অ্যাম্ফিটামিনের গন্তব্য ছিল ভারত টু অস্ট্রেলিয়া ভায়া ঢাকা-মালয়েশিয়া!

0

সময় এখন ডেস্ক:

বিমানবন্দর থেকে ১২ কেজি ৩২০ গ্রাম অ্যাম্ফিটামিন উদ্ধারের ঘটনায় এর সঙ্গে জড়িত ও বিক্রি চক্রের মূলহোতা আবুল কালাম আজাদ বান্টিকে গ্রেপ্তার করেছে নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর। এ ঘটনায় মোট ৭ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

জেরাায় গ্রেপ্তারকৃতরা জানায়, দীর্ঘদিন ধরে ভারতীয় চক্রের সঙ্গে যোগসাজশে এই পাউডার পাচা’রের জন্য সীমান্ত এলাকা বেনাপোল দিয়ে বাংলাদেশে আমদানি করে তারা। আমদানির পর বান্টি এগুলো নিয়ে জুনায়েদ ইবনে সিদ্দিকী (৩৩) ও নজরুল ইসলামের (৪৭) কাছে বিক্রি করে। বাংলাদেশকে র‌্যুট হিসেবে ব্যবহার করে এই পাউডার মালয়েশিয়া হয়ে অস্ট্রেলিয়ায় পাঠানোর জন্য তারা কিনেছিলেন।

বুধবার (১৪ অক্টোবর) রাজধানীর সেগুনবাগিচায় নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান অধিদপ্তরের মহাপরিচালক মোহাম্মদ আহসানুল জাব্বার।

তিনি বলেন, বিমানবন্দর রপ্তানি কার্গো ভিলেজ থেকে ১২ কেজি ৩২০ গ্রাম অ্যাম্ফিটামিন উদ্ধারের ঘটনায় বিভিন্ন সময় ৬ আসামিকে গ্রেপ্তার করা হয়। তাদের দেয়া তথ্যের ভিত্তিতে গত ৭ অক্টোবর রাজধানীর মিটফোর্ড এলাকার মাহমুদা ম্যানশনের কালাম ট্রেড ইন্টারন্যাশনালের সত্ত্বাধিকারী আবুল কালাম আজাদ বান্টিকে গ্রেপ্তার করা হয়।

মহাপরিচালক বলেন, গ্রেপ্তারের পর আবুল কালাম আজাদ জেরায় জানায়, জুনায়েদ ইবনে সিদ্দিকী এবং মো. নজরুল ইসলাম তাদের এই পাউডার সরবরাহ করেছিলেন। তাদের সঙ্গে যোগাযোগ ও মাধ্যমপক্ষ হিসেবে দীন ইসলাম ও সাইফুল নামে ২ জন ব্যক্তি কাজ করে আসছিলেন। তিনি এগুলো পার্শ্ববর্তী দেশ ভারতের কেমিক্যাল ব্যবসায়ী হাবিব মাস্টারের মাধ্যমে গোপন পথে সংগ্রহ করতেন।

কেমিক্যাল ব্যবসায়ী হাবিব মাস্টারের সহযোগী হিসেবে রাজ খান এই পাউডার সীমান্ত পার করিয়ে দেয়া এবং ড্রিমল্যান্ড, করতোয়া ইত্যাদি কুরিয়ারের মাধ্যমে ঢাকা পৌঁছানোর ব্যবস্থা করতেন। আসামি দীন ইসলাম ও সাইফুলকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলমান রয়েছে বলেও জানান তিনি।

গ্রেপ্তার জুনায়েদ ও নজরুল জানায়, তারা ভারত থেকে এগুলো সংগ্রহ করে তৈরি পোশাকের কার্টনের মধ্যে বিশেষ প্রক্রিয়ায় কার্বনের লেয়ার দিয়ে ক্যাভিটি তৈরি করে তারপর মালয়েশিয়া হয়ে অস্ট্রেলিয়ায় পাঠানোর চেষ্টা করছিলেন।

শেয়ার করুন !
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply

error: Content is protected !!