পথশিশুর কাছ থেকে পাওয়া সাকিবের অনুপ্রেরণার গল্প

0

স্পোর্টস ডেস্ক:

সাকিব মাঠে থাকছেন না ১ বছর, ভক্তদের জন্য এটা মেনে নেওয়া দুষ্কর। তাদের কাছে সাকিবের অপরাধ এমনটা গুরুতর নয় হয়ত যে তাকে এতো বড় শা’স্তি ভোগ করতে হচ্ছে।

তিনি পুরো মাঠ দাপিয়েছেন ব্যাটে বলে, পুরো একটি ম্যাচকে তিনি একাই নিয়ন্ত্রণের ক্ষমতা রাখতেন। তিনি ভক্তদের জন্য নিঃসন্দেহে অনেক বড় একটি অনুপ্রেরণা।

কিন্তু এই কিংবদন্তী সাকিবেরও তো নিশ্চয়ই কোনো অনুপ্রেরণা রয়েছে। নইলে মাঠ কাঁপানো তো সহজ কথা নয়। সাকিব নিজেই একবার কথায় কথায় হাসির ছলে অদ্ভুত এক অনুপ্রেরণার কথা জানিয়েছিলেন।

সাকিব আল হাসানকে একবার এক টিভি সাক্ষাৎকারে জিজ্ঞেস করা হলো- প্লেয়ারদের ভালো খেলার পেছনে একটা মোটিভেশন থাকে। আপনার অনুপ্রেরণার উৎস কী?

এই প্রশ্নের জবাবে সাকিব তার চমৎকার একটা অভিজ্ঞতা শেয়ার করেছিলেন-

আমি একবার ঢাকার জ্যামে বসে কুলকুল করে ঘামছি। এমন সময় এক পথশিশু আমার গাড়ির কাছে এসে বললো- ‘স্যার, একটা ফুল নিবেন?’ আমি তার সঙ্গে থাকা সবগুলো ফুল নিয়ে নিলাম। তারপর গাড়ির জানালার কাঁচ খুলে দাম দিতে যাবো- ঠিক এমন সময় ওই ছেলে আমাকে দেখে চিনে ফেললো!

ফুলওয়ালা ছেলেটা বললো- ‘আপনে ছক্কা সাকিব না!?’ হাসতে হাসতে বললাম- ‘হ্যাঁ!’

তখন ছেলেটা দাম নিতে অ-স্বীকৃতি জানিয়ে বললো- ‘দাম লাগবো না, স্যার! আপনে প্রত্যেক ম্যাচে কমসে কম একটা করে ছক্কা মাইরেন- তাইলেই হইবো!’

প্রতিবার মাঠে নামার আগে আমার মাথায় থাকে ওই ছেলের কাছ থেকে নেওয়া ফুলের দাম।

এই অনুপ্রেরণা মোটেই তুচ্ছ নয় এই অলরাউন্ডারের কাছে।

সাকিবকে নিয়ে তামিমের আবেগময় স্ট্যাটাস

ক্রিকেট মাঠে একে অপরের ভালো সতীর্থ সাকিব আল হাসান ও তামিম ইকবাল। মাঠের বাইরে ব্যক্তিগত জীবনে ঘনিষ্ঠ বন্ধু তারা। স্বাভাবিকভাবেই একের দুঃখ, ক’ষ্ট, আনন্দের অনুভূতি অন্যের হৃদয় ছুঁয়ে যায়। সাকিবের শা’স্তির খবর মঙ্গলবারই পান তামিম। খুব কাছের বন্ধু বলে তৎক্ষণাৎ কিছু বলার ভাষা হারিয়ে ফেলেন তিনি।

অবশেষে বুধবার আবেগঘন স্ট্যাটাস দিয়েছেন ড্যাশিং ওপেনার।

নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে তামিম লিখেছেন, ১২ মাস তোমাকে আমাদের দলে পাব না। এটা ভাবাও কঠিন। তবে আশা করি, তুমি শক্তভাবে ফিরবে। আগামী বছর এ দিনে আমাদের সঙ্গে ট্রেনিংয়ে থাকবে। আমরা আবার একসঙ্গে খেলব।

শেয়ার করুন !
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply

error: Content is protected !!