দেশে টিকটক-লাইকি ঘিরে সুইমিং পুল পার্টির আড়ালে যা চলছে

0

সময় এখন ডেস্ক:

কিশোর-কিশোরীরা মেতেছে তারকা হবার নে’শায়। মূলধারার গণমাধ্যম ছাড়াও, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তারকা হবার হাতছানি। সেখানে বুঝে না বুঝে সে পথে নামতে গিয়ে অপরাধের অন্ধকারে ডুবে যাচ্ছে কিশোর-কিশোরীরা।

১৫ থেকে ২০ সেকেন্ডের ভিডিও। ভিউ লাখ লাখ। মান কিংবা বক্তব্য নয়, এখানে প্রচারটাই মূখ্য। হিসেবটা এখানে লাইক, কমেন্ট আর ফলোয়ারের।

কিন্তু কোথায় কীভাবে কাজ করে তারা। তাদের জীবনযাত্রাই বা কেমন? টিকটিকের শ্যুটিং চলে রাজধানীর উন্মুক্ত প্রায় সব বিনোদন কেন্দ্রে। দলবেঁধে গ্রুপ করে তাদের এ শ্যুটিংয়ে প্রতিযোগিতাও চলে। বাধে দুই পক্ষের মাঝে অ’প্রীতিকর ঘটনাও। সাধারণ দর্শনার্থীদের অ’সুবিধে হয়, তবে প্রতিবাদের সাহস পায় না সাধারণ মানুষ।

কিন্তু টিকটক-লাইকির মাধ্যমে অপরাধ কি শুধু কিশোর গ্যাংয়ের মধেই সীমাবদ্ধ? অনুসন্ধানে বেরিয়ে এসেছে গুরুতর কিছু তথ্য।

জানা গেছে, টিকটককে ঘিরে আয়োজন করা হয় এমন সুইমিং পার্টি। যার আড়ালে চলে দে’হ-ব্যবসা।

টিকটক করেন এমন এক তরুণীর সাথে পরিচয় গোপন করে কথা বলেন বেসরকারি টিভি চ্যানেল সময় সংবাদের প্রতিবেদক। সুযোগ চান একটি টিকটক পার্টিতে যোগ দেওয়ার। টিকেট দিতে এসে ওই তরুণী বলেন, প্রায় ২৫০ থেকে সাড়ে ৩০০ মত লোক আসবে ওই পার্টিতে। রুম আছে ৫টা। রুম লাগলে দিতে পারব।

অপরাধ বিশ্লেষক ও প্রযুক্তি বিশেষজ্ঞরা জানান, অ্যাপকেন্দ্রিক নৈতিক অব’ক্ষয়ের পরিণতি হতে পারে ভ’য়াবহ। তাদের মতে, লাইকি-টিকটক অ্যাপ হচ্ছে যৌ* তার একটি যোগসূত্র। এর মাধ্যমে গড়ে তোলা হয় একেকটি কমিউনিটি। সেখানে নানা ধরণের অপরাধমূলক কর্মকান্ড চলে, সেই সাথে অ’নৈতিক ব্যবসাও।

সমাজ ও অপরাধ বিজ্ঞানী তৌহিদুল হক বলেন, এই ধরনের সংস্কৃতির সাথে শিশুরা যদি অভ্যস্ত হয়, তাহলে ভবিষ্যৎ অন্ধকার।

এদিকে প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক জানান, সরকার এসব অভিযোগ খতিয়ে দেখবেন। তিনি বলেন, অ্যাপসগুলো দেশি বা বিদেশি হোক বাংলাদেশে এরকম অপরাধমূলক কাজ করলে ব্যবস্থা নেয়া যায়।

টিকটকের পুল পার্টিতে পরিচয় হওয়ার পর বাসায় ডেকে নিয়ে ৫ কিশোরী ধ* এর মামলার প্রধান আসামী দেওয়ান রসূল ওরফে টিকটক হৃদয় গ্রেপ্তার হয়ে জেলে আছে। যদিও তার সহযোগী হিসেবে অভিযুক্ত মডেল দাবি করা অভিকা আহমেদ রিয়া এখনও রয়েছেন ধরাছোঁয়ার বাইরে।

শেয়ার করুন !
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply

error: Content is protected !!