অমার্জনীয় ভুলের জন্য নিষিদ্ধ আর্জেন্টিনা-ব্রাজিল ম্যাচের রেফারি

0

স্পোর্টস ডেস্ক:

প্রতিপক্ষ খেলোয়াড়ের কনুইয়ের আঘাতে মুখ থেকে ঝরল রক্ত। কিন্তু ভিএআর সেটা দিল না ফাউল! ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা ম্যাচে রেফারিদের এমন ‘অমার্জনীয় ভুল’ মেনে নিতে পারেনি কনমেবল।

বিশ্বজুড়ে ক্রীড়ামোদিদের ব্যাপক সমালোচনার পর দক্ষিণ আমেরিকার ফুটবল সংস্থা নিষিদ্ধ করেছে ওই ম্যাচের দুই রেফারিকে।

আর্জেন্টিনার সান হুয়ানে বাংলাদেশ সময় বুধবার ভোরে হওয়া লাতিন আমেরিকার দুই পরাশক্তির মহারণে ঘটে এমন কাণ্ড। ৪২টি ফাউলের ম্যাচ শেষ পর্যন্ত গোলশূন্য ড্র হয়।

প্রথমার্ধের শেষের দিকে আর্জেন্টিনার ডি-বক্সে ডিফেন্ডার নিকোলাস ওতামেন্দির কনুইয়ের আঘাতে রাফিনিয়ার মুখ দিয়ে রক্ত ঝরতে দেখা যায়। ব্রাজিলের পক্ষ থেকে পেনাল্টির জোরালো আবেদন উঠলেও ভিএআর সেটা নাকচ করে দেয়। কিন্তু কনমেবল বলছে, ওতামেন্দির এভাবে হাতে ব্যবহার ছিল ‘হিংস্র আচরণ।’

এমনিতে চুপচাপ স্বভাবের হলেও এই ম্যাচের পর রেফারি ও ভিএআরের বেশ কিছু সিদ্ধান্ত নিয়ে ক্ষুদ্ধ প্রতিক্রিয়া জানান কোচ তিতে। সিদ্ধান্তগুলো ব্রাজিল কোচের কাছে ছিল অকল্পনীয়। তার মতে, রাফিনিয়াকে কনুই দিয়ে ওতামেন্দির আঘাত করা ভিএআরে না দেখা অসম্ভব এবং অকল্পনীয়।

সংবাদ সম্মেলনে কোচ তিতে ঝাঁজালো কণ্ঠে বলেন, আন্দ্রেস কুনিয়া একজন দারুণ রেফারি; তার টেকনিক্যাল গুণ, খেলা বোঝার ক্ষমতা খুব ভালো। কিন্তু ম্যাচ পরিচালনা করতে হলে রেফারিদের একটা ভালো টিমওয়ার্ক চাই। ওই সিদ্ধান্তটা খেলার ফলাফলে প্রভাব ফেলেছে।

তিতে আরও বলেন, ভিএআর ব্যবহারের পরেও ফাউলের দৃশ্যটা না দেখা সত্যিই অকল্পনীয়। এ শব্দটা আমি ব্যবহার করতে চাইনি। তবে আমি একজন শিক্ষিত মানুষ, তাই এটা করলাম।

রেফারিদের ম্যাচের পারফরম্যান্স পর্যালোচনা করে বৃহস্পতিবার নিজেদের সিদ্ধান্ত জানায় কনমেবল।

অভিভাবক সংস্থাটি জানায়, প্রধান রেফারি আন্দ্রেস কুইয়া ও ভিএআর রেফারি এস্তেবান ভেগার পারফরম্যান্স পর্যবেক্ষণ করা হয়েছে এবং সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে যে, তারা গুরুতর ও সুস্পষ্ট ভুল করেছেন।

দুই রেফারিকে ‘অনির্দিষ্ট সময়ের’ জন্য নিষিদ্ধ করার কথা জানিয়েছে কনমবল।

লাতিন আমেরিকা থেকে কাতার বিশ্বকাপ নিশ্চিত করেছে এই দুই দল। ১৩ ম্যাচে ১১ জয় ও দুই ড্রয়ে ব্রাজিলের পয়েন্ট ৩৫। সমান ম্যাচে ২৯ পয়েন্ট নিয়ে দুইয়ে আছে আর্জেন্টিনা।

শেয়ার করুন !
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply

error: Content is protected !!