আপিলের প্রথম দিনে যারা মনোনয়ন ফিরে পেলেন

0

সময় এখন ডেস্ক:

আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশ নিতে মোট ৩ হাজার ৬৫ জন প্রার্থী মনোনয়নপত্র দাখিল করেছিলেন। যাচাই বাছাইয়ের পর ৭৮৬ জনের প্রার্থিতা বাতিল হয়। এর ফলে বৈধ প্রার্থীর সংখ্যা দাঁড়ায় ২ হাজার ২৭৯ জনে। এরপর গত ৩ ডিসেম্বর থেকে ৫ ডিসেম্বর পর্যন্ত চলে প্রার্থিতা ফিরে পেতে আপিল। ৭৮৬ জন প্রার্থীর মধ্যে ৫৩৪ আপিল করেন। বৃহষ্পতিবার থেকে শুরু হলো আপিলের শুনানি। ০৬ ডিসেম্বর থেকে ০৮ ডিসেম্বর প্রতিদিন সকাল ১০টা থেকে আপিলের শুনানি শুরু হবে।

প্রধান নির্বাচন কমিশনার কে এম নূরুল হুদা, নির্বাচন কমিশনার মাহবুব তালুকদার, রফিকুল ইসলাম, কবিতা খানম ও শাহাদাত হোসেন চৌধুরী অস্থায়ী এজলাসে বিচারকের আসনে রয়েছেন।

আপিলে আজ যারা প্রার্থিতা ফিরে পেলেন:

১. বগুড়া-৭: মোরশেদ মিল্টন, ২. কিশোরগঞ্জ-২: আখতারুজ্জামান, ৩. পটুয়াখালী-৩: গোলাম মাওলা রনি, মো. শাহজাহান, ৪. ঢাকা-২০: তমিজউদ্দিন, ৫. ঢাকা-১: আবু আশফাক, ৬. জামালপুর-৪: ফরিদুল কবির তালুকদার শামীম, ৭. পটুয়াখালী-১: সুমন সন্যামাত, ৮. মাদারীপুর-১: জহিরুল ইসলাম মিন্টু, ৯. ঝিনাইদহ-২: আবদুল মজিদ, ১০. সিলেট-৩: আবদুল কাইয়ুম চৌধুরী

১১. জয়পুরহাট-১: বজলুর রহমান, ১২.পাবনা-৩: হাসাদুল ইসলাম, ১৩. সাতক্ষীরা-২: মো. আফসার আলী, ১৪. ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৬: জেসমিন নূর বেবী, ১৫. গাজীপুর-২. মো. জয়নাল আবেদীন, মো. মাহবুব আলম, ১৬. খুলনা-৬: এস এম শফিকুল আলম মনা, ১৭. সিরাজগঞ্জ-৩: মো. আয়নাল হক, ১৮. রংপুর-৪: মোস্তফা সেলিম বেঙ্গল, ১৯. মানিকগঞ্জ-২: আবিদুর রহমান রোমান, ২০. হবিগঞ্জ-১: জুবায়ের আহমেদ

২১. ব্রাহ্মণবাড়িয়া-৩: আবদুল্লাহ আল হেলাল, ২২. নেত্রকোনা-১: নজরুল ইসলাম, ২৩. কুড়িগ্রাম-৪: ইউনুস আলী, ২৪. বরিশাল-২: আনিসুজ্জামান, ২৫. ঢাকা-৫: সেলিম ভূঁইয়া, ২৬. ঝিনাইদহ-৩: কামরুজ্জামান স্বাধীন, ২৭. কুমিল্লা-৩: কে এম মুজিবুল হক

বিএনপির বেশ কয়েকজন প্রার্থীর আইনজীবী ব্যরিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন বলেন, “আমাদের বেশ কয়েকজন প্রার্থীর মনোনয়ন ফিরিয়ে দিয়েছে কমিশন। এখন বেগম খালেদা জিয়ার মনোনয়ন ফিরিয়ে দেওয়ার ওপর আমাদের সন্তুষ্টি-অসন্তুষ্টি নির্ভর করছে।”

জিয়া এতিমখানা ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় ১০ বছর এবং জিয়া দাতব্য ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় ৭ বছরের দণ্ড নিয়ে গত ফেব্রুয়ারি থেকে কারাগারে আছেন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া। তার নামে এবার ফেনী-১, বগুড়া-৬ ও বগুড়া-৭ আসনে মনোনয়নপত্র জমা দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু দুর্নীতি মামলায় দুই বছরের বেশি সাজা হওয়ার কারণে রিটার্নিং কর্মকর্তারা তা বাতিল করেন।

শেয়ার করুন !
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply