি জানাজানি হলে হাসপাতালে উত্তে’জনার সৃষ্টি হয়।

জানা যায়, গত ৬ জুন করোনা নিয়ে ওই গৃহবধূ করোনা হাসপাতালে ভর্তি হন। তারপর থেকেই চিকিৎসা কর্মী নজরুল ইসলাম তাকে নানাভাবে উত্ত্য’ক্ত করতে থাকে। রাতে লোকজন কম থাকলে স্বাস্থ্য পরীক্ষার নামে শরীরের বিভিন্ন স্থানে স্পর্শ করার চেষ্টা করে সে। এছাড়া গভীর রাতে মহিলা ওয়ার্ডে এসে বিভিন্ন নারী রোগীর অহেতুক প্রেশার মাপা, কখনো অক্সিজেন মাস্ক পরানোর নামে স্পর্শ’কাতর স্থানে হাত দেওয়ার চেষ্টা করতো।

ওই গৃহবধূ জানান, গত ১৩ জুন রাতে নজরুল মহিলা ওয়ার্ডে এসে তাকে ঘুম থেকে তুলে অপারেশন থিয়েটারে আসতে বলে। নইলে সমস্যা হবে বলে কড়া গলায় জানিয়ে দেয়। তখন তিনি ওয়ার্ডের অন্য রোগীদের জানিয়ে রেখে অপারেশন থিয়েটারে যান। সেখানে অপেক্ষায় থাকা নজরুল তাকে জড়িয়ে ধরে। শরীরের স্পর্শকাতর অংশে হাত দেয়। মেঝেতে ফেলে জোর জবর’দস্তি করে।

এ সময় অন্য রোগীরা হাজির হয়ে অপারেশন থিয়েটারে তাকে ঘিরে ফেলে, তারপর বিষয়টি নার্স ও ডাক্তারদের জানান।

এ বিষয়ে খুলনা মেডিকেল কলেজ (খুমেক) হাসপাতালের উপাধ্যক্ষ ডা. মেহেদী নেওয়াজ বলেন, এটি অ’মার্জনীয় অপরাধ। করোনা পরিস্থিতির মধ্যে এ ধরনের অপরাধ মেনে নেওয়া যায় না।

এদিকে মহিলা ওয়ার্ডে একজন পুরুষ চিকিৎসা কর্মীকে দায়িত্ব দিয়ে কর্তৃপক্ষ দায়িত্বহীনতার পরিচয় দিয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন অন্য রোগীদের স্বজনরা।

হাসপাতালে পরিচালক ডা. মুন্সী মোহাম্মদ রেজা সেকান্দার বলেন, অভিযোগ ওঠার পর চিকিৎসা কর্মী নজরুল ইসলামকে চাকরি থেকে সাসপেন্ড করা হয়েছে। এছাড়া মহিলা ওয়ার্ডে পুরুষরা কেন দায়িত্বে ছিলো বিষয়টি খতিয়ে দেখার জন্য বলা হয়েছে।

শেয়ার করুন !
  • 83
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply