জামায়াত-প্রেম না ভাঙলে বিএনপি আর জিতবে না: নাসিম

0

সময় এখন ডেস্ক:

আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য মোহাম্মদ নাসিম বলেছেন, একাত্তরের পরাজিত ও স্বাধীনতাবিরোধী শক্তি জামায়াতের সঙ্গ ত্যাগ করতে পারেনি বিএনপি। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে তাদের এতবড় পরাজয়ের পেছনেই রয়েছে এই প্রেম। জামায়াতের সঙ্গে যতদিন বিএনপির সখ্যতা থাকবে, ততদিন জনগণের ভোটে তারা ক্ষমতায় আসতে পারবে না।

শনিবার জাতীয় প্রেস ক্লাবের আবদুস সালাম হলে জাগো বাংলা ফাউন্ডেশন আয়োজিত ‘সংরক্ষিত নারী আসন: সংসদীয় গণতন্ত্রে নারীর ভূমিকা’ শীর্ষক আলোচনা সভায় মোহাম্মদ নাসিম এসব কথা বলেন।

বিএনপি থেকে নির্বাচিত সংসদ সদস্যদের শপথ নিয়ে জাতীয় সংসদ অধিবেশনে অংশগ্রহণের আহবান জানিয়ে তিনি বলেন, বিএনপি হয়তো অভিমান করে সংসদে আসছে না। তবে রাজনীতিতে অভিমান করে ফায়দা লোটা যায় না। তাই রাগ-অভিমান করে বসে না থেকে সংসদে আসুন। সংসদে ভূমিকা রাখার মাধ্যমে দলকে শক্তিশালী করুন। ভুল-ত্রুটি ধরিয়ে দিয়ে সরকারকে নাজেহাল করুন।

মোহাম্মদ নাসিম বলেন, আওয়ামী লীগ বিরোধী দলে থাকতে সবসময় সংসদে কার্যকরী ভূমিকা রেখেছিল। রাজনীতি অনেক কঠিন বিষয়। যেকোনো অবস্থায় রাজনীতির জন্য লড়াই করে যেতে হবে। সংসদে সরকারি ও বিরোধী দল সবারই জনগণের কথা বলা উচিত। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও বলেছেন, এ সংসদ হবে প্রাণবন্ত। সেখানে বিরোধীদের বক্তব্যে বাধা দেওয়া হবে না।

নারীর ক্ষমতায়ন প্রসঙ্গে তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কারণেই নারীদের ক্ষমতায়ন হয়েছে। বাংলাদেশের নারীর ক্ষমতায়ন বিশ্বের কাছে উদাহরণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। জাতীয় সংসদে ৫০টি সংরক্ষিত নারী আসন রয়েছে। প্রধানমন্ত্রী থেকে স্পিকারসহ বিভিন্ন পর্যায়ে নারীরা দক্ষতার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করে আসছেন।

১৪ দলের মুখপাত্র নাসিম বলেন, ১৪ দল সংসদে ভূমিকা রাখবে। সরকারের ভুল-ত্রুটি ধরিয়ে দেবে। রাজনীতিতে সুখের সময় অনেকেই জড় হয়। কিন্তু দুর্দিনে তাদের পাশে পাওয়া যায় না। ওয়ান ইলেভেন পরবর্তী সময় অনেকে আপোষ করে গা বাঁচানোর চেষ্টা করেছিল, কিন্তু আমরা সেটি করিনি।

সংগঠনের উপদেষ্টা ও ওয়ার্ল্ড ইউনিভার্সিটির উপাচার্য অধ্যাপক ড. আবদুল মান্নান চৌধুরীর সভাপতিত্বে সভায় আরো বক্তব্য রাখেন- নোয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. ওয়াহিদুজ্জামান খান চান, নিরাপত্তা বিশ্নেষক মেজর জেনারেল (অব.) এ কে মোহাম্মদ আলী সিকদার, এনডিসিআরসি’র চেয়ারম্যান এম এইচ খান, সম্প্রীতি বাংলাদেশ-এর আহ্বায়ক পীযূষ বন্দোপাধ্যায়, যুব মহিলা লীগের সাধারণ সম্পাদক অপু উকিল, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহে আলম মুরাদ, বঙ্গবন্ধু সাংস্কৃতিক জোটের সাধারণ সম্পাদক অরুন সরকার রানা প্রমুখ।

শেয়ার করুন !
  • 1
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply