টালিগঞ্জের ১ নাম্বার গডফাদার প্রসেনজিৎ, বি’স্ফোরক অভিযোগ শ্রীলেখার

0

বিনোদন ডেস্ক:

সুশান্ত সিংয়ের ফাঁ’স দেয়ার ঘটনার পর বলিউডের একাংশের বিরু’দ্ধে উঠেছে স্বজনপ্রীতির অভিযোগ। এবার টলিউডেও স্বজনপ্রীতির অভিযোগ তুললেন শ্রীলেখা মিত্র। নিজের ইউটিউব চ্যানেলে এক ভিডিও পোস্টে এ বিষয়ে নিজের ক্ষো’ভ জানান শ্রীলেখা। প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়, ঋতুপর্ণা সেনগুপ্তসহ একাধিক নাম উঠে এল তার কথায়।

শ্রীলেখা জানান, টলিউডে গডফাদার খুবই গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। গডফাদার হলেন সেই ব্যক্তি, যিনি কোনও কিছুর বিনিময়ে তোমায় কাজ পাইয়ে দেবেন। আমার সেই অর্থে কোনও গডফাদার ছিল না। সে সময় মূলত প্রসেনজিৎ, চিরঞ্জিৎ, তাপস দা (তাপস পাল) এরাই মূলত ইন্ডাস্ট্রি চালাত। তার মধ্যে বাম্বুদা (প্রসেনজিৎ) নম্বর ওয়ান, তিনিই ইন্ডাস্ট্রি।

তিনি আরও বলেছেন, সে সময় আমাকে প্রথমেই নায়িকার চরিত্র দেওয়া হয়নি। পার্শ্ব চরিত্রই করতে হয়েছে। আমার যোগ্যতা থাকা সত্ত্বেও। কারণ, তখন ঋতুপর্ণার সঙ্গে প্রসেনজিৎ-এর প্রেম। কারণ, মূলত বাম্বুদাই ইন্ডাস্ট্রি চালাত। ঋতুপর্ণা দেরি করে আসতেন, তারপরও তাকেই নায়িকার চরিত্রে নেওয়া হত।

এখানেই শেষ নয়, সৃজিত মুখোপাধ্যায়, কৌশিক গঙ্গোপাধ্যায়, শিবপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়ের ছবিতেও কাজ না পাওয়া নিয়ে ক্ষো’ভ প্রকাশ করেন শ্রীলেখা। টলিউড ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির আরও অনেক বিষয় নিয়েই মুখ খোলেন শ্রীলেখা মিত্র। তার কথায়, সুশান্তের মতো এমন মৃ’ত্যুর ঘটনা আর যেন না হয়। সে কারণেই এই কথাগুলো বলা।

শ্রীলেখার অভিযোগ নিয়ে মুখ খুললেন ঋতুপর্ণা

শ্রীলেখার অভিযোগ নিয়ে প্রসেনজিৎ এখনো চুপ থাকলেও উত্তর দিয়েছেন ঋতুপর্ণা। তিনি জানান, ২০০১-১৫ সাল পর্যন্ত প্রসেনজিৎ-ঋতুপর্ণা জুটির কোনো ছবি হয়নি। তবুও নানা ধরনের ছবি করে ইন্ডাস্ট্রিতে নিজেকে টিকিয়ে রাখতে পেরেছেন তিনি। তবে প্রসেনজিতের সঙ্গে প্রেম নিয়ে কিছু বলেননি অভিনেত্রী।

টলিউডের জনপ্রিয় প্রযোজক অশোক ধানুকা বলেছেন, সে সময় যাদের দেখতে মানুষ চাইত, তাদেরকেই সাধারণত সিনেমায় কাস্ট করা হতো। আমি শ্রীলেখার উপর ভরসা করতে পারিনি। আসলে প্রসেনজিৎ-ঋতুপর্ণার জুটির ছবি চলত, তাই এই জুটিকে নেওয়া হত। বাম্বুদা কখনই একে নিতে হবে, ওকে নিতে হবে বলে ঠিক করে দেননি।

শেয়ার করুন !
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply

error: Content is protected !!