সুনামগঞ্জে প্রবাসীর স্ত্রীকে শ্লী’লতাহানির দায়ে বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক গ্রেপ্তার

0

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি:

এক প্রবাসীর স্ত্রীকে দিনের পর দিন ধ**ণ করার অভিযোগে দায়ের করা মামলায় সুনামগঞ্জের দোয়ারাবাজার উপজেলার মান্নারগাঁও ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান এবং যুক্তরাজ্য বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক আবু হেনা আজিজকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

রোববার (৯ আগস্ট) দুপুরে শহরের পিটিআই এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে সদর থানা পুলিশ। আবু হেনা আজিজের নামে ধ**ণ মামলা দায়ের করেছেন প্রবাসীর স্ত্রী।

সর্বশেষ ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে বিএনপির দলীয় প্রতীক ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে সুনামগঞ্জের মান্নারগাঁও ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন গ্রেপ্তার আবু হেনা আজিজ। যুক্তরাজ্য প্রবাসী বিএনপির এই নেতা নিজের স্ত্রী সন্তানকে লন্ডনে রেখে দেশে একা বসবাস করেন এবং রাজনীতি করেন। দেশে থাকা অবস্থায় সদর উপজেলার রঙ্গারচর এলাকার এক নারীর সঙ্গে অ’বৈধ সম্পর্ক গড়েন তিনি।

মামলার এজাহারে ওই নারী লিখেছেন, সদর উপজেলার রঙ্গারচর ইউনিয়নের হরিনাপাটি গ্রামের এক প্রবাসীর স্ত্রী তিনি। সুনামগঞ্জ শহরের আলীপাড়া আবাসিক এলাকায় ১০ বছরের শিশু কন্যাসহ ইউপি চেয়ারম্যান আবু হেনা আজিজের বোনের বাসায় তিনি ভাড়া থাকতেন। গত ১০ এপ্রিল প্রথমে আবু হেনা আজিজ তাকে জোর করে শ্লী’লতাহা’নি করেন। এরপর থেকে প্রায়ই ভ’য়ভীতি দেখিয়ে নিয়মিত তার সাথে শারীরিক মেলামেশা করে আসছিলেন। যার এক পর্যায়ে তিনি অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়েন।

এরপর পরিস্থিতি টের পেয়ে আবু হেনা আজিজ নিজে উপস্থিত থেকে শহরের একটি ক্লিনিকে সম্প্রতি তার ৩ মাসের গর্ভের সন্তান অ্যবর্শন করান।

ওই প্রবাসীর স্ত্রী এই ঘটনার বিচার দাবি করেন মামলায়। মামলার প্রেক্ষিতে রোববার দুপুরে আবু হেনা আজিজকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। তবে গ্রেপ্তারের পর ইউপি চেয়ারম্যান আবু হেনা আজিজ সাংবাদিকদের বলেন, এসব অভিযোগ মিথ্যা ও বানোয়াট।

এ বিষয়ে সুনামগঞ্জ সদর মডেল থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. সহিদুর রহমান গণমাধ্যমকে বলেন, মান্নারগাঁও ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আবু হেনা আজিজের নামে ধ**ণ মামলা হয়েছে। তাকে গ্রেপ্তার করে আদালতে পাঠানো হয়েছে। আদালত তার জামিন না মঞ্জুর করে জেল হাজতে পাঠানোর আদেশ দিয়েছেন।

শেয়ার করুন !
  • 272
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply