নিত্যপণ্যের দাম বাড়ার কারণ ব্যাখ্যা করলেন ড. নাজনীন আহমেদ

0

অর্থনীতি ডেস্ক:

নিত্যপণ্যের মূল্য বৃদ্ধির সাথে অর্থনীতির সম্পৃক্ততার বিভিন্ন দিক নিয়ে নিজের বিশ্লেষণ তুলে ধরেন বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ডেভেলপমেন্ট স্ট্যাডিজ (বিআইডিএস) এর জ্যেষ্ঠ গবেষণা ফেলো অর্থনীতিবিদ ড. নাজনীন আহমেদ।

সাপ্লাই চেইনের সমস্যায় নিত্যপণ্যের দাম বাড়ছে জনিয়ে এই অর্থনীতিবিদ বলেন, এখন আলুর দাম অনেক বেশি কিন্তু যখন কৃষকের ক্ষেতে আলু উৎপাদন হবে তখন আলুর দাম কমে যাবে। যখন ধান উৎপাদন হয় তখন ধানের দাম কমে যায়। এতে করে পণ্য সংরক্ষণ কিংবা মধ্যসত্ত্বভোগীরা লাভবান হচ্ছে কিন্তু দাম পাচ্ছে না কৃষকরা।

শীতের আগের এই সময়টাতে পণ্যের উৎপাদন কম থাকায় নিত্যপণ্যের দাম বেড়ে যায়। এতে করে নিম্ন আয়ের মানুষের ওপর বড় ধরনের চাপ পড়ে। অন্যদিকে বন্যার কারণে দেশের বিভিন্ন অঞ্চলের চাউল, পেয়াজ সবজিসহ কৃষি পণ্য উৎপাদন কমে গেছে। বন্যার পর থেকেই দ্রব্যমূল্য বাড়তে শুরু করেছে। প্রতিবছর শীতের আগে সরবরাহ কম থাকায় দাম বেড়ে যায়। তবে এবছর বন্যার কারণে নিত্যপণের দাম অন্য বছরের তুলনা বেশি বাড়বে বলে জানান ড. নাজনীন আহমেদ।

অন্যদিকে যখনই বাজারে কোন পণ্যের দাম বাড়ে, তখন মানুষ সেই জিনিস বেশি বেশি কিনতে থাকে। ব্যবসায়ীরা এই সুযোগকে পুঁজি করে নিত্যপণ্যের দাম বাড়িয়ে দেয়। এছাড়া শুকনা সবজি কম থাকায় এই সময়ে এসে এসব পণ্যের দাম বাড়ে।

ড. নাজনীন আহমেদ বলেন, সরকারের পক্ষ থেকে প্রতিনিয়ত নিত্যপণ্য বিক্রি করতে হবে। চাল, ডাল, পেঁয়াজ, রসুন, আদা, তেল, আলুসহ শুকনো পণ্য বছরব্যাপী বিক্রির ব্যবস্থা করতে হবে। এতে হঠাৎ দাম বাড়ার প্রবণতা কমে যাবে।

হঠাৎ করে পণ্যের দাম বাড়লে দরিদ্র মানুষের ওপর নে’তিবাচক প্রভাব পড়ে। এছাড়া দরিদ্র মানুষের ব্যায়ের একটা বড় অংশই চলে যায় নিত্যপণ্য-খাদ্য সামগ্রী কিনতে। এই খাতে অর্থ ব্যয়ের কারণে তাদের মৌলিক চাহিদাগুলো পূরণ করা কঠিন হয়ে পড়ে। এই অবস্থায় পণ্যের দাম বাড়লে তাদের জন্য ম’রার ওপর খাঁড়ার ঘা।

নিত্যপণের দাম যদি উর্ধ্বগতির দিকে থাকে তাহলে মূল্যস্ফীতি হতে থাকে। এতে সবচেয়ে বেশি সমস্যা হয় নিম্নআয়ের মানুষের। এজন্য বাজার স্বাভাবিক রাখতে বাজার ব্যবস্থাপনা, বাজার মনিটরিং ও সরবরাহ চেইন সচল রাখতে সমন্বিত উদ্যোগ প্রয়োজন বলে মনে করেন এই অর্থনীতিবিদ। বাংলাইনসাইডার।

শেয়ার করুন !
  • 8
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply