বিতর্কিতদের যারা আওয়ামী লীগে ঢুকিয়েছে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা: নানক

0

সময় এখন ডেস্ক:

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য জাহাঙ্গীর কবির নানক বলেছেন, বাংলাদেশ একটি শান্তির এবং সম্প্রীতির দেশ। বাংলাদেশে বেশ কিছুদিন যাবত বিএনপি-জামায়াত তর্জন-গর্জন দিচ্ছিল, ঢাকা দখলের কথা বলেছিল এবং আন্দোলন-হুমকির কথা বলছিল। অর্থাৎ দেশের স্থিতিশীলতা নষ্ট করার জন্য তাদের যে অভিপ্রায় ছিল, সেই অভিপ্রায় থেকে তারা এই বাঙ্গালীর একটি ধর্মীয় উৎসব দুর্গাপূজাকে ব্যবহার করেছে।

সম্প্রতি কুমিল্লায় সাম্প্রদায়িক সহিংসতার ঘটনা, নাসিরনগরে মন্দিরে হামলায় জড়িত আসামিদের ইউপি নির্বাচনে মনোনয়নসহ সাম্প্রতিক বিষয় নিয়ে একান্ত আলাপচারিতায় এসব কথা বলেন জাহাঙ্গীর কবির নানক।

জাহাঙ্গীর কবির নানক বলেছেন, পবিত্র কোরান শরিফ একটি মূর্তির পাদদেশে রাখার কোনো যৌক্তিক কারণ থাকতে পারে না। উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে এটি রাখা হয়েছে। যাকে কেন্দ্র করে কুমিল্লা থেকে শুরু করে বাংলাদেশের কয়েকটি এলাকায় তারা হিন্দু সমাজের ওপর হামলা করলো, মূর্তি ভাঙচুর করলো।

এটি একটি সুগভীর উগ্র, ধর্মীয় উগ্রবাদী, মৌলবাদীদের ষড়যন্ত্র। দেশকে অচল করার প্রচেষ্টা। দেশের অসাম্প্রদায়িক চেতনার সাধারণ মানুষ এর নিন্দা ও ঘৃণা জানায়, প্রতিবাদ করে। এর সঙ্গে জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক বিচার করা হবে।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগরে মন্দিরে হামলার ঘটনায় অভিযুক্তদেরকে ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামী লীগের পক্ষে মনোনীত করা হয়। এ ঘটনা নিয়ে গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশের পর মনোনয়ন বাতিল করা হয়।

এ প্রসঙ্গে নানক বলেন, এটি অবশ্যই শঙ্কার বিষয়। তবে স্পষ্ট কথা হলো, মনোনয়নের ব্যাপারে কতগুলি স্তর পার হতে হয়। এরপর চূড়ান্ত মনোনয়ন দেয় স্থানীয় সরকারের মনোনয়ন বোর্ড। কাজেই এদেরকে যারা চিহ্নিত করেনি, অথবা এদের পরিচয় যারা গোপন রেখেছে, যে স্তরে বা সংগঠনের যে পর্যায়ে এটি হাইড করেছে, তাদের বিরুদ্ধে সাংগঠনিকভাবে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা উচিৎ।

তিনি আরও বলেন, গণমাধ্যমে আসা সংবাদে এটাই প্রমাণ করে যে, এই কালপ্রিটরা দলে ঢুকে পড়েছে। শুধু তাই নয়, এরা বিভিন্ন নেতার কাঁধে সওয়ার হয়েছে। কাজেই যে নেতার কাঁধে তারা সওয়ার হয়েছে, সেই নেতাকেই ঘাড় ধরে বের করে দেয়া উচিৎ দল থেকে।

অবশ্যই তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়ার পাশাপাশি দৃষ্টান্তমূলক ব্যবস্থা নেয়া উচিৎ যাতে আর কখনো কেউ এই অপকর্ম না করে। দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি হওয়া উচিৎ। বাংলাইনসাইডার।

শেয়ার করুন !
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply

error: Content is protected !!