অভিনব পদ্ধতিতে এটিএম বুথ থেকে টাকা চুরি, আটক ২

0

সময় এখন ডেস্ক:

নির্দিষ্ট দুটি মডেলের এটিএম বুথ টার্গেট করে এই চক্রটি ঘুরে বেড়ায়। তারপর সংগ্রহ করে টার্গেটকৃত এটিএম বুথের চাবি। চাবি নাগালে আসার পর টার্গেটকৃত বুথে ব্যবহৃত ম্যালওয়ার সফটওয়্যার নেয় একটি পেনড্রাইভে। সঙ্গে মিনি কী বোর্ড। ব্যাস, হয়ে গেল এটিএম বুথ থেকে টাকা চুরির জন্য প্রয়োজনীয় সরঞ্জাম। তারপর দেশের নানা জেলায় ঘুরে এটিএম বুথ থেকে টাকা উত্তোলন করে চক্রটি।

এমন এক চক্রের দু’জন সদস্যকে গ্রেপ্তার করেছে চট্টগ্রাম মহানগরীর ডবলমুরিং থানা পুলিশ। আটক মোহাম্মদ শরীফুল ইসলাম (৩৪) মেহেরপুর জেলার গাংনি থানার গজারিয়া ইউনিয়নের হেমায়েতপুর গ্রামের ইয়াছ উদ্দিন বিশ্বাসের ছেলে। তিনি ঢাকার ক্যান্টমেন্ট থানা এলাকায় বাস করেন। অপরজন মহিউদ্দিন মনির (৩০) চট্টগ্রামের রাউজান থানার নোয়াপাড়া এলাকার হাজী আহম্মদ হোসেনের ছেলে। বাস করেন চট্টগ্রাম নগরীর সদরঘাট থানা এলাকায়। তাদের কাছ থেকে পেনড্রাইভ, মিনি কী বোর্ড, ম্যাগনেটিক স্ট্রিপ সংযুক্ত ৩টি এটিম ক্লোন কার্ড, চা’কু ও দেশীয় অ’স্ত্রসহ ১৪ ধরনের জিনিস উদ্ধার করা হয়েছে।

এই বিষয়ে বুধবার মহানগর পুলিশের উপ-কমিশনার (পশ্চিম) মো. ফারুক উল হক জানান, মঙ্গলবার আগ্রাবাদ মিডল্যান্ড ব্যাংকের সামনে ডবলমুরিং থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মো. জহির হোসেনের নেতৃত্বে অভিযান চালিয়ে দু’জনকে গ্রেপ্তার করে। তারা দেশের বিভিন্ন স্থানে এটিএম বুথ থেকে টাকা চুরির তথ্য স্বীকার করেছে। ইতোপূর্বেও তারা গ্রেপ্তার হয়েছিল। তবে জামিনে মুক্তি পেয়ে পুনরায় একই কাজে ফিরে গেছে তারা।

একই বিষয়ে পরিদর্শক (তদন্ত) মো. জহির হোসেন বলেন, শরীফুল ইসলাম প্রথম দিকে ক্রেডিট কার্ড জালিয়াতি করতেন। পরে এটিএম কার্ড জালিয়াতির সঙ্গে জড়িয়ে পড়েন। তিনি এটিএম বুথ বিশেষ কৌশলে নিজের নিয়ন্ত্রণে নিয়ে টাকা চুরি করেন।

পুলিশ কর্মকর্তারা জানান, শরীফুলকে ২০১৩ সালে গ্রেপ্তার করেছিল সিআইডি। ২০১৮ সালে আরেক দফা গ্রেপ্তার হয়। জামিনে মুক্তি পাওয়ার পর পুনরায় পূর্বের পেশায় ফিরে যায়। এরই মধ্যে ২০১৯ সালে নারায়ণগঞ্জের চাষাড়া বঙ্গবন্ধু রোডের পূবালী ব্যাংকের এটিএম বুথ থেকে পরীক্ষামূলকভাবে ১০ হাজার টাকা চুরি করে নিজের কাজের যোগ্যতা যাচাই করে দেখেন। এরপর ১৬ নভেম্বর কুমিল্লা কান্দিরপাড়া পূবালী ব্যাংকের এটিএম বুথ থেকে ৩ লাখ ৩০ হাজার টাকা, ১৭ নভেম্বর চট্টগ্রাম মহানগরীর চকবাজার পূবালী ব্যাংকের বুথ থেকে ৩ লাখ ৩০ হাজার টাকা, ডবলমুরিং চৌমুহনী ফারুক চেম্বারের নিচে পূবালী ব্যাংকের বুথ থেকে ৩ লাখ ১০ হাজার টাকা চুরি করে নেন।

সর্বশেষ মঙ্গলবার কোতোয়ালী থানার জিপিও অফিসের সামনের সাউথইস্ট ব্যাংকের এটিএম বুথ থেকে টাকা চুরির চেষ্টা করেও সফল হয়নি। এরপর বিকালে ৫টায় আগ্রাবাদ মিডল্যান্ড ব্যাংকের এটিএম বুথ থেকে টাকা চুরির চেষ্টার সময় গ্রেপ্তার হয় তারা ২ জন।

তাদের মধ্যে মহিদ্দিন মনির মূলত শরীফুলের অনুসারী। মনির এটিএম কার্ড ক্লোন কীভাবে করে তা শরীফুলের কাছ থেকে শিখে জালিয়াতির সঙ্গে জড়িয়ে পড়ে।

এই বিষয়ে মামলা দায়ের করার পর আসামিদের আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে বলে জানান পরিদর্শক (তদন্ত) জহির হোসেন।

শেয়ার করুন !
  • 147
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply

error: Content is protected !!