ফেসবুকের কাছে ৩৭১টি আইডির তথ্য চেয়েছে সরকার

0

সময় এখন ডেস্ক:

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকের কাছে ৩৭১টি আইডির তথ্য চেয়েছে সরকার। এজন্য সরকারকে ২৪১টি রিকোয়েস্ট (অনুরোধ) পাঠাতে হয়। এর মধ্যে আইনি প্রক্রিয়ার মাধ্যমে অনুরোধ ১৪২টি (৫৮.৯ শতাংশ) এবং ৯৯টি (৪১.১ শতাংশ) জরুরি অনুরোধ।

বাংলাদেশ সরকারের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে ৪৪ শতাংশ অনুরোধের বিপরীতে কিছু কিছু তথ্য দিয়েছে ফেসবুক যা জরুরির বেলায় ২৫ শতাংশ আর আইনি প্রক্রিয়ার মাধ্যমে অনুরোধের ৫৭ শতাংশ।

গত ১৯ নভেম্বর রাতে প্রকাশিত ফেসবুকের ট্রান্সপারেন্সি প্রতিবেদন থেকে এই তথ্য জানা গেছে। প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, এ বছরের প্রথম ৬ মাসে (জানুয়ারি থেকে জুন) সরকার ফেসবুকের কাছে এই অনুরোধ পাঠায়।

প্রতিবেদনে ফেসবুক উল্লেখ করেছে, সরকারের কাছ থেকে অনুরোধ পাওয়ার পরে ফেসবুক তাদের আইনি কাঠামো ও টার্মস অব সার্ভিসে মাধ্যমে যথাযথভাবে যাচাই করে তবেই তথ্য দেওয়া হয়। সরকারের প্রতিটি অনুরোধ যত্ন ও সতর্কতার সঙ্গে রিভিউ করা হয়েছে।

জানা যায়, ২০১৬ সাল থেকে বাংলাদেশ সরকার ফেসবুকের কাছে তথ্য চাওয়া শুরু করে। অন্যদিকে ৬ মাস পর পর ফেসবুক ট্রান্সপারেন্সি প্রতিবেদন প্রকাশ করে। ফেসবুক প্রতিবেদন প্রকাশ করলেও বিভিন্ন দেশের সরকারের চাওয়া কোনও আইডির তথ্য প্রকাশ (প্রতিবেদনে) করে না।

ভারতের আপ’ত্তির মুখে নতুন ২০ রিয়ালের নতুন নোট উঠিয়ে নিল সৌদি সরকার

সৌদি আরবের ২০ রিয়ালের নতুন ব্যাংক নোট প্র’ত্যাহার করা হয়েছে। জি-২০ সম্মেলন উপলক্ষে ছাপা ওই নোটে জম্মু-কাশ্মীর এবং লাদাখকে ভারতের মানচিত্রের বাইরে রাখা হয়েছিল। বিষয়টি নিয়ে ভারত আপ’ত্তি জানালে ওই নোট ছাপা বন্ধের নির্দেশ দেয় সৌদি প্রশাসন।

সৌদি প্রশাসন জানিয়েছে, আগে যেসব নোট ছাপা হয়েছিল তাও উঠিয়ে নেয়া হবে।

সৌদিতে দুই দিনব্যাপী জি-২০ সম্মেলন শুরু হয়েছে আজ। সেই উপলক্ষেই গত মাসের শেষ দিকে নতুন এই ২০ রিয়ালের নোটটি বাজারে ছাড়ে সৌদি প্রশাসন। নোটের একদিকে সৌদি আরবের বাদশাহ সালমন বিন আবদুল আজিজ আল সৌদের ছবি এবং এ বছরের জি-২০ সম্মেলনের প্রতীক রয়েছে। অন্যদিকে রয়েছে বিশ্ব মানচিত্র।

আর সেখানেই জম্মু-কাশ্মীর ও লাদাখকে বাদ রেখে ভারতের মানচিত্রটি ছাপা হয়। এ নিয়ে তখনই আপ’ত্তি জানিয়েছিল ভারত। রিয়াদে ভারতীয় রাষ্ট্রদূত আউসফ সৈয়দ বিষয়টি নিয়ে সৌদি প্রশাসনের কাছে ভারতের আপ’ত্তির বিষয়টি স্পষ্ট করে তুলেন। তারপর বিষয়টিকে বিবেচনায় নেয় সৌদি প্রশাসন।

সৌদির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, ওই নোটটি স্মারক হিসেবে ছাপা হয়েছিল। তবে তা বাজারে ছাড়া হয়নি। ভারতের আপ’ত্তির বিষয়টি বিবেচনায় রেখে নতুন নোট ছাপা বন্ধ করার পাশাপাশি সব নোট প্র’ত্যাহারের নির্দেশ দেয়া হয়েছে।

শেয়ার করুন !
  • 34
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply