আবারও বাসা-বাড়ি ও ভাড়াটিয়ার তথ্য নেবে পুলিশ

0

সময় এখন ডেস্ক:

অপরাধ দ’মনে ও অপরাধীদের গ্রেপ্তারে আবারও বাসা-বাড়ি ও ভাড়াটিয়ার তথ্য হালনাগাদ করা হবে বলে জানিয়েছেন ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের (ডিএমপি-ডিবি) অতিরিক্ত কমিশনার এ কে এম হাফিজ আক্তার।

মঙ্গলবার (২৬ জানুয়ারি) দুপুরে ডিএমপি মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা জানান।

এ কে এম হাফিজ আক্তার বলেন, ডিএমপি কমিশনার নির্দেশ দিয়েছেন রাজধানীর বাসা-বাড়ির ও ভাড়াটিয়াদের তথ্য হালনাগাদ করার। আমরা খুব দ্রুতই এ হালনাগাদের কাজ শুরু করবো। আমাদের পুলিশ সদস্যরা প্রতিটি বাসা-বাড়িতে গিয়ে তথ্য সংগ্রহ করবেন।

নগরবাসীর নিরাপত্তা নিশ্চিতে প্রত্যেকটি ডিভিশন ও থানায় পুলিশের ফোর্স বাড়ানো হয়েছে। পাশাপাশি বিট পুলিশিং শক্তিশালী করা হয়েছে বলেও জানান তিনি।

তিনি বলেন, সম্প্রতি ঢাকায় রাতের বেলা বিভিন্ন জায়গায় হাইজ্যাকিংয়ের ঘটনা ঘটছে। এসব ছাড়াও বিভিন্ন সম্পত্তি-অর্থনৈতিক অপরাধ নিয়ন্ত্রণে আনতে গত ১৬ জানুয়ারি থেকে সাঁড়াশি অভিযান শুরু হয়েছে।

রাজধানীতে শুধু এই হাইজ্যাকিং-জাতীয় অপরাধ হয় না, বিভিন্ন ধরনের অপরাধ হয়। এ বিষয়ে টহল টিম বাড়ানো হয়েছে। আমাদের প্রতিটি থানায় এখন ২৫ থেকে ৩০ জনকে সাব ইন্সপেক্টর দেওয়া হয়েছে।

পুরান ঢাকার সংসদ সদস্য হাজি সেলিমের ছেলে এরফান সেলিম কর্তৃক এক সামরিক কর্মকর্তাকে প্র’হারের মামলা তদন্তের অগ্রগতি সম্পর্কে জানতে চাইলে হাফিজ আক্তার বলেন, খুব শিগগির বিষয়টি নি’ষ্পত্তি হবে।

অপর এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, চার্জশিট দিচ্ছি নাকি মামলায় অন্য কিছু ঘটছে তা সময় হলে জানতে পারবেন।

‘কাজের মান খারাপ’ করা ঠিকাদারদের তালিকা করা হবে: তাজুল ইসলাম

যেসব ঠিকাদার কাজের গুনগত মান খারাপ ও সঠিক সময়ে কাজ করবে না তাদের কালো তালিকাভুক্তসহ আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী তাজুল ইসলাম।

অপরদিকে, যেসব প্রতিষ্ঠান ভালো কাজ করবে তাদেরও বেশি কাজ দিয়ে প্রশংসিত করা হবে বলেও জানান তিনি।

মঙ্গলবার (২৬ জানুয়ারি) দুপুরে গাজীপুরের রাজেন্দ্রপুরে নির্মাণ দক্ষতা প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন শেষে সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন তাজুল ইসলাম।

মন্ত্রী আরও বলেন, টেকসই নির্মাণ কাজের জন্য প্রকৌশলী ছাড়াও দক্ষ শ্রমিক-রাজমিস্ত্রি গড়ে তুলতে উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে।

এর আগে, গাজীপুর মহানগরের বিভিন্ন প্রকল্প পরিদর্শন শেষে উন্নয়ন কর্মকাণ্ড নিয়ে তথ্যচিত্র উপস্থাপন করা হয়।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন গাজীপুর সিটি মেয়র অ্যাডভোকেট মো. জাহাঙ্গীর আলম, স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মেজবাহ উদ্দিন, প্রধান প্রকৌশলী আব্দুর রশিদ খান, অতিরিক্ত প্রধান প্রকৌশলী মোসলেহ উদ্দিন, পুলিশের উপ-কমিশনার জাকির হাসান, গাজীপুর এলজিইডির নির্বাহী প্রকৌশলী মো.আব্দুল বারেক প্রমুখ।

শেয়ার করুন !
  • 185
  •  
  •  
  • 0
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply