গুলি করে পালাচ্ছিল সন্ত্রাসী, দৌড়ে আটক করলেন নারী সার্জেন্ট

0

খুলনা প্রতিনিধি:

নিজের জীবনের ঝুঁকি নিয়ে দৌড়ে অস্ত্র, গুলি ও বোমাসহ কালাচাঁন ওরফে সবুজ (৩৫) নামে এক সন্ত্রাসীকে আটক করে প্রশংসায় ভাসছেন খুলনা মেট্রোপলিটন পুলিশের নারী সার্জেন্ট রেক্সোনা।

রোববার (১৬ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় নগরীর সরকারি মহিলা কলেজের সামনে (বয়রা গার্লস কলেজ) সাইদুর রহমান শাওন নামে এক যুবককে লক্ষ্য করে মোটরসাইকেল থেকে গুলি ছোড়ে সন্ত্রাসীরা।

এ সময় সেখানে দুই কনস্টেবলসহ কর্তব্যরত পুলিশ সার্জেন্ট রেক্সোনা ছিলেন। এ ঘটনা ঘটার সঙ্গে সঙ্গ নিজের জীবনের ঝুঁকি নিয়ে দৌড়ে গিয়ে সন্ত্রাসী সবুজকে জাপটে ধরেন তিনি।

পরে তল্লাশি চালিয়ে সবুজের কাছ থেকে একটি অত্যাধুনিক বিদেশি রিভলবার, একটি পিস্তল, ১১ রাউন্ড গুলি ও হাতবোমা উদ্ধার হয়। পরে খালিশপুর থানায় তাকে হস্তান্তর করা হয় এবং তার বিরুদ্ধে অস্ত্র আইনে মামলা হয়।

এ ঘটনার পর থেকে ফেসবুকসহ বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রশংসায় ভাসছেন তিনি।

সেই মুহূর্তের ঘটনা সম্পর্কে জানতে চাইলে সার্জেন্ট রেক্সোনা বলেন, আমার ওপর অর্পিত দায়িত্ব ও কর্তব্যবোধ থেকেই সন্ত্রাসীকে ধরেছি। দায়িত্ব পালনের সময় কখনই মনে হয় না আমি নারী। আমি বাংলাদেশ পুলিশের একজন গর্বিত সদস্য, এটা ভেবে সব সময় দায়িত্বের সঙ্গে কাজ করি।

মাগুরার সদরে মেয়ে রেক্সোনা। ছোট বেলা থেকেই স্বপ্ন ছিল ম্যাজিস্ট্রেট হওয়ার। কিন্তু ম্যাজিস্ট্রেট না হলেও বাংলাদেশ পুলিশের একজন সদস্য হতে পেরে তিনি গর্বিত।

কুষ্টিয়ার ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় থেকে উচ্চশিক্ষা লাভের পর ২০১৭ সালের ৮ নভেম্বর খুলনা মেট্রোপলিটন পুলিশে সার্জেন্ট পদে যোগদান করেন তিনি।

সেবা নিতে এসে মানুষ যেন হয়রানির শিকার না হন: প্রধানমন্ত্রী

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, সেবা নিতে এসে কোনো মানুষ যেন হয়রানির শিকার না হন। শুদ্ধাচার বাস্তবায়নের পাশাপাশি দুর্নীতি প্রতিরোধে সোচ্চার হতে হবে।

আজ মঙ্গলবার (১৮ জানুয়ারি) বেলা ১১টার পর গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সে যুক্ত হয়ে ৩ দিনের ডিসি সম্মেলন উদ্বোধন অনুষ্ঠানে এ আহ্বান জানান তিনি।

প্রধানমন্ত্রী ডিসিদের বলেন, আপনারা জেলা প্রশাসকবৃন্দ কাজ করেন মাঠ পর্যায়ে এবং প্রত্যেকটি জেলার দায়িত্ব আপনাদের।

গ্রামীণ জনগোষ্ঠীর দারিদ্র দূরীকরণ এবং তাদের স্বাবলম্বী করার জন্য আমাদের যে ব্যাপক পল্লী উন্নয়ন কাজ হাতে নিয়েছি, সেগুলোকে আমরা সব থেকে বেশি প্রাধান্য দিচ্ছি। কারণ দারিদ্রমুক্ত বাংলাদেশ গড়তে হলে আমাদের তৃণমূলের মানুষের জীবনমান উন্নত করতে হবে।

এ সময় সব ধরনের ভয়-ভীতির ঊর্ধ্বে থেকে মাঠ পর্যায়ে প্রশাসনের কার্যক্রম পরিচালনার জন্য জেলা প্রশাসকদের (ডিসি) আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

শেয়ার করুন !
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply

error: Content is protected !!