কে হচ্ছেন বিএনপির পরবর্তী মহাসচিব?

0

স্পেশাল করেসপন্ডেন্স:

৩ দিন করে দুই কিস্তিতে মোট ৬ দিন বিএনপি তাদের সাংগঠনিক অবস্থা এবং দেশের সার্বিক রাজনৈতিক পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা করল। দুই কিস্তিতে বিভক্ত এই ধারাবাহিক বৈঠকে বিএনপির নেতৃবৃন্দ খোলামেলা আলোচনা করেছেন। প্রতিটি বৈঠকের ব্যাপ্তি ছিল ছয় থেকে ৮ ঘণ্টা পর্যন্ত।

এই ব্যাপক আলোচনায় তৃণমূলের নেতৃবৃন্দকে সুযোগ দেয়া হয়েছে কথা বলার জন্য। আর তাতে দলের আন্দোলন সক্ষমতা নিয়ে যেমন হতাশার কথা এসেছে, তেমনি ভবিষ্যতের করণীয় নিয়েও অনেকে আলোচনা করেছেন। দলের নেতৃত্ব পরিবর্তনের প্রসঙ্গটি এসেছে বারবার।

বিশেষ করে দলের গুরুত্বপূর্ণ নেতারা, যারা বয়সের ভারে ন্যুব্জ, যারা অসুস্থ এবং নেতৃত্ব দিতে অক্ষম তাদের পরিবর্তনের কথা বেশ জোরেশোরেই এসেছে বিএনপির এই আলোচনায়। শেষ ৩ দিন অর্থাৎ, গত মঙ্গল, বুধ এবং বৃহস্পতিবারের আলোচনায় একজন যোগ্য মহাসচিবের প্রসঙ্গ বারবার এসেছে যিনি দলকে নেতৃত্ব দেবেন অত্যন্ত সাহসের সঙ্গে।

এ প্রসঙ্গে উদাহরণ হিসেবে বিএনপির প্রয়াত নেতা খন্দকার দেলোয়ার হোসেনের নাম যেমন এসেছে তেমনি এসেছে কেএম ওবায়দুর রহমানেরও নাম। এমনকি অনেকে ব্যারিস্টার আব্দুস সালাম তালুকদারের কথাও স্মরণ করেছেন। এমন পরিস্থিতিতে বিএনপির মহাসচিব পদে পরিবর্তনের কথাও উচ্চারিত হয়েছে আকারে ইঙ্গিতে।

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর দীর্ঘদিন ধরে দায়িত্ব পালন করছেন। তিনি একজন সজ্জন ভদ্রলোক হিসেবে পরিচিত হলেও দলে তার অবস্থান খুবই নড়বড়ে। একদিকে সিনিয়র নেতারা তাকে গ্রহণ করতে পারেনি অন্যদিকে তৃণমূলের মধ্যে তিনি আস্থাশীল নেতা নন।

পরিস্থিতি বিবেচনায় বিএনপিকে যদি নতুন করে আন্দোলন শুরু করতে হয়, তাহলে একজন সার্বক্ষণিক সুস্থ ও সাহসী মহাসচিব লাগবে বলে নেতারা মনে করছেন। তাদের মতে, ২০২৩ সালের মধ্যে যদি বিএনপিকে একটি বড় ধরনের আন্দোলন করতে হয় তাহলে নতুন মহাসচিবের কোনো বিকল্প নেই।

দলের মহাসচিব পরিবর্তন নিয়ে গত ২ বছরের বেশি সময় ধরে আলোচনা চলছে। বিশেষ করে ২০১৮ সালের নির্বাচনের পর মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর নিজেই মহাসচিবের পদ ছেড়ে দিতে চেয়েছিলেন বলে একাধিক দায়িত্বশীল সূত্র নিশ্চিত করেছে।

এক্ষেত্রে বেশ কিছু সম্ভাব্য নামও উচ্চারিত হয়েছিল। কিন্তু শেষ পর্যন্ত ভারসাম্য রক্ষার জন্যই মহাসচিব পদে পরিবর্তন করা হয়নি। মির্জা ফখরুলকে মন্দের ভালো হিসেবে এই পদে রাখা হয়েছে।

তবে কেন্দ্রীয় নেতারা মনে করেন, বিএনপি যদি এখন বড় ধরনের কোনো আন্দোলন গড়ে তুলতে চায় তাহলে মহাসচিব পরিবর্তনের কোনো বিকল্প নেই। মহাসচিব কে হতে পারেন, এ নিয়ে বিএনপিতে নানামুখী আলোচনা আছে। আর সেই আলোচনার দৌড়ে সবচেয়ে এগিয়ে আছেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

রুহুল কবির রিজভীর গ্রহণযোগ্যতা তৃণমূল পর্যন্ত বিস্তৃত, বিএনপির মধ্যে তিনি এখনও সবচেয়ে জনপ্রিয় নেতা। দলের জন্য তার ত্যাগের সীমা পরিসীমা নাই। কিন্তু সমস্যা হচ্ছে রিজভীও অসুস্থ। তিনি কয়েক দফা হাসপাতালে ছিলেন। মানসিকভাবে দৃঢ় থাকলেও বিএনপির মতো একটি বড় দলের মহাসচিব হওয়ার মতো কতটা ফিট তিনি, সে নিয়ে বিএনপির মধ্যেও প্রশ্ন রয়েছে।

এছাড়াও বিএনপির মহাসচিব পদে অন্যতম আলোচিত নাম মির্জা আব্বাস। কিন্তু তিনিও শারীরিকভাবে সুস্থ নন।। তাছাড়া দেশের একেবারে প্রত্যন্ত অঞ্চলে, তৃণমূল পর্যায়ে তার গ্রহণযোগ্যতা অনেকটাই কম। বদমেজাজি হিসেবেও দলে তার কুখ্যাতি রয়েছে।

গয়েশ্বর চন্দ্র রায়কে নিয়েও বিএনপিতে বিভিন্ন আলোচনা হয়। বিএনপিতে তার জনপ্রিয়তা মোটামুটি। কিন্তু তিনি সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের হওয়ায় বিএনপির মতো একটি সাম্প্রদায়িক এবং ইসলাম-পছন্দ দলের মহাসচিব হওয়ার ক্ষেত্রে তিনি কখনই প্রথম পছন্দ নন। তাছাড়া বিএনপির শরিক অপর ধর্মীয় উগ্র রাজনৈতিক দলগুলোরও আপত্তি রয়েছে তার ব্যাপারে।

আমীর খসরু মাহমুদ চৌধুরী বিএনপিতে অত্যন্ত গ্রহণযোগ্য ব্যক্তি। আর্থিকভাবে সচ্ছল, জনপ্রিয়, তৃণমূলের কাছে গ্রহণযোগ্য, শিক্ষিত এবং ঠাণ্ডা মাথার মানুষ হিসেবে নানা ভাবেই তিনি বিএনপির দুঃসময়ের একজন কাণ্ডারী। আওয়ামী লীগসহ অপর রাজনৈতিক দলগুলোর কাছেও আমীর খসরু সজ্জন হিসেবে পরিচিত। মহাসচিব পদে তিনি অনেকের চাইতেও বেশি যোগ্য বলে বিবেচিত হতে পারেন।

এছাড়াও বিএনপিতে আরও কিছু নেতা আছেন মহাসচিব হিসেবে যাদের নাম আসতে পারে। তবে সদ্য সমাপ্ত বৈঠকের পর বিএনপি আসলে সংগঠন গোছানোর কৌশল কীভাবে নিবে, সেটিই দেখার বিষয়। তার ওপরেই নির্ভর করছে মহাসচিব পদের পরিবর্তনের বিষয়টি। বাংলাইনসাইডার।

শেয়ার করুন !
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply

error: Content is protected !!