জয়কে প্রধানমন্ত্রীর অবৈতনিক উপদেষ্টা পদে পুনঃ নিয়োগ

0

সময় এখন ডেস্ক:

প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টা হিসেবে পুনঃ নিয়োগ পেয়েছেন পুত্র সজীব ওয়াজেদ জয়। এর আগেও তিনি এই দায়িত্ব পালন করেছেন। মঙ্গলবার (১৫ জানুয়ারি) প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের পরিচালক (প্রশাসন) মো. আহসান কিবরিয়া সিদ্দিকি স্বাক্ষরিত এক প্রজ্ঞাপনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

রাষ্ট্রপতির আদেশে মো. আহসান কিবরিয়া সিদ্দিকি স্বাক্ষরিত বিবৃতিতে আরো বলা হয়, তিনি প্রধানমন্ত্রী নির্দেশ ও পরামর্শ অনুযায়ী কাজ করবেন। এবং তার নিয়োগ খণ্ডকালীন ও অবৈতনিক।

১৯৭৫ সালে জাতির পিতা শেখ মুজিবুর রহমানকে সপরিবারে হত্যা করার পর জয় তার মা- বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনার সাথে জার্মানী-লন্ডন হয়ে ভারতে রাজনৈতিক আশ্রয় নেন। তার শৈশব ও কৈশোর কেটেছে ভারতে। নৈনিতালের সেন্ট জোসেফ কলেজ হতে স্নাতক করার পর যুক্তরাষ্ট্রের দ্য ইউনিভার্সিটি অব টেক্সাস এ্যাট আর্লিংটন থেকে কম্পিউটার বিজ্ঞানে স্নাতক ডিগ্রী অর্জন করেন। পরবর্তীতে হার্ভার্ড বিশ্ববিদ্যালয় থেকে লোক-প্রশাসন বিষয়ে স্নাতকোত্তর ডিগ্রী অর্জন করেন।

পুরনো ৫ উপদেষ্টার ওপরেই আস্থা রেখেছেন প্রধানমন্ত্রী

৪র্থ বার দায়িত্ব নিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। মন্ত্রিসভায় প্রচুর রদবদল হয়েছে। তবে তাঁর পুরোনো ৫ উপদেষ্টার ওপর আস্থা রেখে তাদেরকে ফের নিয়োগ দিলেন শেখ হাসিনা। সোমবার (১৪ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় এ সংক্রান্ত প্রজ্ঞাপন জারি করেছে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ।

নিয়োগপ্রাপ্তরা হলেন- এইচ টি ইমাম (রাজনৈতিক উপদেষ্টা), ড. মসিউর রহমান (অর্থনৈতিক উপদেষ্টা), ড. গওহর রিজভী (আন্তর্জাতিক সম্পর্ক বিষয়ক উপদেষ্টা), ড. তৌফিক-ই-এলাহী চৌধুরী (বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ বিষয়ক উপদেষ্টা) এবং মেজর জেনারেল (অব.) তারিক আহমেদ সিদ্দিক (নিরাপত্তা উপদেষ্টা)।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম স্বাক্ষরিত এ সংক্রান্ত আদেশে বলা হয়েছে, প্রধানমন্ত্রী রুলস অব বিজনেস, ১৯৯৬ এর রুল ৩বি(১)-এ প্রদত্ত ক্ষমতাবলে ৭ জানুয়ারি তাদের প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা পদে নিয়োগপূর্বক করে দায়িত্ব অর্পণ করেছেন। উপদেষ্টা পদে অধিষ্ঠিত থাকাকালীন তারা মন্ত্রীর পদমর্যাদা, বেতন-ভাতাদি ও আনুষঙ্গিক সুযোগ-সুবিধা পাবেন।

শেয়ার করুন !
  • 1
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply

error: Content is protected !!