বিএনপি শরীয়াহ আইনে বিশ্বাস করে না- ভারতকে ফখরুলের আশ্বাস

0

সময় এখন ডেস্ক:

বিএনপি শরীয়াহ আইনে বিশ্বাস করে না বলে মন্তব্য করেছেন দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। বিএনপি চেয়ারপার্সনের গুলশানের কার্যালয়ে বসে ভারতীয় সংবাদমাধ্যম ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসকে দেয়া সাক্ষাৎকারে এ মন্তব্যের মাধ্যমে ভারতকে আশ্বস্ত করেন তিনি। একইসঙ্গে জামায়াতের সঙ্গে জোট রাজনৈতিক ‘কৌশলগত’ বলেও মন্তব্য করেন ফখরুল।

মির্জা ফখরুল বলেন, আমরা জামায়াতের ব্যাপারে প্রশ্নের সম্মুখীন হই। বিএনপি কিন্তু জামায়াত নয়। বিএনপি শরীয়াহ আইনে বিশ্বাস করে না। বিএনপি মৌ’লবাদেও বিশ্বাস করে না। জামায়াতের ব্যাপারে আমাদের কোন মোহ নেই।

মির্জা ফখরুল বলেন, দুর্ভাগ্যবশত নির্যা’তন ও গু’মের রেকর্ড থাকা আওয়ামী লীগকে ভারত কেন এড়িয়ে চলছে না সেটি আমি বুঝতে পারছি না। আওয়ামী লীগ একটি ঘৃ’ণিত রাজনৈতিক দল। কিন্তু ভারতের কারণে আওয়ামী লীগ টিকে আছে। ভারত আওয়ামী লীগকে শক্তিশালী করেছে।

জামায়াতের সঙ্গে আমাদের জোট কৌশলগত। তাদের সঙ্গে থাকলে হাড্ডাহাড্ডি ল’ড়াই হয় এমন ৫০টি আসনে জয়লাভ করতে আমাদের সুবিধা হয়। আমাদেরকে ছাড়া তারা মাত্র ৩টি আসন পায়- বলেন ফখরুল।

বাংলাদেশের পুলিশ ও আমলাদের সঙ্গে ঢাকাস্থ ভারতীয় দূতাবাসের ভাল সম্পর্ক রয়েছে বলেও মন্তব্য করেন মির্জা ফখরুল।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, বিজেপি ডানপন্থী রাজনৈতিক দল। আরএসএসও সেখানে আছে। কিন্তু বিজেপির সঙ্গে সম্পর্ক তৈরিতে আমাদের কোন সমস্যা নেই।

নারী নির্যা’তনকে রাজনীতিকরণের অপ’চেষ্টায় বিএনপি

তথ্যমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, বিএনপি নারী নির্যা’তনের ঘটনাকে রাজনীতিকরণের অপ’চেষ্টা করছে আর সরকার অপরাধীদের দৃষ্টান্তমূলক সাজা দিতে বদ্ধপরিকর।

বুধবার বিকেলে মন্ত্রী সচিবালয়ে তথ্য মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে ব্রডকাস্ট জার্নালিস্ট সেন্টার নেতৃবৃন্দের সঙ্গে সভা শেষে সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাব দেন। এ সময় সম্প্রতি নোয়াখালীর ঘটনা নিয়ে বিএনপি’র বিভিন্ন মন্তব্যের প্রতি দৃষ্টি আকর্ষণ করলে তিনি এ কথা বলেন।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, নারী নির্যা’তনের ঘটনা নিয়ে রাজনীতির অপ’চেষ্টা ঠিক নয়। নোয়াখালীতে যারা এই ঘটনার সাথে যুক্ত ছিল তারা সবাই দু’ষ্কৃতিকারী। তারা দলীয় পরিচয় ব্যবহারের অপ’চেষ্টা চালালেও সরকার তাদেরকে অপরাধী হিসেবেই দেখছে। প্রত্যেকটি ঘটনার বিচার হচ্ছে এবং দৃষ্টান্তমূলক সাজা দিতে সরকার বদ্ধপরিকর।

তিনি বলেন, বিএনপি ৮ বছরের শিশু, অন্তঃসত্ত্বা মহিলা এমনকি নৌকায় ভোট দেয়ার অপরাধে পুরো গ্রাম অবরু’দ্ধ করে মহিলা ও শিশুদের ধ* করেছে। ক্ষমতায় থাকাকালে বিএনপির এই অপ’কর্মগুলোর বিরু’দ্ধে সরকার কানো ব্যবস্থা নেয়নি। সেই দলের মহাসচিবের এখন সরকারের বিরু’দ্ধে কথা বলার আগে চেহারাটা আয়নায় দেখা প্রয়োজন।

শেয়ার করুন !
  • 180
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply

error: Content is protected !!