গাজীপুরে চলন্ত বাসে কিশোরীকে ধ-র্ষণচেষ্টা, ২ হেল্পার গ্রেপ্তার

0

গাজীপুর প্রতিনিধি:

গাজীপুরের শ্রীপুরের চলন্ত বাসে কিশোরীকে ধ-র্ষণচেষ্টার অভিযোগে ২ জন পরিবহন শ্রমিককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। শনিবার রাত ১১টার দিকে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের মাওনা চৌরাস্তা থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলো- দিনাজপুর জেলার ফুলবাড়িয়া উপজেলার আমড়া গ্রামের কবির হোসেনের ছেলে জুয়েল (২৮) ও নেত্রকোনা জেলার কেন্দুয়া থানার চন্দনকান্দি গ্রামের আলতু মিয়ার ছেলে আশিক (২২)। তারা ২ জনই চালকের সহকারী (হেল্পার) হিসেবে কাজ করে।

তবে বাসচালক হারুন মিয়া পালিয়ে যাওয়ায় তাকে আটক করা যায়নি। এ সময় চ্যাম্পিয়ন পরিবহনের একটি বাস (ঢাকামেট্রো- জ-১৪-০৪৯৩) সিজ করেছে পুলিশ।

কিশোরীর বরাত দিয়ে মাওনা হাইওয়ে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মঞ্জুরুল হক জানান, ওই কিশোরী রাজধানী ঢাকার একটি স্কুলের ৯ম শ্রেণির শিক্ষার্থী। সে বিনোদনমূলক শর্টফিল্ম ও ছোট নাটিকাসহ নানা ধরনের সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের দলের কর্মী হিসেবে কাজ করে।

গাজীপুরের রাজেন্দ্রপুরে একটি সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণের জন্য সে শনিবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে গাজীপুর-মাওনা র‌্যুটে চলাচলকারী চ্যাম্পিয়ন পরিবহনের একটি বাসে ওঠে। কিছুদূর আসার পর হেল্পাররা গাড়ির সমস্যা বলে অন্য যাত্রীদের বাস থেকে নামিয়ে দেয়।

এ সময় কিশোরী চিন্তিত হয়ে পড়লে বাসের চালক তাকে অভয় দিয়ে জানায়, গাড়ির সমস্যা থাকলেও ওই কিশোরীকে তারা গন্তব্যে পৌঁছে দেবে।

পরে বাস নিয়ে বিভিন্ন এলাকা ঘুরে কিশোরীকে গন্তব্যে না নামিয়ে মাওনা চৌরাস্তার উড়াল সেতুর ওপর বাসের ভেতর কিশোরীকে মুখ চেপে ধরে ধ-র্ষণচেষ্টা চালায় তারা। এ সময় ওই কিশোরী পা দিয়ে বাসের জানালার কাঁচ ভে’ঙে চিৎকার শুরু করে।

পথচারীরা বিষয়টি টের পেয়ে মাওনা হাইওয়ে পুলিশকে জানালে তারা ঘটনাস্থল গিয়ে কিশোরীকে উদ্ধার এবং ২ পরিবহন শ্রমিককে আটক করে। তবে বাসটির চালক পালিয়ে যায়। পরে শ্রীপুর থানা পুলিশকে বিষয়টি অবগত করা হয়।

শ্রীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) লিয়াকত আলী জানান, এ ঘটনায় ওই কিশোরী বাদী হয়ে ৩ জনকে অভিযুক্ত করে শনিবার রাতেই থানায় মামলা করেছে। অভিযুক্তদের মধ্যে ২ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। অন্যজনকেও গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

শেয়ার করুন !
  • 227
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply