শ্রমিক ধর্মঘটের বলি আটকে দেয়া অ্যাম্বুলেন্সের ভেতরে থাকা নবজাতক

0

মৌলভীবাজার সংবাদদাতা:

৮ দফা দাবি নিয়ে সারাদেশে ৪৮ ঘণ্টার ধর্মঘট পালন করছে পরিবহন শ্রমিকরা। এই কর্মবিরতি পালনের সময় মৌলভীবাজারের বড়লেখায় রোগীবাহী অ্যাম্বুলেন্স আটকে রাখায় সংকটাপন্ন ৭ দিন বয়সী এক নবজাতকের মৃত্যু হয়েছে বলে জানা গেছে। রোববার (২৮ অক্টোবর) দুপুর আড়াইটার দিকে উপজেলার চান্দগ্রাম এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। মৃত শিশুটি বড়লেখা সদর ইউনিয়নের আজমির গ্রামের কুটন মিয়ার মেয়ে।

শিশুটির চাচা আকবর আলী বলেন, সাত দিন আগে শিশুটির জন্ম হয়। শনিবার (২৭ অক্টোবর) রাত থেকে সে মায়ের দুধ পান করছিল না। সকালে আমরা তাকে বড়লেখা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাই। সেখানকার চিকিৎসকরা তাকে দেখে দেরি না করে সিলেটে নিয়ে যাওয়ার পরামর্শ দেন।

তিনি বলেন, ‘চিকিৎসকের কথা মতো আমরা শিশুটিকে অ্যাম্বুলেন্সে করে সিলেটের উদ্দেশে রওনা দেই। কিন্তু পথে পথে পরিবহন শ্রমিকরা থামিয়ে নানাভাবে হয়রানি করেছে। প্রথমে বড়লেখা উপজেলার দরগাবাজারে অ্যাম্বুলেন্সটি আটকে দেয় তারা। বেশ কিছুক্ষণ পর ছেড়ে দেয়। একইভাবে দাসেরবাজার এলাকায়ও অ্যাম্বুলেন্সটি আটকে দেওয়া হয়। সেখান থেকে ছাড়া পেয়ে চান্দগ্রাম বাজারে গেলেও আবারও গাড়িটি আটকে দেয় শ্রমিকরা। এ সময় অ্যাম্বুলেন্স চালককে গাড়ি থেকে নামিয়ে তারা মারধরও করতে থাকে। এক পর্যায়ে সেখানেই শিশুটির মৃত্যু হয়।’

বড়লেখা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইয়াছিনুল হক বলেন, এ ব্যাপারে কেউ এখনও কোনো অভিযোগ দেয়নি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

শ্রমিকদের এহেন আচরণ কিসের ইঙ্গিত?

সকাল থেকে বিভিন্ন স্থানে শ্রমিকরা যানবাহনের চালক, কোথাও যাত্রীদের মুখে পোড়া মবিল লাগিয়ে দিচ্ছে। কারও আবার মোটরসাইকেলের চাকার হাওয়া ছেড়ে দিচ্ছে। রিক্সা উল্টে দেয়ার ঘটনাও ঘটেছে রাজধানীর বিভিন্ন পয়েন্টে। বিশেষ করে বাস টার্মিনাল এলাকাগুলোতে নিজেদের জনবল বেশি থাকায় বেপরোয়া আচরণ করছে শ্রমিকরা। হঠাৎ করে এমন বিব্রতকর অবস্থায় অফিসগামী অনেক মানুষকে বিপাকে পড়তে হয়েছে।

বিক্ষুব্ধ শ্রমিকদের হাত থেকে রক্ষা পায়নি অ্যাম্বুলেন্সও। চালকের মুখে মবিল লাগানোর পাশাপাশি গাড়িতেও মবিল ঢেলে দিচ্ছে শ্রমিকরা। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে এমন ছবি ছড়িয়ে পড়েছে। চালক এবং যাত্রীদের মুখে পোড়া মবিল লাগানো ছবি শেয়ার করে অনেকে ক্ষোভ প্রকাশ করছেন।

শেয়ার করুন !
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply