মানববন্ধনে এসে টাকা না পেয়ে খালেদা জিয়া-ফখরুলকে গা’লাগাল!

0

সময় এখন ডেস্ক:

সাব্বির হোসেন, কেরানিগঞ্জের একটি প্লাটিক কোম্পানিতে ক্লিনারের কাজ করেন। বয়স সর্বোচ্চ ২০ হবে। মঙ্গলবার রাতে তার সাথে কেরানীগঞ্জের সাঈদ নামের এক ছাত্রদল নেতার সাথে কথা হয়। বলে ১০ জন লোক নিয়ে বুধবার জাতীয় প্রেসক্লাবে সামনে যেতে হবে। দুপুরে খাওয়া-দাওয়াসহ প্রতিজনকে ১ হাজার টাকা করে দিবে। অগ্রিম হিসাবে ২ হাজার টাকা চায় সাব্বির। সেখান থেকে ৫০০ টাকা দিয়ে পরের দিন সময় মতো চলে আসার কথা বলে।

দুপুরে সাব্বির তার কয়েকজন সহকর্মী এবং বন্ধুদের নিয়ে প্রেসক্লাবের সামনে চলে আসে। সেখানে সরকার বিরো’ধী স্লোগান দেয়ার পাশাপাশি তাদের ওপর অর্পিত দায়িত্ব যথাযথভাবে পালন করেন তারা।

কিন্তু অনুষ্ঠান শেষে সাঈদের কাছে টাকা চাইলে, বলে তোমরা একটু দাঁড়াও, আমি টাকা তুলে আনছি বুথ থেকে। এ কথা বলেই উধাও! দীর্ঘ সময় অপেক্ষা করার পর ফোন করলে সাঈদের ফোনও বন্ধ পাওয়া যায়।

এরপরই বিএনপি ও খালেদা জিয়ার নামে এতক্ষণ ধরে স্লোগান দেয়া সেই ভাড়াটে কর্মীরা অ’শ্রাব্য বাক্য প্রয়োগ করতে শুরু করেন। দলেরর মহাসচিব মির্জা ফখরুল এবং আমান উল্লাহ আমানের নামেও চলে সেসব কু’ৎসিত ভাষার প্রয়োগ।

সংবাদ কাভার করতে যাওয়া প্রতিবেদকের কাছে এভাবেই নিজের ক্ষো’ভের কথা জানাচ্ছিলেন সাব্বির। রোগা ও শীর্ণ কারখানা শ্রমিকেরা তখন ক্ষুধার্ত। বন্ধুরা বারবার সাব্বিরকে বলছে, তোর কথায় আসছি। এখন তুই আমাদের টাকা দিবি। জানতে চাওয়া হলো, সাব্বিরের মাসিক আয় কত? সে জানালো, ৬ হাজার টাকা মাত্র।

এদিকে, বুধবার দুপুরে রাজধানীর জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণ বিএনপি ধ* বিরো’ধী মানববন্ধনের আয়োজন করা হয়। সেখানে ব্যাপক লোকের সমাগম ঘটে করোনার মধ্যে স্বাস্থবিধি না মেনেই। এ নিয়ে বিএনপির নেতারা তৃপ্তির ঢেঁকুর তুললেও টাকা না পেয়ে দরিদ্র ছেলেগুলো ক’ষ্ট নিয়ে ফিরে গেছে।

সরকার ক্ষমতায় থাকার সব অধিকার হারিয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি বলেছেন, আমরা স্পষ্টভাবে বলতে চাই– সরকার ক্ষমতায় থাকার সব অধিকার হারিয়েছে। তাদের ক্ষমতায় থাকার কোনো ধরনের কারণ নেই।

মানববন্ধনে নোয়াখালীর ঘটনাটি নিয়ে মির্জা ফখরুল বলেন, এ ঘটনা শুধু জাতিকে নয়; বিশ্ব বিবেককে নাড়া দিয়েছে। গত কয়েক মাসে আপনারা লক্ষ্য করেছেন, যেন মহোৎসব শুরু হয়েছে। এটি এখন এই সরকারের নিয়মিত ব্যবস্থায় পরিণত হয়েছে। তথ্যসূত্র: ভোরের পাতা।

শেয়ার করুন !
  • 371
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply

error: Content is protected !!