রামগড়ে বিজিবির বাধায় বিএসএফের কাঁটাতারের বেড়ার কাজ বন্ধ

0

খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি:

বিজিবির বাধায় খাগড়াছড়ির রামগড় সীমান্তের ২২১৭/৪ আরবি সীমানা পিলার সংলগ্ন কাশিবাড়ির ওপারে ভারতের সাবরুমের কাঁঠালছড়ির আইল্যামারা নামক এলাকায় কাঁটাতারের বেড়ার কাজ বন্ধ রেখছে বিএসএফ।

জানা যায়, গত সোমবার সকালে বিএসএফ অতিরিক্ত সৈন্য সমাবেশ ঘটিয়ে সীমান্তের ৫০ গজের মধ্যে কাঁটাতারের বেড়া নির্মাণের কাজ শুরু করলে বিজিবি তাতে বাধা দেয়। বিজিবির বাধা উ’পেক্ষা করে ওইদিন বিকাল পর্যন্ত তারা কাজ চালিয়ে যায়।

পরের দিন মঙ্গলবার সকালে বিএসএফ পুনরায় কাজ আরম্ভ করলে বিজিবি আবারও বাধা দেয়। বিজিবির বাধার কারণে বিএসএফ পতাকা বৈঠকের প্রস্তাব দিলে বিজিবি সম্মত হয়।

পরে মঙ্গলবার দুপুর দেড়টার দিকে রামগড় ৪৩ বিজিবির অধিনায়ক লে. কর্নেল তারিকুল হাকিমের নেতৃত্বে ১৩ সদস্যের দলটি ভারতের আইল্যামারা এলাকায় অনুষ্ঠিত পতাকা বৈঠকে যোগ দেয়। বৈঠকে ২০ সদস্যের বিএসএফের নেতৃত্ব দেন সাবরুমস্থ ৬৬ ব্যাটালিয়নের কমান্ডার। বৈঠকটি দুপুর সাড়ে ৩টা পর্যন্ত চলে।

বৈঠক শেষে ৪৩ বিজিবির উপ-অধিনায়ক মেজর জাকির হোসেন বলেন, বৈঠকটি ফলপ্রসূ হয়েছে। ওই স্থানে শূন্যরেখা থেকে দেড়শ’ গজের মধ্যে কাঁটাতারের বেড়া নির্মাণের ব্যাপারে উভয় দেশের সন্মতি রয়েছে। কিন্তু বেড়ার নকশার ব্যাপারে আমাদের আপত্তির কথা জানিয়েছি।

তিনি বলেন, বৈঠকে নকশার ব্যাপারে দু’দেশের উচ্চ পর্যায়ের যৌথ সিদ্ধান্ত না হওয়া পর্যন্ত সীমান্তে কাঁটাতারের বেড়া নির্মাণের কাজ বন্ধ রাখতে বিএসএফ সম্মত হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, বিজিবির সদর দপ্তর থেকে যে নকশা দেয়া হয়েছে তা অনুসরণ করা হচ্ছে কিনা এ বিষয়ে জানতে বিএসএফের কাছে চিঠি পাঠানো হয়েছিল। কিন্তু বিএসএফ চিঠির উত্তর না দিয়ে কাজ আরম্ভ করলে বিজিবির পক্ষ থেকে বাধা দেয়া হয়।

বিএসএফ এর হাতে ১০ বছরে নিহ’ত বাংলাদেশির সংখ্যা ৩২২

ভারতের সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিএসএফ এর ফায়ারিংয়ে গত ১০ বছরে ৩২২ জন বাংলাদেশি নিহ’ত হয়েছেন। এর মধ্যে চলতি বছরের সেপ্টেম্বর পর্যন্ত নিহ’ত হয়েছেন ২৮ জন।

গত ১১ জুলাই একাদশ জাতীয় সংসদে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল জানিয়েছিলেন, ২০১৮ সাল পর্যন্ত গত ১০ বছরে বিএসএফ এর হাতে নিহ’ত বাংলাদেশির সংখ্যা ২৯৪ জন।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সংসদকে জানান, ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তে ২০০৯ সালে ৬৬ জন, ২০১০ সালে ৫৫ জন, ২০১১ ও ২০১২ সালে ২৪ জন করে মোট ৪৮ জন, ২০১৩ সালে ১৮ জন, ২০১৪ সালে ২৪ জন, ২০১৫ সালে ৩৮ জন, ২০১৬ সালে ২৫ জন, ২০১৭ সালে ১৭ জন ও ২০১৮ সালে ৩ জন বাংলাদেশি নিহ’ত হয়েছেন।

এদিকে মানবাধিকার সংগঠন অধিকারের তথ্যমতে, চলতি বছরের সেপ্টেম্বর পর্যন্ত সীমান্তে বিএসএফ এর হাতে ২৮ জন বাংলাদেশি নিহ’ত হয়েছেন।

শেয়ার করুন !
  • 1.3K
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply

error: Content is protected !!