নিউইয়র্ক-বেলজিয়ামে প্রশ্ন- প্রবাসী আওয়ামী নেতারা কেন ঢাকায়?

0

সময় এখন ডেস্ক:

রাজধানী ঢাকায় সংগঠনের সাইনবোর্ড ঝুলিয়ে সংগঠন বহির্ভূত কাজ থেকে সংশ্লিষ্টদের বিরত থাকার আহ্বান জানিয়ে সংবাদ সম্মেলন করেছে বেলজিয়াম আওয়ামী লীগ।

সম্প্রতি ঢাকার একটি দৈনিকে এ সংক্রান্ত একটি সংবাদ প্রকাশের পর বাংলাদেশ আওয়ামী লীগে তোলপাড় শুরু হয়েছে। একইসঙ্গে প্রবাসের সংগঠনের সাইনবোর্ড কেন ঢাকায়- এমন প্রশ্ন সকলেরই। তারই পরিপ্রেক্ষিতে এ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে বেলজিয়াম আওয়ামী লীগ।

ব্রাসেলসে গত বুধবার (৯ অক্টোবর) অনুষ্ঠিত এ সংবাদ সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন- বেলজিয়াম আওয়ামী লীগ সভাপতি শহীদুল হক, সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর চৌধুরী রতন, সিনিয়র সহ-সভাপতি বিধান দেব, সহ-সভাপতি মোশাররফ হোসেন বাবু, উপদেষ্টা ড. ফারুক মির্জা, যুগ্ম সম্পাদক দাউদ খান সোহেল, প্রচার সম্পাদক আখতারুজ্জামান, বেলজিয়াম যুবলীগ সভাপতি খালেদ মিনহাজ।

এ সময় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- সংগঠনের যুগ্ম সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ মিঠু, সদস্য রানা মর্তুজা, এনটওয়ার্প আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক সেলিম খান, সাধারণ সম্পাদক আরিফউদ্দিন, যুগ্ম সম্পাদক মুস্তাফিজ প্রমুখ।

এদিকে, নিউইয়র্ক মহানগর এবং যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের দু’একজন নেতার বি’পক্ষে বছরের অধিকাংশ সময়ই ঢাকায় অবস্থান করে বদলি, তদ্বির বাণিজ্য, সরকারি বিভিন্ন ধরনের কাজ ও টেন্ডারে হস্ত’ক্ষেপসহ নানাবিধ অভিযোগ রয়েছে।

এ ধরনের সুষ্পষ্ট অভিযোগের কারণে গত মাসে নিউইয়র্কে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সফর চলাকালীন সময়ে আয়োজিত সংবর্ধনা সমাবেশের মঞ্চে ওঠা এবং তাঁর কাছাকাছি যাওয়ার সুযোগ পাননি যুক্তরাষ্ট্র আওয়ামী লীগের সভাপতি সিদ্দিকুর রহমানসহ তার অনুসারীরা। নিউইয়র্ক আওয়ামী লীগ কার্যালয়ের সূত্র জানিয়েছে, দলীয় সভাপতি শেখ হাসিনাও না’খোশ তার প্রতি।

তারপরও ৯ অক্টোবর রাতের ফ্লাইটে সিদ্দিকুর পুনরায় সস্ত্রীক ঢাকায় যান। সংগঠনের দায়িত্ব থেকে (৩ বছরের কমিটির মেয়াদ ৮ বছর অতিবাহিত হয়েছে) এখনও অ’ব্যাহতি না দেয়ায় ঢাকায় মন্ত্রীপাড়া থেকে মতিঝিল পর্যন্ত তদ্বির বাণিজ্য অ’ব্যাহত রাখার অভিপ্রায়ে তিনি আবারও বাংলাদেশে গেলেন বলে নেতা-কর্মীরা অভিযোগ করেছেন।

শেয়ার করুন !
  • 38
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply