দারিদ্র্য বিমোচনে সুদানকে ৬৫ কোটি টাকা দিলো বাংলাদেশ

0

কূটনৈতিক ডেস্ক:

দারিদ্র্য বিমোচনে সুদানের সংগ্রামকে আরও শক্তিশালী করতে ৬৫ কোটি টাকা দিয়েছে বাংলাদেশ। আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের (আইএমএফ) মাধ্যমে এই টাকা দেওয়া হয়েছে।

বুধবার (১৬ জুন) অর্থমন্ত্রণালয় থেকে পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

আইএমএফ-এর আহ্বানে সাড়া দিয়ে অত্যধিক ঋণগ্রস্ত দরিদ্র রাষ্ট্র এবং ওআইসি সদস্যভুক্ত বন্ধুপ্রতীম দেশ সুদানের ঋণ মওকুফের লক্ষ্যে বাংলাদেশ সরকার ৬৫ কোটি টাকা দিয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সরকার প্রত্যাশা করে ডেবিট রিলিফ হিসেবে বাংলাদেশের এ অর্থায়ন দারিদ্র্য বিমোচনে সুদানের সংগ্রাম আরও শক্তিশালী করবে।

গত বছরও আইএমএফ-এর উদ্যোগের অংশ হিসেবে আফ্রিকান দেশ সোমালিয়ার দারিদ্র্যমুক্তির জন্য বাংলাদেশ সরকার ৮ কোটি টাকার অধিক অর্থ দিয়েছিল।

উল্লেখ্য মুদ্রা বিনিময় চুক্তির আওতায় বাংলাদেশ বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ থেকে কমপক্ষে ২০০ মিলিয়ন ডলার ঋণ দিচ্ছে শ্রীলঙ্কাকে।

বিশ্লেষকরা বলছেন এই প্রক্রিয়াটিতে কোনও রিস্ক দেখছেন না, তবে সতর্ক করেছেন যে কিছু সময় অর্থ ফেরত পাওয়া কঠিন হতে পারে।

বাংলাদেশ ব্যাংকের মুখপাত্র সিরাজুল ইসলাম দেশের সংবাদমাধ্যমগুলোকে বলেছেন, দক্ষিণ এশিয়ার প্রতিবেশী, যাদের বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ হ্রাস পাচ্ছে তাদের সহায়তা করার জন্য নীতিগতভাবে এই সিদ্ধান্তকে অনুমোদন দিয়েছে।

শ্রীলঙ্কার অনুরোধ অনুসারে এই চুক্তির আওতায় বাংলাদেশ শ্রীলঙ্কাকে ২০০ মিলিয়ন থেকে ২৫০ মিলিয়ন ডলার সরবরাহ করবে। লাইবর রেটের সঙ্গে ২ শতাংশ যোগ করে সুদের হার ধরে এই অর্থ শ্রীলঙ্কাকে ৩ মাসের জন্য দেয়া হবে।

বাংলাদেশ ব্যাংক জানিয়েছে, বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভে চাহিদার তুলনায় ঘাটতিতে রয়েছে শ্রীলঙ্কা। এর আগে দুই দেশের সুবর্ণ জয়ন্তী উদযাপনের জন্য মার্চ মাসে শ্রীলঙ্কার প্রধানমন্ত্রী মহিন্দা রাজাপাকসের বাংলাদেশ সফরের সময় তিনি ঋণ প্রাপ্তির প্রত্যাশা করেন।

এই ঋণচুক্তিতে শ্রীলঙ্কার সরকার এবং কেন্দ্রীয় ব্যাংক গ্যারান্টার হবে।

এদিকে এমন ঋণচুক্তির বিষয়ে দেশের অর্থনীতিবিদরা বলছেন কখনও টাকা ফেরত পেতে সমস্যা দেখা দেয় তবুও এই চুক্তিটি বাংলাদেশের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল করবে। এছাড়া বাংলাদেশের ক্রেডিট রেটিং পয়েন্ট অর্জনে সহায়তা করবে বলে জানিয়েছেন তারা।

শেয়ার করুন !
  • 5K
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply

error: Content is protected !!