শপথ আগামীকাল, উপস্থিত থাকছেন তো এরশাদ!

0

সময় এখন ডেস্ক:

জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ একাদশ জাতীয় সংসদের সদস্য (এমপি) হিসেবে শপথ নেবেন রবিবার (৬ জানুয়ারি)। এদিন বেলা ১১টার দিকে তিনি জাতীয় সংসদের শপথগ্রহণ কক্ষে শপথ নেবেন বলে আজ বিকেলে জানিয়েছেন পার্টির মহাসচিব মসিউর রহমান রাঙ্গা।

গত ৩০ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত নির্বাচনে জাতীয় পার্টির ২২ জন সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। এদের মধ্যে কেবল এরশাদ ছাড়া বাকিরা বৃহস্পতিবারই (৩ জানুয়ারি) শপথ নেন।

তবে এরশাদের সাম্প্রতিক গতিবিধি এবং গুরুত্বপূর্ণ রাজনৈতিক সন্ধিক্ষণে তার অনুপস্থিতি এখন শঙ্কা তৈরী করছে, আগামীকাল শপথ অনুষ্ঠানে তিনি আদৌ উপস্থিত হতে পারবেন তো! নাকি অন্য কোনও কাজে ব্যস্ত হয়ে পড়েন, সে নিয়ে রাজনৈতিক অঙ্গনে চলছে এখন আলোচনা।

আজ শুক্রবার হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদের সই করা বিবৃতিতে জানানো হয়, জাতীয় পার্টিই হতে যাচ্ছে প্রধান বিরোধী দল। বিরোধী দলীয় নেতা হবেন দলের চেয়ারম্যান এরশাদ। দলের কোনো সদস্য মন্ত্রী হবেন না। আজ এরশাদ দলের মহাসচিব মসিউর রহমান রাঙ্গাকে বিরোধী দলীয় চিফ হুইপ করার সিদ্ধান্তের কথা জানান।

এদিকে শনিবার স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীকে দেয়া চিঠিতে এরশাদ বলেন, ‘একাদশ জাতীয় সংসদে আপনি স্পিকারের দায়িত্ব গ্রহণ করায় (যদিও তিনি এখনও একাদশ সংসদে দায়িত্ব গ্রহণ করেননি। দশম সংসদের দায়িত্বে থেকেই দায়িত্ব পালন করছেন) প্রথমেই আপনাকে অভিনন্দন জানাচ্ছি। আপনি অবগত আছেন যে, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আমার জাতীয় পার্টি ২২টি আসনে জয় লাভ করে বিরোধী দলের মর্যাদা লাভ করেছে। নির্বাচনের এই ফলাফলের প্রেক্ষিতে পার্টির চেয়ারম্যান হিসেবে দলের গঠনতান্ত্রিকভাবে পদাধিকার বলে আমি জাতীয় পার্টির পার্লামেন্টারি পার্টিরও সভাপতি। এই প্রেক্ষাপটে আমি হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদ (রংপুর-৩) প্রধান বিরোধী দলীয় নেতা এবং পার্টির কো-চেয়ারম্যান গোলাম মোহাম্মদ কাদের (লালমনিহাট-৩) বিরোধী দলীয় উপনেতা হিসেবে দায়িত্ব পালনের জন্য দলীয়ভাবে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছি। অতএব এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য আপনার প্রতি সবিনয় অনুরোধ জানাচ্ছি।’

গত ৩০ ডিসেম্বর একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। এ নির্বাচনে মহাজোট ২৮৯ আসনে জয়ী হয়েছে। এর মধ্যে জাতীয় পার্টির রয়েছে ২২টি আসন। মহাজোটের বিরোধী জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট এ নির্বাচনে মাত্র ৭টি আসনে জয়ী হয়েছে।

রাজনৈতিক সন্ধিক্ষণে এরশাদের অনুপস্থিতি শঙ্কা তৈরী করছে, আগামীকাল শপথ অনুষ্ঠানে তিনি আদৌ উপস্থিত হতে পারবেন তো! নাকি অন্য কোনও কাজে ব্যস্ত হয়ে পড়েন, তা নিয়ে আলোচনা চলছে এখন।

শেয়ার করুন !
  • 1
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply