বগুড়া আওয়ামী লীগের ৯ নেতা কেন হঠাৎ আলোচনায়?

0

বগুড়া প্রতিনিধি:

বগুড়ায় আওয়ামী লীগের মেয়াদো’ত্তীর্ণ জেলা কমিটি পুনর্গঠনের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। আগামী ৭ ডিসেম্বর সম্মেলনের তারিখ ঘোষণা করা হয়েছে। গত রোববার রাজশাহীতে অনুষ্ঠিত আওয়ামী লীগের বিভাগীয় প্রতিনিধি সভায় দলটির কেন্দ্রীয় যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক সম্মেলনের তারিখ ঘোষণা করেন।

বিভাগীয় প্রতিনিধি সভা থেকে সম্মেলনের তারিখ ঘোষণার পর বগুড়া জেলা কমিটিতে স্থান পেতে আগ্রহী নেতা এবং তাদের অনুসারীরা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে সরব হয়ে উঠেছেন। অনুসারীদের অনেকেই পছন্দের নেতাদের ছবি পোস্ট করে বগুড়া জেলা আওয়ামী লীগে সভাপতি কিংবা সাধারণ সম্পাদক পদে তাদের যোগ্য দাবি করে দোয়া ও সমর্থন কামনা করছেন।

বগুড়ায় আওয়ামী লীগের সর্বশেষ সম্মেলন হয় ২০১৪ সালের ১০ ডিসেম্বর। এ সম্মেলনের পর কেন্দ্রীয় নেতারা ১৯৯৪ সাল থেকে সভাপতির দায়িত্ব পালন করে আসা মমতাজ উদ্দিনকেই সভাপতি পদে পুনঃ র্নির্বাচিত করেন। একইভাবে সাধারণ সম্পাদক পদে মজিবর রহমান মজনুকেও ২য় দফায় নির্বাচিত করা হয়। এ ছাড়া সাধারণ সম্পাদক পদপ্রত্যাশী ৩ নেতা- রাগেবুল আহসান রিপু, টি. জামান নিকেতা ও মঞ্জুরুল আলম মোহনকে যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ঘোষণা করা হয়। সম্মেলনের প্রায় ২২ মাস পর ২০১৬ সালের ১৩ অক্টোবর ৭১ সদস্যের পূর্ণাঙ্গ কমিটির অনুমোদন করা হয়।

দলীয় গঠনতন্ত্রে নির্ধারিত সর্বোচ্চ ৩ বছরের মেয়াদ শেষ হওয়ার আরও প্রায় ২ বছর পর অনুষ্ঠিত হতে চলেছে বগুড়া জেলা আওয়ামী লীগের সম্মেলন। এবার এখানে প্রায় ২৫ বছর পর দলটির জন্য সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদে নতুন নেতৃত্ব বেছে নেওয়ার সুযোগ এসেছে। কারণ ১৯৯৪ সাল থেকে সভাপতি পদে আসীন মমতাজ উদ্দিন চলতি বছরের ১৭ ফেব্রুয়ারি প্রয়াত হয়েছেন।

তবে সাধারণ সম্পাদক পদে প্রায় ১৮ বছর দায়িত্ব পালন করে আসা মজিবর রহমান মজনুকে পদোন্নতি দেওয়ার সম্ভাবনাই বেশি। সে ক্ষেত্রে সভাপতির মতো সাধারণ সম্পাদক পদেও নতুন মুখ দেখা যেতে পারে। বগুড়ায় এ দলের সম্মেলনে গত ২ যুগ মমতাজ উদ্দিনের অনুসারীরাই জেলা কমিটির সিংহভাগ পদে স্থান পেতেন। তার অবর্তমানে কারা নতুন কমিটিতে উঠে আসবেন, তা জানার আগ্রহও রয়েছে সবার।

দল পুনর্গঠনের ক্ষেত্রে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক হিসেবে বেশ কয়েকজন নেতার নাম আলোচনায় রয়েছে। তারা হলেন- বর্তমান ভারপ্রাপ্ত সভাপতি ডা. মকবুল হোসেন, সাধারণ সম্পাদক মজিবর রহমান মজনু, দুই সহসভাপতি- অ্যাডভোকেট রেজাউল করিম মন্টু ও অ্যাডভোকেট মকবুল হোসেন মুকুল এবং ৩ যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক যথাক্রমে- রাগেবুল আহসান রিপু, টি. জামান নিকেতা ও মঞ্জুরুল আলম মোহন।

এর বাইরে জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আসাদুর রহমান দুলু এবং প্রচার ও প্রকাশনাবিষয়ক সম্পাদক সুলতান মাহমুদ খান রনির অনুসারীরাও ফেসবুকে পোস্ট দিয়ে তাদের জন্য শুভকামনা করছেন।

এদিকে, পুনর্গঠনের ক্ষেত্রে আওয়ামী লীগের একটি অংশ চাইছে বর্তমান ভারপ্রাপ্ত সভাপতিকে ভারমুক্ত করতে এবং সাধারণ সম্পাদক পদে মজিবর রহমান মজনুকেই বহাল রাখতে। অন্য একটি অংশ চাইছে, মজিবর রহমানকে সভাপতির দায়িত্ব দিয়ে সাধারণ সম্পাদক হিসেবে নতুন কাউকে খুঁজে নিতে।

এর আগে বগুড়া জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রাগেবুল আহসান রিপু জানিয়েছিলেন, তারা দলে কোনো দু’র্বৃত্তায়ন দেখতে চান না। এ বিষয়ে শেখ হাসিনার দৃঢ়তায় তারা আশাবাদী। এ ব্যাপারে বর্তমান সাধারণ সম্পাদক মজিবর রহমান জানান, নেতাকর্মীরা তাকে সভাপতির দায়িত্ব দিতে চাইলে তিনি তা নিতে প্রস্তুত।

শেয়ার করুন !
  • 180
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply