কোচ নিয়ে বিসিবির কাণ্ড, বোমা ফাটালেন মাশরাফি

0

স্পোর্টস ডেস্ক:

মাশরাফি বাংলাদেশের ক্রিকেটে এক অবিসংবাদিত নেতার নাম। যার নেই কোনো তুলনা। মাঠ এবং মাঠের বাইরে কিংবা ড্রেসিংরুমে তার সঙ্গ পেতে মরিয়া হয়ে থাকেন সিনিয়র থেকে জুনিয়র, সব ক্রিকেটাররা। টাইগার ক্রিকেটের এই মহীরুহ দীর্ঘদিন নেই জাতীয় দলের সঙ্গে। মান অভিমানের এক অজানা খেলা চলছে বিসিবি আর ম্যাশের।

কিন্তু এরপরও ক্রিকেটারদের কাছে পরম আরাধ্য মাশরাফির কোনো একটা ছোট্ট টিপস। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের আগে যা দেখা গিয়েছিল তাসকিনের মধ্যে। সাবেক সতীর্থদের হতাশ করেন না ম্যাশও। সময় পেলেই ছুটে আসেন মিরপুরে, হাতে কলমেই দেখিয়ে দেন নানা কারিকুরি।

এদিকে দেশের ক্রিকেটের আলোচিত নানা বিষয় নিয়ে কথা বললেন ম্যাশ। তিনি বলেন, জাতীয় দল পরীক্ষা-নিরীক্ষার জায়গা নয়। অথচ বাংলাদেশে সেটাই নির্দ্বিধায় করে যান বিদেশি কোচরা। আর এর ব্যাখ্যায় গৎবাঁধা উত্তর দেন বিসিবি কর্তারা। ভিনদেশি কোচদের একচ্ছত্র আধিপত্য বিস্তারের সুযোগ করে দেয় খোদ ক্রিকেট বোর্ডই।

কোচিং প্যানেল ব্যবস্থাপনায় বিসিবির কার্যক্রমে ক্ষুব্ধ সাবেক অধিনায়ক মাশরাফি বিন মোর্ত্তজা।

নড়াইল এক্সপ্রেস বলেন, বিদেশি কোচদের যদি নানা রকমের চাওয়া পাওয়া থাকতে পারে, তাহলে আমাদের কেন তাদের কাছে চাওয়া পাওয়া থাকবে না। কিন্তু সবচেয়ে অবাক করা ব্যাপার হচ্ছে, নিয়োগ দেওয়া কোচকে কিছুই বলতে পারে না বিসিবি। বিদেশি কোচের যাচ্ছেতাই সিদ্ধান্ত যেন মুখ বুঝে সহ্য করছে তারা।

ম্যাশ বলেন, অন্য দেশের কোচরা খেলোয়াড়দের সম্পর্কে স্বচ্ছ ধারণা নিয়েই কোচিং শুরু করে। কিন্তু আমাদের এখানে সেটা কতটুকু হচ্ছে। মুমিনুল-রিয়াদরা দুই ম্যাচ খারাপ খেললেই তাদের সম্পর্কে সিদ্ধান্ত নিয়ে নিচ্ছে, কিন্তু সেটা কি ঠিক হচ্ছে? তাদের তো উচিত আগে খেলোয়াড়দের সম্পর্কে জানা। হুট করে এসেই অস্ট্রেলিয়ার সংস্কৃতি এখানে চালু করে দিলেই তো হবে না।

বাংলাদেশের ক্রিকেট সংস্কৃতি আর প্রেক্ষাপট না বুঝে নেওয়া সিদ্ধান্ত তো ভালো ফল আনছে না একেবারেই। নানা রকম উদ্ভট তথ্যে দিনকে দিন ড্রেসিংরুমের পরিবেশ আরও খারাপ হচ্ছে, যা নিয়ে পুরো হতাশ সাবেক অধিনায়ক।

মাশরাফি বলেন, জাতীয় দলকে এক্সপেরিমেন্টের জায়গা বানানো আত্মঘাতী সিদ্ধান্ত ছাড়া আর কিছুই না। পৃথিবীতে কোথাও এমনটা আপনি দেখতে পারবেন না। কিন্তু আমাদের সেটিই হচ্ছে। আমরা টেস্টের মতো ফরম্যাটে এক্সপেরিমেন্ট চালাই। এখানেই আমরা অন্যদের থেকে ২০-২৫ বছর পিছিয়ে যাচ্ছি।

শেয়ার করুন !
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply

error: Content is protected !!