প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ দিলে জাইমার শিষ্টাচারের প্রশংসা, নোংরামি করলে চুপ সুশীল সমাজ!

0

বিশেষ প্রতিবেদন:

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে বিএনপির সাইবার টিম থেকে পরিচালিত হয় জিয়াউর রহমান, খালেদা জিয়া, তারেক রহমান, জাইমা রহমান, বিএনপি, যুবদল, ছাত্রদল, স্বেচ্ছাসেবক দল, মহিলা দলসহ পরিবারের সদস্য ও দলের কেন্দ্রীয় নেতাদের নামে শত শত পেজ এবং গোপন ও প্রকাশ্য ফেসবুক গ্রুপ।

এসব পেজ ও গ্রুপ থেকে প্রতিনিয়ত প্রচারিত হচ্ছে দেশ ও সরকার বিরোধী হাজার হাজার গুজব অপপ্রচার সমৃদ্ধ পোস্ট, পোস্টার, ভিডিওসহ নানারকম কন্টেন্ট। যা অর্থের বিনিময়ে বুস্ট করে ছড়িয়ে দেয়া হচ্ছে বিভিন্ন কমিউনিটিতে। বিভ্রান্ত হচ্ছেন অনেকেই, সমাজে ছড়িয়ে পড়ছে বিশৃঙ্খলা, মদদ দেওয়া হচ্ছে নাশকতাকারীদেরকে।

বিএনপির পেজগুলোর মধ্যে জাইমা রহমানের নামে চালানো পেজ এবং গ্রুপগুলো সবচেয়ে বেশি জনপ্রিয়। জাইমা রহমান অনেক সময় এসব পেজ বা গ্রুপে লাইভে কথাবার্তা বলেন, দেশের রাজনীতির বিভিন্ন ইস্যুতে নিজস্ব মতামতও দেন। এসব পেজের লাইক এবং ফলোয়ার সংখ্যা ৫/৭ লাখের কম নয়।

সম্প্রতি ডা. মুরাদ বিএনপির পলাতক নেতা তারেক রহমানের মেয়ে জাইমা রহমানকে নিয়ে অশোভন মন্তব্য করেন। যার প্রেক্ষিতে দল মত নির্বিশেষে দেশের সচেতন মানুষ প্রতিবাদ জানান। বিক্ষুব্ধ হন সুশীল সমাজ। এমনকি আওয়ামী লীগের নারী নেত্রীরাও ডা. মুরাদের বিপক্ষে অবস্থান নেন রাজনৈতিক প্রতিপক্ষের কথা বিবেচনায় না এনে।

এমন একটা বিষয়ে দেশের সচেতন মহলকে এক কাতারে দাঁড়াতে দেখাটাও বিরল ব্যাপার। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাও বিষয়টিকে অত্যন্ত গুরুত্বের সাথে নিয়েছেন। তাঁর নির্দেশে পদত্যাগ করতে বাধ্য হন ডা. মুরাদ। এমন কঠোর অবস্থানে দেশবাসীর পাশাপাশি বিএনপির নেতৃবৃন্দও সন্তোষ প্রকাশ করেন। সাধুবাদ জানান দলের নেতা-নেত্রীরা, সাধারণ কর্মী সমর্থকরাও তাদের সাথে তাল মেলান।

এমনকি জাইমা রহমানের নামে পরিচালিত পেজ থেকে খোদ জাইমা রহমানও প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানান নারীদের প্রতি এমন সেনসিটিভ বিষয়ে শক্ত অবস্থান নেওয়ার কারণে। জাইমা রহমান দল-মতের পার্থক্য ডিঙিয়ে প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ দিয়েছেন, বিষয়টা দেশের অনেক গণমাধ্যম হাইলাইট করে। সুশীল সমাজ ব্যাপক প্রশংসায় ভাসায় পলাতক বিএনপি নেতার কন্যাকে। রাজনৈতিক শিষ্টাচার বলে কেউ কেউ একে বাহ্‌বা দিয়েছেন।

অথচ এই জাইমা রহমানের পেজগুলোই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে নিয়ে অত্যন্ত জঘন্য এবং নোংরা বক্তব্য, পোস্ট, কার্টুন, ক্যারিকেচার, ভিডিওতে সয়লাব। যতই স্ক্রল করা যায়, দেখা যাবে প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে কুৎসিত পোস্ট, মন্তব্য; তাঁকে কখনও নিশি রাইতের প্রধানমন্ত্রী, কখনও চোর, কখনও চোরের মা- ইত্যাদি বিবিধ সম্বোধন করা হয়েছে।

কখনও তাঁর মন্ত্রীসভার মন্ত্রীদেরকে নিয়ে নোংরামি, কখনও প্রধানমন্ত্রী ও সরকারের বিভিন্ন সিদ্ধান্ত বা কর্মপরিকল্পনার বিপরীতে জঘন্য মিথ্যাচার ও গুজব ছড়ানো হয়েছে। আক্ষেপের ব্যাপার হলো, প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ দেয়ার পরদিনই আবার তাকে নিয়ে নোংরামি পূর্বের মত শুরু হলো পেজে।

যে সময় আমরা দেশে সুশীলতা, শিষ্টাচারের কথা বলছি, যখন দেশে ডা. মুরাদের মত বক্তব্যগুলোর বিরুদ্ধে দাঁড়াচ্ছি, অশালীনতা পরিহার করে সত্যিকারের রাজনৈতিক পরিবেশের দাবি তুলছি, ঠিক সে সময় আমাদের চারপাশে সুশীলদের মনমানসিকতা নিয়ে শঙ্কাও জাগছে।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে নিয়ে বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব মোয়াজ্জেম হোসেন আলালের জঘন্য নোংরা ভাষার বক্তব্য, ডা. মুরাদকে প্রকাশ্যে রাস্তায় ফেলে হত্যার হুমকি দিলেন ঢাকার মেয়র প্রার্থী ইশরাক হোসেন, জাইমা রহমানদের নোংরামির যে জয় জয়কার দেখা যাচ্ছে, সেসব নিয়ে সুশীল সমাজ পুরোপুরি নিশ্চুপ।

সাধারণ মানুষের ধারণা, বিএনপি নেতৃবৃন্দ বলেই সুশীল সমাজ চুপ। ভিক্টিম আওয়ামী লীগ বলেই কেউ তেমন সাড়াশব্দ করছে না। কিন্তু বিপরীত চিত্র দেখা গেছে ডা. মুরাদের ক্ষেত্রে, এখানে ভিক্টিম বিএনপি বলেই একটা শ্রেণির মানুষ সোচ্চার। এটা যতটা না শিষ্টাচারের জন্য, তারচেয়ে বেশি হলো রাজনৈতিক ইস্যু।

নইলে ডা. মুরাদের ক্ষেত্রে যেখানে নারীর প্রতি অশালীন আচরণের বিরুদ্ধে সোচ্চার হয়েছিল সুশীল সমাজ, কয়েকজন নারী নেত্রী তো রীতিমত কয়েকটি পত্রিকায় জ্বালাময়ী বক্তৃতা বিবৃতিও দিয়ে দিয়েছেন। কিন্তু বিএনপি নেতা আলাল যখন প্রধানমন্ত্রী তথা একজন নারীকে নিয়ে যে কুৎসিত মন্তব্য করেছেন, জাইমা রহমানের পেজ থেকে নোংরা বক্তব্য দেওয়া হচ্ছে, সেসব নিয়ে প্রতিবাদ না হওয়ার অর্থ একটাই- সুশীলরা একপেশে আচরণই করছেন, যা রাজনৈতিক দূরভিসন্ধিমূলক।

শেয়ার করুন !
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply

error: Content is protected !!