সুবর্ণচর ধর্ষণের ঘটনার প্রধান অভিযুক্ত সোহেল গ্রেফতার

0

নোয়াখালী সংবাদদাতা:

নোয়াখালীর সুবর্ণচরে স্বামী সন্তানকে বেঁধে রেখে গৃহবধূ গণধর্ষণের ঘটনায় প্রধান অভিযুক্ত সোহেলকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বুধবার (২ জানুয়ারি) দুপুরে কুমিল্লার বরুরা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। এ নিয়ে এ মামলায় এখন পর্যন্ত ৩ জনকে গ্রেফতার করা হলো।

পুলিশ জানায়, ধর্ষণের ঘটনায় করা মামলার প্রধান অভিযুক্ত সোহেল কুমিল্লায় অবস্থান করছে, এমন সংবাদ পেয়ে সেখানে অভিযান চালানো হয়। পরে মহেশপুরের একটি ইটভাটা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

ভুক্তভোগীর পরিবার জানিয়েছে, পূর্ব বিরোধের জেরে গত রোববার রাতে সুবর্ণচর উপজেলার চরজুবলী এলাকায় বাড়িতে এসে হামলা ও ভাংচুর চালায় একই এলাকার সোহেল, মোশারফ, সালাউদ্দিন ও তাদের সহযোগীরা।

এ সময় বাধা দিলে গৃহবধূর স্বামী ও তাকে পিটিয়ে আহত করে। পরে স্বামী, স্কুলপড়ুয়া মেয়ে ও ছেলেকে বেঁধে রেখে গৃহবধূকে গণধর্ষণ করে পালিয়ে যায়। স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন। পরে এ ঘটনায় ৯ জনকে আসামী করে সুবর্ণচর থানায় মামলা করেন গৃহবধূর স্বামী।

নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার সৈয়দ মহিউদ্দিন আবদুল আজিম বলেন, ‘যাতে কোন আলামত নষ্ট না হয় সেজন্য আমরা দ্রুততার সহিত ভর্তি করে প্রাথমিক পরীক্ষাগুলো সম্পন্ন করেছি। বাকি পরীক্ষাগুলোও আমরা দ্রুততার সঙ্গে করবো।’

নোয়াখালীর পুলিশ সুপার মো. ইলিয়াছ শরীফ বলেন, ‘ভুক্তভোগীর স্বামী এজাহারে বলেছেন, এই ৯ জন পূর্ব বিরোধের জের ধরে এই ঘটনাটি ঘটিয়েছে। রাজনৈতিক রঙ দেয়ার যে চেষ্টা করা হচ্ছে। যদিও সেটা কিন্তু সে এজাহারে বলেনি।’

প্রসঙ্গত, এই ধর্ষণের ঘটনায় যাদের নাম উঠে এসেছে- ১. মোশারফ হোসেন, পিতা- তোফায়েল, ২. সালাহ উদ্দীন, পিতা- আলমগীর, ৩. সোহেল, পিতা- ইসমাইল, ৪. হেঞ্জু মাঝি, পিতা- চাঁন মিয়া, ৫. বেছু, পিতা- আবুল কাসেম, ৬. জসিম, শ্বশুর- আনিচুল হক মাঝি, ৭. সোহেল-২, পিতা- আবুল কালাম, ৮. চৌধুরী, পিতা- আবু হানিফ, ৯ স্বপন, পিতা- আবদুল মন্নাছ, ১০. আনোয়ার, পিতা- ইউছুপ মাঝি, ১১. বাদশা, পিতা- আহমদ উল্ল্যা, ১২. হানিফ, পিতা- বাগন আলী, সর্বসাং মধ্যবাগ্যা, চরজুবিলী, সুবর্ণচর, নোয়াখালী। ১৩. আমির হোসন, পিতা- নুরুল হক, পশ্চিম চরজব্বর, সুবর্ণচর, নোয়াখালী। ১৪. রুহুল আমীন, ইউপি সদস্য।

শেয়ার করুন !
  • 14
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply