অপেক্ষা করুন, গরম খবর আসছে: ওবায়দুল কাদের

0

সময় এখন ডেস্ক:

ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক, সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ‘অপেক্ষা করুন, গরম খবর আসছে।’ তবে সেই গরম খবর কী সেটি তিনি স্পষ্ট করেননি।

বুধবার (২ অক্টোবর) সচিবালয়ে সমসাময়িক ইস্যু নিয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এক প্রশ্নের জবাবে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের এ কথা বলেন।

কী ধরনের খবর জানতে চাইলে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘কী ধরনের খবর সেটা বলে দিলে তো হয় না। সময় আসলে জানতে পারবেন।’ এরপরও সাংবাদিকরা জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘সারপ্রাইজ থাকল।’

চলমান অভিযানের মধ্যে যুবলীগের ঢাকা দক্ষিণের সভাপতি ইসমাইল চৌধুরী সম্রাটকে নিয়ে একটা ধোঁয়াশা সৃষ্টি হয়েছে। তিনি কী গ্রেপ্তার হয়েছেন নাকি বিদেশে চলে গেছেন? এ বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘আমি তো বলেছি ধৈর্য ধরুন, অপেক্ষা করুন; দেখতে পাবেন।’

আওয়ামী লীগ দীর্ঘদিন ক্ষমতায়। সরকার দুর্নীতির বিরু’দ্ধে অভিযানে গেছে। ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে চাঁদাবাজি এখনও চলছে- এ বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করলে মন্ত্রী বলেন, আমরা যে তৃণমূলে সম্মেলন করছি, সংগঠনকে নতুন করে ঢেলে সাজাচ্ছি। এখানেও একটা ব্যবস্থা আমরা নিচ্ছি। যারা অ’পকর্মের সাথে জড়িত, যাদের বিরু’দ্ধে জনগণের অভিযোগ আছে, সেসব লোককে আমরা দলের নেতৃত্ব পদে বসাব না। এটাও আমাদের তৃণমূলে সম্মেলন করার একটা উদ্দেশ্য।

ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে যারা চাঁদাবাজি করছে তাদের কোনো তালিকা আছে কি-না? জানতে চাইলে মন্ত্রী বলেন, আমার কাছে কোনো তালিকা নেই, তবে নজরদারি আছে।

এখনও তথাকথিত লাইনম্যানরা চাঁদা ওঠাচ্ছে- একজন সাংবাদিক এ বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করলে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘আপনি একটা ধরে নিয়ে আসেন, আজকেই জেলে দেব। আমার কানে কানে বলুন।’

চলমান ধরপাকড়-অভিযান নিয়ে আপত্তি রিজভীর!

আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর চলমান ধরপাকড় আর অভিযানকে বড় কোনো অ’পকর্মের পূর্বাভাস বলে আপত্তি জানিয়ে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেন, এ অভিযান প্র’তিহিংসা, ঈর্ষা, চাঁদাবাজি ও স্বজনপোষণের রাজনীতির জটিল সমীকরণের বহিঃপ্রকাশ বলে অনেকে মনে করেন।

রিজভী বলেন, আমরা আগেই বলেছিলাম, দুর্নীতির নামে কথিত অভিযান সম্পূর্ণ রাজনৈতিক হী’ন উদ্দেশ্যমূলক। ফলে গত ১৩ বছরে আওয়ামী লীগের ঝুড়ি থেকে মহাদুর্নীতির বাতাসা নয় বরং যখন বড় বড় চমচম বের হতে শুরু করেছে, তখন সেটির দায় চাপানোর জন্য তারা লন্ডনের রাস্তা খুঁজে বেড়াচ্ছে।

তিনি বলেন, দুর্নীতিধর্মী রাজনীতির পৃষ্ঠপোষক আওয়ামী লীগ। তাই চলমান সন্দেহজনক অভিযানে ধৃত আওয়ামী যুবলীগ-ছাত্রলীগের চুনোপুঁটিদের সাথে বিএনপির নাম জড়াতে সরকার জনগণের কোনো সাড়া পাচ্ছে না।

শেয়ার করুন !
  • 1.3K
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply