পাপুলের সাথে জড়িত উচ্চপদস্থ কর্মকর্তাকে সাসপেন্ড করল কুয়েত

0

প্রবাস ডেস্ক:

অর্থপা’চার ও মানবপা’চারের অভিযোগে টানা ৮ দিনের রিমান্ড শেষে কুয়েতে বাংলাদেশের সংসদ সদস্য কাজী শহীদ ইসলাম পাপুলকে জেলহাজতে পাঠানোর নির্দেশ দেয়া হয়।

মঙ্গলবার তাকে জেলহাজতে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছে কুয়েতের প্রসিকিউশন বিভাগ।

পাপুলকে আটকের পর থেকে বিষয়টি নিয়ে বেশ নড়েচড়ে বসেছে কুয়েত সরকার। পাপুলসহ তার সঙ্গে আর কারা সম্পৃক্ত তা তদন্তে নেমেছে কুয়েত কর্তৃপক্ষ। এছাড়া কুয়েত সরকার তাদের এক উচ্চপদস্থ সরকারি কর্মকর্তাকে সাসপেন্ড করেছে।

বুধবার আরব টাইমসের খবরে বলা হয়, কুয়েতের সমাজকল্যাণ ও অর্থনীতিবিষয়ক প্রতিমন্ত্রী মরিয়ম আল আকিল সরকারের জনশক্তি কর্তৃপক্ষের এক উচ্চপদস্থ কর্মকর্তাকে সাময়িক সাসপেন্ড করার আদেশ জারি করেছেন।

কুয়েতে মানবপা’চারের বিরু’দ্ধে চলমান তদন্তের স্বার্থে পাবলিক প্রসিকিউশন ওই কর্মকর্তাকে সাসপেন্ড করার সুপারিশ করে। জনস্বার্থের বিষয়টি বিবেচনায় নিয়ে কুয়েত সরকার জনশক্তি দপ্তরের ওই কর্মকর্তাকে ৩ মাসের জন্য সাসপেন্ড করার সিদ্ধান্ত নেয়। তবে ওই কর্মকর্তার নাম প্রকাশ করেনি গণমাধ্যমটি।

প্রসঙ্গত, আরব টাইমস অনলাইনের প্রতিবেদনে গত ফেব্রুয়ারিতে জানা যায়- কুয়েতে ৩ জন বাংলাদেশি মানব পা’চারকারী রয়েছেন। এর মধ্যে একজন গ্রেপ্তার হয়েছেন। বাকি ২ জন কুয়েত ছেড়ে পালিয়েছেন। তারা সবাই মিলে একটি বড় ধরনের মানব পা’চার ও মানি লন্ডারিং চক্র গড়ে তুলেছে।

এতে বলা হয়, সূত্র মতে- এই ৩ জন বাংলাদেশি দেশটির ৩টি বড় কোম্পানির প্রভাবশালী ও গুরুত্বপূর্ণ পদে রয়েছেন। তারা কুয়েতের সরকারি চুক্তির আওতায় ২০ হাজারেরও বেশি পরিচ্ছন্নকর্মী বাংলাদেশ থেকে নিয়ে গেছেন এবং ৫০ মিলিয়ন কুয়েতি দিনারেরও বেশি টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন।

এদিকে পাপুল বিষয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন বলেন, বিদেশে গিয়ে একজন সাংসদ এমন অপরাধমূলক কর্মকাণ্ডে জড়াবেন তা একেবারেই অন’ভিপ্রেত। এমন সময় এই ঘটনাটা ঘটেছে যখন পৃথিবীর সব দেশ মানব পাচা’রের বিরু’দ্ধে সোচ্চার। এমন সময়ে ওই এমপির বিরু’দ্ধে অভিযোগ আসাটা অত্যন্ত দুঃখজনক। আমরা এতে লজ্জিত।

প্রসঙ্গত, জাতীয় নির্বাচনে ১৪ দলীয় জোট ও জাতীয় পার্টির সমঝোতার মাধ্যমে মনোনয়ন পেয়েছিলেন জাতীয় পার্টির প্রার্থী মোহাম্মদ নোমান। আওয়ামী লীগের মনোনয়ন চেয়েছিলেন পাপুল। দলীয় মনোনয়ন না পেয়ে তিনি স্বতন্ত্র নির্বাচন করেন। পরে এক পর্যায়ে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ান জাতীয় পার্টির প্রার্থী। আলোচনা ছিল মোটা অংকের অর্থের বিনিময়ে পাপুল ওই প্রার্থীকে নির্বাচন থেকে সরিয়ে দেন। বিষয়টি নির্বাচনের সময়ই বেশ আলোচিত ছিল।

শেয়ার করুন !
  • 422
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply

error: Content is protected !!