মমতাকে শেখ হাসিনা উপহার পাঠানোয় বিচলিত মোদি?

0

বিশেষ প্রতিবেদন:

আসন্ন দুর্গাপূজা উপলক্ষ্যে পশ্চিম বাংলার মূখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জীকে উপহার পাঠিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। প্রতি বছর পূজায় “নবান্ন”তে পৌছে যায় শেখ হাসিনার উপহার। তিস্তার পানি দিতে যতই আপ’ত্তি করুন না কেন মমতা, শেখ হাসিনার ব্যাপারে তিনি সব সময়ই উচ্ছসিত। ‘দিদি’ বলতে অজ্ঞান। একাধিক বক্তৃতা এবং সাক্ষাৎকারে মমতা বলেছেন, ‘দিদি’ (শেখ হাসিনা) থেকে আমি অনেক প্রেরণা পাই।’ দুই দেশের স্বার্থের বেড়াজালে আটকে যায়নি দুই নারী নেত্রীর ঘনিষ্ঠতা।

তবে এবারের উপহারের বিষয়টি একটু ভিন্ন। একে তো করোনাকালে বিমান চলাচল বন্ধ। তার ওপর মোদিবিরো’ধী রাজনৈতিক মোর্চায় মমতার নাম আলোচনার কেন্দ্রে। বিমান বন্ধ তাতে কী? বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী মমতা ব্যানাজীর জন্য উপহার পাঠালেন সড়ক পথে। বেনাপোল দিয়ে এই উপহার পৌছে দেয়া হলো মমতার বাড়ি নবান্নতে।

এবার আসা যাক রাজনৈতিক প্রসঙ্গে। ভারতে মোদির বিরু’দ্ধে একাট্টা হয়েছে ভারতের রাজনৈতিক দলগুলো। বিহার নির্বাচন নিয়ে মোদির ঘুম হারাম। ভারতীয় রাজনীতি বিশ্লেষকরা বলছেন, বিহার নির্বাচনের জন্যই মোদি সরকার বাংলাদেশে পেঁয়াজ রপ্তানী বন্ধ করেছে। আর এই নির্বাচনে মোদির বিজেপিকে হারাতে যারা আদাজল খেয়ে লেগেছে তাদের মধ্যে অন্যতম মমতা। এ ব্যাপারে মমতার হিসেব খুব পরিস্কার। বিহারে মোদির বিজেপিকে পরাজিত করা গেলে তারা পশ্চিমবঙ্গে আঁচড় দিতে পারবে না।

গত নির্বাচনের পরই মমতাকে বিজেপি এই বলে শাসিয়েছে, আগামীতে পশ্চিম বাংলায় তৃণমূলের নাম নিশানা মুছে দেয়া হবে। ফলে ভারতের রাজনীতিতে স্বাভাবিক রাজনৈতিক সৌজন্যতা ক্রমশ অপসৃত হচ্ছে। রাজনৈতিক অ’সহিষ্ণুতা এখন ক্রমশ চরম আকার ধারণ করছে। এই অবস্থায়, উ’গ্র জাতীয়তাবাদী রূপ গ্রহণ করেছে মোদি সরকার।

তাই, বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীকে যখন আবেগে জড়িয়ে ধরেন প্রিয়াংকা গান্ধী, তখন মোদি সরকার অভিমান করে। এখন মমতাকে উপহার পাঠালেন শেখ হাসিনা। এতে কি মন খারাপ করলেন মোদি? কারণ এ মুহূর্তে মোদির শ’ত্রুর তালিকার প্রথম দিকেই মমতার নাম থাকবে। তার সঙ্গে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীর এই সখ্যতায় কি বিচলিত নরেন্দ্র মোদি? অবশ্য বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী এর মাধ্যমে ভারতের আগ্রা’সী রাজনীতির জন্য একটি বার্তাও দিয়েছেন।

মমতা তিস্তার পানি আটকে রেখেছেন, তাতে কী? উপহার দেয়ার সৌজন্যতা কেন ন’ষ্ট হবে। ব্যক্তিগত সম্পর্ক কেন স্বার্থের দ্ব’ন্দ্বে ফিকে হয়ে যাবে? এমন বার্তা শেখ হাসিনা ক’দিন আগেও দিয়েছিলেন। ভারত যেদিন পেঁয়াজ বন্ধ করলো, সেদিন তিনি ইলিশ পাঠিয়ে ভারতকে উদারতা শেখালেন। কিন্তু বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীর এই বার্তা কি বোঝে ভারত? বাংলাইনসাইডার।

শেয়ার করুন !
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply

error: Content is protected !!