ব্যবসায়ীর পকেট থেকে সাড়ে ৭ হাজার টাকা ছিনিয়ে নিলেন এএসআই

0

রাজশাহী প্রতিনিধি:

রাজশাহী নগরীর এক ব্যবসায়ীর পকেট থেকে সাড়ে ৭ হাজার টাকা কেড়ে নেয়ার অভিযোগ উঠেছে এক পুলিশ সদস্যদের বিরু’দ্ধে।

নাজমুল হক টিটু নামের ভিক্টিম ওই ব্যবসায়ী এ বিষয়ে রাজশাহী মেট্রোপলিটন পুলিশ (আরএমপি) কমিশনার বরাবর একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। তিনি কর্ণহার থানার অন্তর্গত দারুশা গ্রামের বাসিন্দা। নগরীর সিটি বাইপাস মোড়ে ঢালাই মেশিনের ব্যবসা করেন এই ব্যবসায়ী।

অপরদিকে অভিযুক্ত পুলিশ সদস্য উপ-পরিদর্শক (এ এস আই) কামরুজ্জামান নগরীর কেশবপুর ফাঁড়িতে কর্মরত আছেন।

অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, গত ৮ সেপ্টেম্বর দুপুরে এ এস আই কামরুজ্জামান টহল গাড়ি নিয়ে নাজমুল হক টিটুর দোকানের সামনে গিয়ে দাঁড়ান। এরপর কথা আছে বলে তাকে ডেকে নিয়ে হাতকড়া পরিয়ে গাড়িতে করে নগরীর টুলটুলিপাড়া এলাকায় নিয়ে যান।

সেখানে নিয়ে টিটুকে বলেন, তুই অ’বৈধ ব্যবসা করিস। তাই ২০ হাজার টাকা দিতে হবে। এরপর তিনি নিজেই টিটুর পকেট থেকে সাড়ে ৭ হাজার টাকা বের করে নিয়ে ছেড়ে দেন।

অভিযোগে আরও বলা হয়েছে, সাড়ে ৭ হাজার টাকা নেয়ার পরও আরও সাড়ে ১২ হাজার টাকা দেয়ার জন্য তাকে পরে যোগাযোগ করতে বলা হয়। কিন্তু আর কোনো টাকা না দেয়ায় ২০ সেপ্টেম্বর ফের টিটুর ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের সামনে গিয়ে তাকে খোঁজেন।

তিনি দোকানে না থাকায় কর্মচারীদের এ এস আই কামরুজ্জামান বলেন, টিটু যোগাযোগ না করলে মিথ্যা মামলায় ফাঁ’সিয়ে দেয়া হবে। এ অবস্থায় আতঙ্কিত হয়ে টিটু আরএমপি কমিশনারের কাছে লিখিত অভিযোগ দেন।

এদিকে অভিযোগ অস্বীকার করেছেন এ এস আই কামরুজ্জামান বলেন, টিটু ক্রিকেটে জুয়া খেলেন। তাই তাকে সতর্ক করা হয়েছে। টাকা কেড়ে নেয়ার অভিযোগ সঠিক নয়।

অভিযোগের সত্যতা নিশ্চিত করে আরএমপির মুখপাত্র গোলাম রুহুল কুদ্দুস বলেন, বিষয়টি তদন্ত করা হবে। অভিযোগের সত্যতা পেলে অভিযুক্ত পুলিশ কর্মকর্তার বিরু’দ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

শেয়ার করুন !
  • 140
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply