দুই বাংলার তরুণ প্রজন্ম: কেউ মত্ত ডিস্কোতে, কেউ রাজপথে

0

মুক্তমঞ্চ ডেস্ক:

শীতকাল আসলে ভারতের বিভিন্ন বড় শহরে রাতপার্টির ধুম পড়ে যায়। কলকাতাও ব্যতিক্রম নয়। এখানে নাইটক্লাব ও ডিস্কোগুলোতে আধুনিক প্রজন্মের ছেলেমেয়েরা প্রায়ই আনন্দ খুঁজে নিতে হাজির হন। সারারাত ধরে নাচগান এবং মদ্যপানের আতিশয্যে তাঁরা নিজেদের দুঃখ ভুলতে পারে কি না, তা জানা না থাকলেও এই কালচারের উত্তরোত্তর বৃদ্ধি একথাই প্রমান করে যে, বাঙালির নিজস্ব কৃষ্টি বা সংস্কৃতির থেকে জেন এক্স প্রজন্ম অনেকটাই সরে এসেছে।

এটা ভাল না খারাপ, সেটা নিয়ে আলোচনা করতে চাইছি না। উপদেশ দেওয়ার ইচ্ছা বা যোগ্যতাও আমার নেই। কিন্তু নতুন প্রজন্ম যেভাবে রাজনীতি বিমূখ হয়ে উঠছে বা আর্থ-সামাজিক সমস্যাগুলোকে নিয়ে ভাবা থেকে বিরত থাকছে, একজন সাধারণ নাগরিক হিসাবে তা আমার কাছে ভালো বলে মনে হয় না। নক্সাল আমলে আত্মত্যাগ করা তরুণ প্রজন্ম অথবা স্বাধীনতা আন্দোলনে ঝাঁপিয়ে পড়া উদীয়মানদের দেশে এই তথাকথিত গ্লোবাল কালচার কেমন যেন বেমানান লাগে।

ইদানিং পশ্চিমবঙ্গে বাবা-মা’য়েরা বাচ্চাকে বাঙলা পড়াতে চাইছেন না, নিতান্ত বাধ্য না হলে তাঁরা সন্তানকে ইংরেজী মিডিয়াম স্কুলে ভর্তি করছেন। ভবিষ্যতে পেশাগত সুবিধার কারনে এতে দোষের কিছু দেখি না। কিন্তু বাঙালি সংস্কৃতি থেকে তাঁরা যেভাবে মুখ ফিরিয়ে নিচ্ছেন, সেটা কিন্তু ভাবনা বাড়িয়ে তোলে।

পাশের বাংলাদেশে যখন তরুণ প্রজন্ম তীব্র আকুতি নিয়ে শাহবাগ কাঁপিয়ে দিচ্ছেন; অনলাইন মাধ্যমে সামাজিক, রাজনৈতিক ও ধর্মীয় অন্যায়ের বিরুদ্ধে সরব হচ্ছেন, তখন এপার বাঙলায় নতুন প্রজন্মের ছেলেমেয়েরা কৃষকমৃত্যু, শবরীমালা বা পাণীয় জল সঙ্কটের মত জ্বলন্ত ইস্যুগুলি নিয়ে আশ্চর্য্যজনক ভাবে নীরব। তারা সেইসময় সামপ্লেস এলস শিশা তন্ত্রা বা ভেনামে নাচে গানে উল্লসিত হয়ে সময় কাটাচ্ছে।

আমি নিশ্চিৎভাবে বলতে পারি, এপার বাঙলার অধিকাংশ ছেলেমেয়েই রবীন্দ্রনাথ, শরৎচন্দ্র, নজরুল বা বিভূতিভূষণ পড়েনি। অথচ তারাই জাস্টিন বিবার বা বেয়ন্সেতে মুগ্ধ হয়ে রয়েছে। বাংলাদেশ যেটা পেরেছে তা আমরা পারছি না কেন, এটা নিয়ে গভীরভাবে ভাবার প্রয়োজন আছে। কারন বাঙালি হিসাবে নিজেদের সংস্কৃতির ভিত্তিকে অস্বীকার করার মানে হল, নিজেদের জাতিসত্ত্বাকে অস্বীকার করা। আর দিনের শেষে আমরা কিন্তু সামাজিক পশু। তাই সমাজ ও রাজনীতি সচেতনতা আমাদের অস্তিত্বের জন্যই দরকার।

লেখক: দেবাশীষ ঘোষ
পরিচিতি: লেখক, বুদ্ধিজীবী

শেয়ার করুন !
  • 2
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply