পোশাক ছাড়াই সুপ্রিম কোর্টের ভার্চুয়াল শুনানিতে অংশগ্রহণ!

0

আন্তর্জাতিক ডেস্ক:

করোনাকালে বাড়ি থেকেই চলছে অফিস। তাই পরিপাটি করে ফর্মাল শার্ট-প্যান্ট-জুতা পরার তাড়া নেই। সেসবের ঠাঁই হয়েছে আলমারিতে। ভিডিও কনফারেন্সে মিটিং হলে গায়ে একটা শার্ট চাপিয়ে বসে পড়লেই হলো। কেউ কেউ তো আবার সে নিয়মও মানছেন না। সরকারি-বেসরকারি অফিসের ক্ষেত্রে তাও বা মানিয়ে নেওয়া যায়। কিন্তু এ ঘটনা যদি আদালতে ঘটে। তাও আবার সুপ্রিম কোর্টে।

মঙ্গলবার (১ ডিসেম্বর) এমন ঘটনাই ঘটে গেলো ভারতের শীর্ষ আদালতে ভার্চুয়াল শুনানি চলাকালীন। আর তাতেই রেগে আগুন বিচারপতিরা।

এদিন বিচারপতি এলো নাগেশ্বর ও বিচারপতি হেমন্ত গুপ্তার ভার্চুয়াল বেঞ্চে শুনানি ছিলো। শার্ট ছাড়া খালি গায়ে এক ব্যক্তি সেই শুনানিতে ঢুকে পড়েন। তবে তিনি অভিযুক্ত নাকি আইনজীবী সে সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য মেলেনি। কিন্তু এই ঘটনায় বির’ক্ত হন বিচারপতিরা।

বলেন, গত ৭-৮ মাস ধরে ভিডিও কনফারেন্সে শুনানি চলছে। সেই সময় বারবার এ ধরণের ঘটনা ঘটছে। এটা হওয়া উচিৎ নয়। আদালতের ন্যূনতম নিয়মকানুন মেনে চলা উচিৎ।

প্রসঙ্গত, ২৬ অক্টোবর বিচারপতি ডি ওয়াই চন্দ্রচূড়ের এজলাসে শুনানি চলাকালীন একই ধরণের একটি ঘটনা ঘটে। দেখা যায়, এক আইনজীবী পোশাক ছাড়াই শুনানিতে চলে এসেছেন। তাকেও রীতিমতো ধ’মক দেন বিচারপতি। তারপরেও পরিস্থিতির উন্নতি হয়নি।

জুন মাসে ভার্চুয়াল শুনানি চলাকালীন দেখা যায় এক আইনজীবী টি-শার্ট গায়ে জড়িয়ে বিছানায় শুয়ে শুয়ে আদালতে অংশ নিয়েছেন। সেই সময় শীর্ষ আদালত নির্দেশিকা জারি করে জানিয়েছিলো, শুনানি চলাকালীন নির্দিষ্ট পোশাকবিধি মানতে হবে। আদালতের নিয়ম মেনে হাজিরা দিতে হবে।

বিচারপতি ও আইনজীবীদের ড্রেস কোড নিয়ে বিজ্ঞপ্তি জারি

সুপ্রিম কোর্টে মামলার শুনানিকালে বিচারপতি এবং আইনজীবীদের কালো কোট পরা বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। এ বিষয়ে গত ১৭ নভেম্বর সুপ্রিম কোর্টের রেজিস্ট্রার জেনারেল মো. আলী আকবরের স্বাক্ষরে নতুন করে বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়েছে।

সুপ্রিম কোর্ট: মামলার শুনানিকালে বিচারক ও আইনজীবীদের কালো কোট পরার জন্য সোমবার সুপ্রিম কোর্টের রেজিস্ট্রার জেনারেল মো. আলী আকবরের স্বাক্ষরে সুপ্রিম কোর্ট ও অধস্তন আদালতের জন্য আলাদা আলাদা বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়।

এতে বলা হয়, আসন্ন শীত মৌসুমে সুপ্রিম কোর্টের উভয় বিভাগের বিচারপতিরা শারীরিক উপস্থিতিতে এবং ভার্চুয়াল পদ্ধতিতে মামলা শুনানিকালীন ক্ষেত্রমতো টার্নড আপ সাদা কলার ও সাদা ব্যান্ডসহ সাদা শার্ট ও প্যান্ট/ শাড়ি বা সালোয়ার কামিজ এবং জাজেস কোট পরিধান করবেন। ‘সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবীরা শারীরিক উপস্থিতিতে এবং ভার্চুয়াল পদ্ধতিতে মামলা শুনানিকালীন ক্ষেত্রমতো টার্নড আপ সাদা কলার ও সাদা ব্যান্ডসহ সাদা শার্ট ও প্যান্ট/ শাড়ি বা সালোয়ার কামিজ এবং কালো কোট/ শেরওয়ানি পরিধান করবেন’।

নিম্ন আদালত: অধস্তন আদালতের বিষয়ে জারি করা পৃথক বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, আসন্ন শীত মৌসুমে বিচারক ও আইনজীবীরা মামলা পরিচালনার সময় ক্ষেত্রমতো সাদা শার্ট বা সাদা শাড়ি/ সালোয়ার কামিজ ও সাদা নেকব্যান্ড/ কালো টাই এবং কালো/ শেরওয়ানি পরিধান করবেন।

শেয়ার করুন !
  • 8
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply