বেক্সিমকোর কাছে পুরো শেয়ার হস্তান্তরের ঘোষণা সানোফির

0

অর্থনীতি ডেস্ক:

সানোফি আজ সানোফি বাংলাদেশ লিমিটেডের (সানোফি) পুরো শেয়ার বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেডের (বেক্সিমকো ফার্মা) কাছে বিক্রির অভিপ্রায়ের ঘোষণা দিয়েছে।

সকল ধরণের শর্ত পূরণের মাধ্যমে এই প্রক্রিয়া আগামী ৩-৯ মাসের মধ্যে শেষ হবে বলে প্রত্যাশা করছে প্রতিষ্ঠানটি। বর্তমানে, সানোফি বাংলাদেশে সানোফির ৫৪.৬ শতাংশ শেয়ার রয়েছে। বাংলাদেশ কেমিক্যাল ইন্ডাস্ট্রিজ করপোরেশন (বিসিআইসি) এবং শিল্প মন্ত্রণালয় প্রতিষ্ঠানটির অন্যতম প্রধান অংশীদার।

সানোফি বাংলাদেশ লিমিটেডের (এসবিএল) শেয়ার হস্তান্তর প্রক্রিয়া সম্পন্ন হলে, প্রতিষ্ঠানটির গুণগত মানের পণ্য স্থানীয় উৎপাদন ও আমদানির মাধ্যমে বাংলাদেশের বাজারে পাওয়া যাবে। সানোফির বৈশ্বিক ব্যবসায়িক কৌশলের অংশ হিসেবেই বাংলাদেশে প্রতিষ্ঠানটির শেয়ার বিক্রির সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে।

২০১৯ সালের অক্টোবর মাসে সানোফি বাংলাদেশের শেয়ার বিক্রির অভিপ্রায়ের ঘোষণা দেয় প্রতিষ্ঠানটি। সানোফি বাংলাদেশের শেয়ার কেনার জন্য বেক্সিমকো ফার্মাকে পছন্দের ক্রেতা হিসেবে নির্বাচিত করা হয় এবং প্রতিষ্ঠানটি বিক্রি প্রক্রিয়ার অংশ হিসেবে প্রয়োজনীয় আইনগত প্রক্রিয়া যাচাই-বাছাইয়ের সুযোগ পায়।

এ বিষয়ে সানোফি বাংলাদেশ লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মুইন উদ্দিন মজুমদার বলেন, বিশ্বজুড়ে গ্রাহকদের সর্বোত্তম উপায়ে সেবা প্রদানের বিষয়টি প্রতিনিয়তই মূল্যায়ন করে সানোফি।

তাই, আমরা সবকিছু বিবেচনা করে বেক্সিমকো ফার্মাকে নির্বাচিত করেছি যারা দেশজুড়ে আরও বেশি সংখ্যক রোগীদের কাছে সানোফির পণ্য পৌঁছে দিতে বিনিয়োগ ও ব্যবসায়িক প্রবৃদ্ধি বজায় রেখে সানোফির ঐতিহ্যকে বহন করে সামনের দিকে এগিয়ে যাবে। একসাথে আমরা আমাদের কর্মী, ক্রেতা ও এদেশের রোগীদের জন্য হস্তান্তর প্রক্রিয়া সুন্দরভাবে সম্পন্ন করতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।

বিগত বছর, সানোফি বাংলাদেশ এ দেশে পর্যাপ্ত পরিমাণে ওষুধ সরবরাহের বিষয়টি নিশ্চিত করেছে এবং বৈশ্বিক মহামা’রির লকডাউন চলাকালীন সময়ে প্রতিষ্ঠানটি এর সকল কর্মীদের প্রয়োজনীয় সহযোগিতা প্রদান করেছে।

উল্লেখ্য, বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেড বাংলাদেশের শীর্ষস্থানীয় ওষুধ উৎপাদন ও রপ্তানিকারী প্রতিষ্ঠান। প্রতিষ্ঠানটির ওষুধ উৎপাদনের প্রক্রিয়া বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় নিয়ন্ত্রক সংস্থা কর্তৃক স্বীকৃত। প্রতিষ্ঠানটির পণ্য বর্তমানে বিশ্বের ৫০টিরও বেশি দেশে রপ্তানি হচ্ছে। এর মধ্যে কঠোরভাবে মান নিয়ন্ত্রণ করা দেশ যুক্তরাষ্ট্র, ইউরোপ ও অস্ট্রেলিয়াও রয়েছে। ৫ বার জাতীয় রপ্তানি (স্বর্ণ) পদক পেয়েছে প্রতিষ্ঠানটি।

দেশের একমাত্র প্রতিষ্ঠান হিসেবে বেক্সিমকো ফার্মা সম্মানসূচক এসসিআরআইপি অ্যাওয়ার্ড, সিপিএইচএল ফার্মা অ্যাওয়ার্ড ও গ্লোবাল জেনেরিক্স অ্যান্ড বায়োসিমিলারস অ্যাওয়ার্ড পেয়েছে।

বেক্সিমকো ফার্মা বাংলাদেশের একমাত্র প্রতিষ্ঠান হিসেবে লন্ডন স্টক এক্সচেঞ্জের এআইএম -এ তালিকাভুক্তির মাইলফলক অর্জন করেছে। ৪ হাজার ৫শ’ জনের দক্ষ জনবল এবং নানান ধরণের ৫০০ পণ্যের পোর্টফোলিও নিয়ে জেনেরিক ওষুধ প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান হিসেবে সাফল্যের সাথে এগিয়ে চলছে বেক্সিমকো ফার্মা।

শেয়ার হস্তান্তর প্রক্রিয়া শেষ হলে, সানোফি বাংলাদেশ একটি পৃথক বৈধ প্রতিষ্ঠান (লিগ্যাল এনটিটি) হিসেবেই থাকবে এবং কর্মীরা তাদের এখন পর্যন্ত বিদ্যমান শর্তাবলী অনুযায়ী চাকরিতে বহাল থাকবে।

বেক্সিমকো ফার্মা তাদের বৈজ্ঞানিকভাবে স্বীকৃত বিভিন্ন পণ্যের বর্তমান পোর্টফোলিও, যার মধ্যে রয়েছে বিভিন্ন থেরাপি সংশ্লিষ্ট বিষয়— ডায়াবেটিস, কার্ডিওলজি, অনকোলজি, সিএনএস (সেন্ট্রাল নার্ভাস সিস্টেম), কনজ্যুমার হেলথকেয়ার, ভ্যাক্সিন ও হসপিটাল কেয়ার সমৃদ্ধ করতে নিজেদের সাথে সানোফির পোর্টফোলিও যুক্ত করবে।

শেয়ার করুন !
  • 20
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply