স্কুলছাত্রকে ১ লাখ টাকায় খ্রিস্টধর্মে দীক্ষিতের অভিযোগে উত্তাল রাজপথ

0

জামালপুর প্রতিনিধি:

জামালপুর জেলার মেলান্দহ উপজেলার শ্যামপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের ৭ম শ্রেণির ছাত্র ইয়াছিন ইসলাম আকাশকে (১৪) খ্রিষ্টধর্মে দীক্ষিতের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

স্থানীয়দের দাবী অনুযায়ী, আকাশকে ১ লাখ টাকার লোভ দেখায় জহিরুল ইসলাম জহির নামে এক বৃদ্ধ। এতে রাজি না হলে হাতে বাইবেল স্পর্শ করিয়ে এবং বুকে ও হাতে ক্রশ এঁকে দিয়ে তার ধর্ম পরিবর্তন করে দেয়া হয়।

এ ঘটনায় ওই স্কুলছাত্রের মা আনজুয়ারা বেগম বৃদ্ধ জহিরকে আসামি করে মেলন্দাহ থানায় মামলা দায়ের করলে পুলিশ জহিরকে আটক করে।

জানা যায়, আকাশের বাবা সাইফুল ইসলাম তার মা আনজুয়ারা বেগমকে রেখে অন্য মেয়েকে বিয়ে করে ময়মনসিংহে বসবাস শুরু করলে তারা অভাব-অনটনে পড়ে যায়। আকাশ তার নানা দিনমজুর আমজাদ হোসনের কাছে থেকে পড়াশোনা করছে। আর মা সংসার খরচ মেটাতে ঢাকায় গার্মেন্টসে চাকরি নেয়।

এদিকে কিছুদিন ধরে জহির নামের ওই বৃদ্ধ আকাশের খোঁজখবর নিতে থাকে। এক পর্যায়ে জহির আকাশকে স্কুল থেকে ডেকে ডেফলা ব্রিজের কাছে নিয়ে যায়। আকাশকে তার ধর্ম পরিবর্তনের প্রস্তাব দেয় জহির। বিনিময়ে তাকে ১ লাখ টাকা দেয়ার প্রতিশ্রুতি দেয়।

আকাশ রাজি না হলে তার হাতে বাইবেল স্পর্শ করিয়ে এবং বুকে ও হাতে ক্রশ চিহ্ন এঁকে দেয় জহির। আর এতেই তার ধর্ম পরিবর্তন হয়ে গেছে বলা হয়। পরে তার হাতে ১ লাখ টাকা, ‘কোন পথে’ নামক একটি বই ও ক্রশ গলায় পরিয়ে বাড়িতে পাঠিয়ে দেয়। আকাশ কাউকেই কিছু জানায়নি আর।

যদিও এ ঘটনার পর থেকেই আকাশ মানসিকভাবে ভেঙে পড়ে। কয়েকদিন পর সে জহিরকে টাকা ও ক্রশটি ফেরত দিয়ে খ্রিষ্টধর্ম প্রত্যাখ্যানের কথা জানায়।

এদিকে আকাশের বিমর্ষ চেহারা তার স্কুল শিক্ষকের নজরে আসে। কারণ জানতে চাইলে আকাশ ঘটনাটি তাকে জানায়। এরপর এলাকায় ঘটনাটি প্রকাশ পেলে স্থানীয়রা আকাশের বাড়িতে ভিড় জমায়। পরিস্থিতি বেগতিক হতে পারে বুঝতেত পেরে মেলান্দহ থানা পুলিশ আকাশকে থানা হেফাজতে নিয়ে যায়।

এই ঘটনারয় অভিযুক্ত জহিরুল ইসলাম জহির (৬৫) জামালপুরের ইসলামপুর উপজেলার কুলকান্দি গ্রামের বাবর আলির ছেলে। আকাশের মায়ের অভিযোগের প্রেক্ষিতে মেলান্দহ থানা পুলিশ জহিরকে আটক করে।

জহির আটক হলে জানা যায়, তিনি নিজেই আশির দশকে ইসলাম ছেড়ে খ্রিষ্টধর্মে দীক্ষা নেন। এ ঘটনা জানাজানি হলে এলাকায় তীব্র ক্ষো’ভ বিরাজ করছে।

এদিকে জহিরের মেয়ে জিনাত নাহার দীপ্তি এই মামলায় সহযোগিতা করার কারনে স্থানীয়দের বিরু’দ্ধে পাল্টা মামলা করায় পরিস্থিতি উত্তাল আকার ধারন করেছে।

বিষয়টি কেন্দ্র করে গত রোববার বায়তুন নূর জামে মসজিদ গেট থেকে ইত্তেফাকুল উলামা মেলান্দহ’র উদ্যোগে একটি মিছিল বের হয়। মেলান্দহ বাজারের প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে টিটিডিসি ঈদগাহ মাঠে সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

মেলান্দহ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. রেজাউল করিম খান জানান, আকাশের মা আনজুয়ারা বেগম বাদি হয়ে মামলা দায়ের করেছেন। এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে জহিরুল ইসলাম জহিরকে গ্রেপ্তার করে আদালতে সোপর্দ করা হয়।

শেয়ার করুন !
  • 45
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply

error: Content is protected !!