১৫০ কোটি আলোকবর্ষ দূরের বার্তা এসেছে পৃথিবীতে!

0

বিজ্ঞান ও তথ্য প্রযুক্তি ডেস্ক:

দূর মহাকাশ থেকে পুনরাবৃত্ত বেতার তরঙ্গ পাওয়ার কথা নিশ্চিত করেছেন বিজ্ঞানীরা। ইতিহাসে দ্বিতীয়বারের মতো এ ধরনের বেতার তরঙ্গ পেয়েছেন তারা। এবারের সংকেত পাওয়ায় রহস্য ‘আরও গভীর’ হয়েছে। পাশাপাশি, দেড়শ’ কোটি আলোকবর্ষ দূরের কোনো গ্যালাক্সি থেকে কি বা কারা এই তরঙ্গ পাঠাচ্ছে তা খতিয়ে দেখার সম্ভাবনাও দেখা দিয়েছে।

নক্ষত্র বিস্ফোরণ থেকে শুরু করে এলিয়েনের পাঠানো সংকেত অনেক কিছুই হতে পারে এই তরঙ্গ। এগুলো আসলে কোথা থেকে আসছে সে বিষয়ে খুব বেশি তথ্য না থাকায় আপাতত এটি রহস্যই থেকে যাচ্ছে।

সংকেতগুলো মাত্র ১ মিলিসেকেন্ড স্থায়ী ছিলো। কিন্তু এতে যে শক্তি ছিল তা তৈরি করতে সূর্যের ১২ মাস সময় লাগে বলে প্রতিবেদনে জানিয়েছে ইন্ডিপেনডেন্ট।

বেতার তরঙ্গগুলো ৬ বার পুনরাবৃত্ত হয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে, এগুলো একই স্থান থেকে এসেছে। এ যাবত ৬০টির বেশি রেডিও বিস্ফোরণ শনাক্ত করা হয়েছে, যার মধ্যে এর আগে মাত্র একটির পুনরাবৃত্তি ঘটেছিল।

ব্রিটিশ কলাম্বিয়ায় কানাডিয়ান হাইড্রোজেন ইনটেনসিটি ম্যাপিং এক্সপেরিমেন্ট (চাইম)-এ এই বেতার তরঙ্গগুলো আবিষ্কার করা হয়েছে বলে প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে।

চাইম বিজ্ঞানী দলের সদস্য ইউবিসি’র জ্যোতিঃ পদার্থবিজ্ঞানী ইনগ্রিড স্টেয়ার্স বলেন, “এখন পর্যন্ত মাত্র একটি এফারবি (ফাস্ট রেডিও বার্স্ট)-এর পুনরাবৃত্তি হয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে, সেখানে এ ধরনের আরও সংকেত থাকতে পারে। গবেষণার জন্য আরও বেশি পুনরাবৃত্তি ও সূত্র পাওয়া গেলে আমরা হয়তো এই এই কসমিক ধাঁধাঁগুলোর রহস্য উন্মোচন করতে পারবো- এগুলো কোথা থেকে আসছে এবং কী কারণে হচ্ছে।”

দুই সেট পুনরাবৃত্ত ‘রেডিও বার্স্ট’ থাকায় বিজ্ঞানীরা এর থেকে বের করতে পারবেন একবারের ‘বার্স্ট’ থেকে এগুলো কীভাবে আলাদা। এগুলোর উৎপত্তি স্থান নিয়েও আরও বেশি তথ্য পাওয়া যাবে এর থেকে এবং ভবিষ্যতে এ ধরনের আরও সংকেতে নজর রাখা যাবে বলে প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে।

মাত্র ৩ সপ্তাহে প্রায় ১৩টির মতো রেডিও বার্স্ট পেয়েছেন গবেষকরা। এই সংকেতগুলোর ডেটা থেকে বের করা যেতে পারে কোন পরিবেশ থেকে এই বেতার তরঙ্গ আসছে বা রহস্যময় কোনো প্রযুক্তির মাধ্যমে এলিয়েনরা এই সংকেত দিচ্ছে কিনা।

বিজ্ঞানী দলটির সদস্য ম্যাকগিল ইউনিভার্সিটির আরুন নাইডু বলেন, “এই বেতার তরঙ্গের উৎস যাই হোক না কেন, বিষয়টি দারুণ যে এগুলো কী পরিমাণ বিস্তৃত ফ্রিকোয়েন্সি তৈরি করছে।”

১৩টি রেডিও বিস্ফোরণের মধ্যে অন্তত ৭টি রেকর্ড করা হয়েছে ৪০০ মেগাহার্টজ ফ্রিকোয়েন্সিতে। সবচেয়ে কম কতো ফ্রিকোয়েন্সিতে সংকেত পাওয়া গেছে তা এখনও জানা সম্ভব হয়নি। চাইম দলের পক্ষ থেকে বলা হয়, এখানে আরও বেতার তরঙ্গ থাকতে পারে যেগুলো হয়তো অনেক কম ফ্রিকোয়েন্সির জন্য ধরা যাচ্ছে না।

বিডি নিউজ

শেয়ার করুন !
  • 1
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply