হ্যাটট্রিক করা সেই ওমর ফারুককে খোঁজা হচ্ছে!

0

সময় এখন ডেস্ক:

একসঙ্গে করোনা ভাইরাসের ৩ ডোজ টিকা নেওয়ার দাবি করা সৌদি প্রবাসী ওমর ফারুক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ে পর্যবেক্ষণে রয়েছেন- এমন খবর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়েছে। যদিও তাকে আদৌ খুঁজে পাওয়া গেছে কি না- এ তথ্য সম্পর্কে নিশ্চিত হওয়া যায়নি এখনও।

তবে একসঙ্গে ৩ ডোজ টিকা নেওয়ার এই খবরকে মিথ্যা ও গুজব বলে দাবি করেছেন বঙ্গবন্ধু মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) উপাচার্য অধ্যাপক ডা. শরফুদ্দিন আহমেদ।

মঙ্গলবার (২৭ জুলাই) রাতে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন তিনি।

বিএসএমএমইউ উপাচার্য বলেন, বিষয়টি আমার নজরে এসেছে। আমি সংশ্লিষ্টদের ডেকেছিলাম। এক ব্যক্তি ৩ ডোজ টিকা নিতে পারেন না, এটা সম্ভব না। কারণ নিবন্ধন দেখেই টিকা দেওয়া হয়। এমন ঘটনা বানোয়াট।

ওই ব্যক্তিকে নিয়ে আসার জন্য বলেছি। ৩ ডোজ টিকা নেওয়া ব্যক্তিকে খুঁজে বের করা হবে। লোকটির মাথা খারাপ হতে পারে। তাকে খুঁজে বের করা হবে। সুস্থ মানুষের পক্ষে এমন ঘটনা ঘটানো সম্ভব না।

এদিকে সেই ওমর ফারুকের সম্পর্কে অনুসন্ধান চালাচ্ছে সরকারের একটি সংস্থা- এমন একটি ইঙ্গিত পাওয়া গেছে। তিনি কারো এজেন্ডা বাস্তবায়নে এমন বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছেন কি না, সেটিও খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

উল্লেখ্য, টিকা গ্রহণের জন্য টিকার কার্ড অবশ্যই সাথে নিয়ে যেতে হয়। সেই কার্ডের তথ্য রেজিস্টার ওঠানোর পর দ্বিতীয় ডোজের তারিখ লিখে, সিল এবং স্বাক্ষর করেন স্বাস্থ্যকর্মীরা। এরপরই টিকা নেয়ার সুযোগ মেলে। একবার টিকা নেয়ার পর সেই কার্ড ব্যবহার করে দ্বিতীয়বার টিকা গ্রহণের কোনো সুযোগ নেই।

তাই কেউ তিনবার টিকা নিয়েছেন একই দিনে একই কেন্দ্রে এবং কার্ড প্রদর্শন ছাড়াই- এমন তথ্যের স্বভাবতই কোনো ভিত্তি নেই।

মূলতঃ বেসরকারি টিভি চ্যানেল এটিএন বাংলার একটি প্রতিবেদনে এমন বিভ্রান্তিকর বক্তব্য দিতে দেখা যায় ওমর ফারুককে। যা নিয়ে তোলপাড় সৃষ্টি হয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে।

অনেকেই এ নিয়ে সরকারের অব্যবস্থাপনাকে দায়ী করেন, টিকা কেন্দ্রগুলোতে দায়িত্বরতদের অবহেলাসহ নানান অভিযোগ ওঠে।

তবে যারা টিকা গ্রহণ করেছেন, তারা জানেন, টিকার কার্ড যাচাই করা ছাড়া টিকা গ্রহণের কোনো সুযোগ নেই। তাই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া ভিডিওটির পেছনে সরকারবিরোধী গুজব রটানাকারী পক্ষের হাত রয়েছে বলেও মন্তব্য করেন কেউ কেউ।

শেয়ার করুন !
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply

error: Content is protected !!