“দেখুন, সামনে আরো খেলা আছে”- ফখরুলকে তারেক

0

বিশেষ প্রতিবেদন:

সাম্প্রতিক সময়ে ধ* এর ঘটনাগুলো নিয়ে কোনো কোনো মহল রাজনৈতিক খেলা খেলছে বলে মনে করছেন বিশ্লেষকরা। বিশেষ করে দেশের অন্যতম বড় রাজনৈতিক দল বিএনপি ও স্বাধীনতাবিরো’ধী অপ’শক্তি জামায়াত এসব ঘটনাকে উ’স্কে দিয়ে একে একটি রাজনৈতিক রূপ দেয়ার পরিকল্পনা নিচ্ছে- এমন তথ্য সরকারের কাছে এসেছে। সাম্প্রতিক সময়ে দেখা যাচ্ছে, সামাজিক ব্যাধি নিয়ে বিএনপির রাজনৈতিক আন্দোলনের চেষ্টা করছে এবং বিভিন্ন রকম কর্মসূচি গ্রহণ করছে।

রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা বলছেন, বিএনপি যে কোনো কর্মসূচি গ্রহণ করতেই পারে কিন্তু যে কোনো সমস্যাকে রাজনীতিকরণ করলে সমস্যার মূলোৎপাটন করা এবং সমস্যার গভীরে যাওয়া সম্ভব হয় না। বিএনপি সেই কাজটি করছে।

সাম্প্রতিক সময়ে বিএনপির একাধিক নেতার সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, লন্ডনে পলাতক বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমান এখন বেশ সক্রিয় ভূমিকা পালন করছেন। তিনি দলের নেতাদের সঙ্গে কথা বলছেন। বিএনপি নেতারা বলেছেন তারেক রহমানের সঙ্গে তৃণমূলের ঘনিষ্ঠ যোগাযোগ আছে। প্রত্যন্ত অঞ্চলের নেতাকর্মীদের সাথে তারেক রহমান নিয়মিত কথা বলেন। আলাপচারতায় তিনি তাদেরকে এ ধরনের অপরাধগুলোকে উ’স্কে দিচ্ছেন বলে অভিযোগ রয়েছে। গতকাল তারেক বিএনপির স্থায়ী কমিটির দুজন সদস্যর সঙ্গে কথা বলেছেন। তাদেরকে চলমান ইস্যুতে আন্দোলনকে আরো বেগবান ও জোরদার করার নির্দেশ দিয়েছেন।

সংশ্লিষ্ট সূত্র বলছে, তারেকের নির্দেশ রয়েছে একদিনও আন্দোলন বন্ধ করা যাবে না, বরং ব্যাপ্তি বাড়াতে হবে। বিএনপি মহাসচিবের সঙ্গে আধঘণ্টার টেলি আলাপের পুরো সময়টাতেই কীভাবে আন্দোলন করতে হবে তার নির্দেশনা দিয়েছে লন্ডনে পলাতক বিএনপির সিনিয়ার ভাইস চেয়ারম্যান। ফখরুলকে বলেছেন, বিএনপির উদ্যোগই শুধু নয় বরং দলের অঙ্গসংগঠনগুলোর উদ্যোগেও কর্মসূচি পালন করতে হবে। সারাদেশে সেই কর্মসূচি ছড়িয়ে দিতে হবে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রগুলো বলছে, শুধু ধ* নিয়ে বড় ধরনের আন্দোলন কতটা সফল হবে বা এই আন্দোলন আদৌ সরকার প’তনের আন্দোলনের দিকে নিয়ে যাওয়া যাবে কি না এ নিয়ে মির্জা ফখরুল শ’ঙ্কা প্রকাশ করেন তারেক রহমানের কাছে। ফখরুলের মতে, ইতিমধ্যে সরকার যা যা করণীয় সবই করেছে, বিশেষ করে অপরাধীদেরকে গ্রেপ্তার করে আইনের আওতায় আনছে। এ অবস্থায় শুধু একটা ইস্যুর আন্দোলনকে সেটা সরকারবিরো’ধী রূপ দেয়া এতটা সহজ হবে না। এর প্রেক্ষিতে তারেক রহমান বলেছেন, দেখুন, সামনে আরো খেলা আছে। কী খেলা আছে বা সামনে কী ঘটতে যাচ্ছে- সে ব্যাখ্যা দেননি তারেক। তবে প্রতিবার বাংলাদেশে যখন কোনো না কোনো বিষয় নিয়ে আন্দোলন হয় তখনই তারেক রহমান জেগে ওঠেন এবং তিনি বিএনপি ছাড়াও কয়েকটি সংগঠনকে উ’স্কে দেয়ার জন্য ব্যবহার করেন।

স্মরণযোগ্য, এর আগেও কোটা আন্দোলনের সময় তারেক বিএনপিপন্থী এক শিক্ষককে টেলিফোন করে এই আন্দোলনে শিক্ষকদেরকে মাঠে নামার নির্দেশনা দিয়েছিলেন। নিরাপদ সড়ক আন্দোলনের সময় তারেক দলের সিনিয়র নেতা আমির খসরুর সাথে টেলি আলাপে রাস্তায় নেমে একটা ক্যাওস সৃষ্টির নির্দেশনা দিয়েছেন। আমির খসরু সেই নির্দেশনা পৌঁছে দেন কুমিল্লার এক যুবদল নেতাকে। যার ফোনালাপ প্রকাশিত হয়ে যায়।

এর প্রেক্ষিতে এখন তারেক রহমান তৃণমূলের সঙ্গে কী আলাপ করছেন বা তাদেরকে দিয়ে কোনো ধরণের সামাজিক অপরাধে জড়িয়ে পড়া বা ভাড়াটে লোক দিয়ে এ ধরনের অপরাধমূলক কর্মকাণ্ডের নির্দেশনা দিচ্ছেন কি না সেটি খতিয়ে দেখা দরকার বলে অনেকে মনে করছেন। কারণ মির্জা ফখরুলের সাথে তারেক রহমানের কথোপকথন থেকে এটা স্পষ্ট, সামনে আরো কিছু করার পরিকল্পনা গ্রহণ করা হচ্ছে।

বিএনপি জামায়াত ২০০১ সাল থেকে ২০০৬ সাল পর্যন্ত যখন ক্ষমতায় ছিল, তখন এরকম অনেক পরিকল্পিত ঘটনা ঘটিয়েছিল। যার একটি বড় উদাহরণ- একযোগে সারাদেশে সিরিজ বো’মা হাম’লা। এখন সরকারকে বেকায়দায় ফেলতে দেশজুড়ে নারী নিপী’ড়ন ঘটানো হচ্ছে কি না কিংবা হঠাৎ জোয়ার সৃষ্টি হওয়া এসব ঘটনার পেছনে অন্য কারো ষড়’যন্ত্রর হাত আছে কি না, তা খতিয়ে দেখা দরকার বলে মনে করেন বিশ্লেষকরা।

পাশাপাশি এখন ছোটখাটো ঘটনাগুলোকেও গণমাধ্যমে ফলাও করে প্রচার করার পেছনে কোনো পরিকল্পিত উদ্দেশ্য আছে কি না সেটিও তদন্ত হওয়া দরকার বলে মনে করেন অনেকে। কারণ তারেক রহমান যখন বলছেন- সামনে অনেক খেলা আছে- তার মানে এটি নিছক একটি সামাজিক অপরাধ না; এই ইস্যু নিয়ে চিহ্নিত রাজনীতিবিদদের মাঠ গরম করার একটা কৌশল কি না- প্রশ্ন ওঠা স্বাভাবিক। বাংলাইনসাইডার।

শেয়ার করুন !
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply

error: Content is protected !!