‘মেয়েদেরকে স্কুল-কলেজে পড়াবে না’- ১৫ হাজার মুসল্লির ওয়াদা নিলেন শফি (ভিডিও)

0

চট্টগ্রাম ব্যুরো:

কন্যা সন্তানদের স্কুল-কলেজে না দিতে এবং দিলেও সর্বোচ্চ ক্লাস ফোর বা ফাইভ পর্যন্ত পড়ানোর জন্য ওয়াদা নিয়েছেন হেফাজতে ইসলামের আমির শাহ আহমদ শফি।

আজ শুক্রবার জুমার নামাজের পর চট্টগ্রামের আল জামিআতুল আহলিয়া দারুল উলূম মুঈনুল ইসলাম হাটহাজারী মাদ্রাসা প্রাঙ্গণে মাদ্রাসার বার্ষিক মাহফিল ও দস্তারবন্দী সম্মেলনের প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপস্থিত ১৫ হাজারের অধিক মুসলমানদের কাছ থেকে তিনি এমন ওয়াদা নেন।

আহমদ শফি বলেন, ‘আপনাদের মেয়েদের স্কুল-কলেজে দেবেন না। ক্লাস ফোর বা ফাইভ পর্যন্ত পড়াতে পারবেন। আর বেশি যদি পড়ান… পত্র-পত্রিকায় দেখতেছেন আপনারা… মেয়েকে ক্লাস এইট, নাইন, টেন, এমএ, বিএ পর্যন্ত পড়ালে ওই মেয়ে কিছুদিন পর আপনার মেয়ে থাকবে না। তাই আপনারা আমার সাথে ওয়াদা করেন। বেশি পড়ালে আপনার মেয়েকে টানাটানি করে অন্য পুরুষ নিয়ে যাবে। এ ওয়াজটা মনে রাখবেন।’

এ সময় উপস্থিত ধর্মপ্রাণ মুসলমানগণ হাত তুলে ওয়াদা করেন। এছাড়া তিনি পুরুষদের সুন্নত মোতাবেক দাড়ি রাখা, নামাজ পড়া ও মেয়েদের পর্দা করানোর বিষয়ে উপস্থিত সবার কাছ থেকে হাত উঠিয়ে প্রতিশ্রুতি নেন। পরে দোয়া পরিচালনার মাধ্যমে তিনি বক্তব্য শেষ করেন।

সমকাল এর সৌজন্যে ভিডিও:

ইহুদিরা মুসলমানদের ধ্বংস করতে মোবাইল বানিয়েছে: শফি

মুসলমানদের ঈমান আকিদা ধ্বংস করে তাদেরকে দ্বীনের রাস্তা থেকে সরিয়ে শরীয়া বিরোধী কর্মকাণ্ডে লিপ্ত করানোর জন্য ইয়াহুদিরা মোবাইল নামক এক বিধ্বংসী মারণাস্ত্র ছড়িয়ে দিয়েছে। এর চাইতে ক্ষতিকর বস্তু বর্তমান পৃথিবীতে আর নেই। দিন দিন মুসলমানের ছেলে মেয়েরা মোবাইল ব্যবহার করতে করতে আল্লাহ রাসূলের দেখানো পথ থেকে দূরে সরে যাচ্ছে। তাদের ভেতরে জায়গা করে নিচ্ছে অভিশপ্ত শয়তান- এমনটাই মন্তব্য করেছেন হেফাজতে ইসলামের আমির মাওলানা শাহ আহমদ শফি।

কিছুদিন আগে চট্টগ্রামে অপর এক সম্মেলনে তিনি বলেন, ‘এই শয়তানের বাক্স মোবাইল ফোন আমাদের পুরো সমাজ ব্যবস্থাকে শেষ করে দিয়েছে। আপনারা আপনাদের ছেলে মেয়েকে মোবাইল ফোন থেকে দূরে রাখুন।’ সংবাদ সম্মেলনে তিনি মুসলমানদের উদ্দেশ্যে এই আহ্বান জানান।

শেয়ার করুন !
  • 1
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply