নমুনা না দিয়েই ‘করোনা পজেটিভ’ : সিভিল সার্জন বললেন- মিসটেক!

0

সময় এখন ডেস্ক:

চট্টগ্রামে এবার এক সাংবাদিকের নমুনা পরীক্ষা ছাড়াই করোনা পজেটিভ বলে রিপোর্ট দিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। ওই রিপোর্টে দাবি করা হয়েছে, তিনি ঢাকার ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব ল্যাবরেটরি মেডিসিন অ্যান্ড রেফারেল সেন্টারে নমুনা দিয়েছেন। অথচ বাস্তবে তিনি ওই তারিখে ওই ল্যাবে নমুনাই দেননি। চট্টগ্রামের বাসিন্দা ওই সাংবাদিক ঢাকায়ও যাননি।

তিনি চট্টগ্রামের দৈনিক পূর্বদেশের স্টাফ রিপোর্টার এমএ হোসাইন। সোমবার (২২ জুন) সকালে তার মুঠোফোনে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নির্ধারিত নাম্বার ০১২৯০২৪৬১২ থেকে করোনা পজেটিভ বলে একটি এসএমএস পাঠানো হয়।

বিষয়টি নিশ্চিত করে সাংবাদিক এমএ হোসাইন বলেন, আজকে এসএমএস করে জানালো ১৭ তারিখে নাকি আমি নমুনা দিয়েছি। তাও আবার ঢাকায়। তারা সেটা ১৭ তারিখেই পরীক্ষা করেছে। সে পরীক্ষার ফলাফল পজেটিভ! অথচ ১৭ তারিখ আমি কোন নমুনা দিইনি।

তিনি বলেন, নমুনা ছাড়াই পরীক্ষা করে রিপোর্ট দিল? এর আগে ১৪ দিন পরে রিপোর্ট পেয়েছিলাম। আর এবার পরীক্ষা ছাড়া রিপোর্ট পেলাম। সামনে কী আসে কি জানি!’ এমএ হোসাইন বলেন, বিষয়টি সিভিল সার্জনকে জানালে তিনি ‘মিসটেক’ বলে জানিয়েছেন।

মাইনাস ২০ ডিগ্রি নিচে ২০ বছর বাঁচতে পারে করোনা ভাইরাস!‌

করোনা ভাইরাসের কারনে বিশ্বে প্রতিদিনই বাড়ছে আক্রা’ন্ত ও মৃ’তের সংখ্যা। এখন পর্যন্ত এই ভাইরাসের কোনও সফল ও কার্যকরী প্রতিষেধক আবিষ্কার করতে পারেনি আধুনিক চিকিৎসাবিজ্ঞান। এই পরিস্থিতিতে এখন সবচেয়ে আলোচিত বিষয় হচ্ছে কীভাবে এই ভাইরাস ছড়ায় তা চিহ্নিত করা এবং সেটি থেকে বেঁচে থাকা।

চীনের কোভিড ১৯ বিশেষজ্ঞ দলের সদস্য লি লিনজুয়ান জানিয়েছেন, করোনা ভাইরাস মাইনাস ২০ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রায় ২০ বছর পর্যন্ত বাঁচতে পারে।

বিশেষজ্ঞ দল জানায়, ঠাণ্ডায় করোনা ভাইরাসের কোনও ক্ষ’তি হয় না। তবে তারা বেঁচে থাকতে পারে। হিমাঙ্কের ৪ ডিগ্রি সেলসিয়াস নিচে কয়েক মাস, হিমাঙ্কের ২০ ডিগ্রি নিচে সেটি বাঁচতে পারে প্রায় ২০ বছর।

এ কারণে সংরক্ষিত মাংস বা অন্য কিছু থেকে করোনা ভাইরাস ছড়াতে পারে যে কোনও সময়, সতর্ক করে দিলেন এই বিশেষজ্ঞ দলটি।

লি লিনজুয়ান বলেন, অনেক সময়েই বাজারে, জমাট বাঁধা সি ফুড, বরফে রাখা মাছ মাংস থেকে ভাইরাস সংক্র’মিত হয়েছে এমন অভিযোগ এসেছে। তার কারণ একটিই, দীর্ঘসময় অতিরিক্ত ঠাণ্ডার কারণে করোনা ভাইরাসের আয়ু বেশ কিছুটা বেড়ে গিয়েছে। সূত্র: ডেইলি মেইল

শেয়ার করুন !
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply

error: Content is protected !!