বুকে পাড়া দিয়ে শিশুর গলা কাটার সময় যুবক আটক

0

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি:

নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার ফতুল্লায় আলিফ (৬) নামে এক শিশুকে পরনের জামা দিয়ে পেঁচিয়ে বুকে পা রেখে গলা কাটার সময় আমির হোসেন (৩০) নামে এক যুবককে হাতেনাতে ধরে গণপি’টুনি দিয়েছে এলাকাবাসী। বুধবার রাত ৯টার দিকে ফতুল্লার পশ্চিম ভুইগড় এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

ফতুল্লা মডেল থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আসলাম হোসেন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, পশ্চিম ভুইগড় এলাকার শাহীন মিয়ার ছেলে আলিফ রাত সাড়ে ৮টার দিকে বাড়ির পাশে নানা শহীদুল্লাহর বাড়িতে যাওয়ার সময় আমির হোসেন নামে এক যুবক তার গতিরোধ করে।

এ সময় শিশুটিকে জোর করে আমির হোসেন তার পরনের জামা দিয়ে পেঁচিয়ে ফেলে। এরপর শিশুটিকে মাটিতে ফেলে বুকে পা রেখে ধারালো ছুরি দিয়ে গলা কেটে হ’ত্যার চেষ্টা করে। তখন শিশুটির চাচী সেলিনা ওইপথ দিয়ে যাওয়ার সময় ঘটনা দেখে চিৎকার শুরু করেন।

এতে আশেপাশের লোকজন ছুটে এসে আমিরের কাছ থেকে শিশুটিকে উদ্ধার করে এবং আমিরকে ধরে গণপি’টুনি দিয়ে পুলিশে খবর দেয়। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে আমিরকে আটক করে এবং শিশু আলিফকে তার বাবা-মায়ের কাছে হস্তান্তর করা হয়।

আটক আমির তার পরিচয় নিয়ে বিভ্রান্ত করছে। তার সঠিক পরিচয় জানার চেষ্টা চলছে বলেও ওসি জানান।

বিষধর সাপের কামড়ে দুইজনের মৃত্যু

নেত্রকোনায় পৃথক স্থানে বিষধর সাপের কামড়ে ২ জনের মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার জেলার সদর ও কলমাকান্দা উপজেলায় এ ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হলেন- চন্দন দাস ও রুবেল মিয়া। এদেরে মধ্যে চন্দন দাস খালিয়াজুরী উপজেলার বাসিন্দা। তবে তিনি সদর উপজেলার কান্দুলিয়া গ্রামে থাকতেন এবং ওই এলাকায় একটি সেলুনে কাজ করতেন। আর রুবেল মিয়া কলমাকান্দা উপজেলার খারনৈ ইউনিয়নের তেলিগাঁও পালপাড়া গ্রামের মৃত আব্দুল হাসিম খানের ছেলে। তিনি পেশায় দিনমজুর ছিলেন।

জানা গেছে, বুধবার দিবাগত রাত ১২টার দিকে চন্দন দাস প্রকৃতির ডাকে বাড়ির বাইরে গেলে একটি বিষধর সাপ তাকে কামড়ে দেয়। প্রথমে তাকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে চিকিৎসা দেয়া হয়। সেখানে চিকিৎসা শেষে রাতেই তিনি বাড়িতে ফেরেন।

কিন্তু বৃহস্পতিবার সকালে অবস্থার অবনতি হওয়ায় তাকে নেত্রকোণা আধুনিক সদর হাসপাতালে নেয়া হলে চিকিৎসক মৃ’ত ঘোষণা করেন। পরে তার মর’দেহ খালিয়াজুরী উপজেলার নিজ বাড়িতে নিয়ে যাওয়া হয়।

অন্যদিকে বৃহস্পতিবার ভোরে ঘুমন্ত অবস্থায় রুবেল মিয়াকে একটি বিষধর সাপ কামড় দেয়। তাকে উদ্ধার করে কলমাকান্দা হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃ’ত ঘোষণা করেন।

শেয়ার করুন !
  • 53
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply