বাংলাদেশ সিরিজ জিতলে টুইটার ছেড়ে দেবেন শেবাগ!

0

স্পোর্টস ডেস্ক:

বাংলাদেশকে নিয়ে ক্রিকেট বিশ্বে যে কজন ক’টাক্ষ করেন, তন্মধ্যে অন্যতম হলেন ভারতের সাবেক ক্রিকেটার বীরেন্দ্র শেবাগ। এবারো ব্যতিক্রম নন ভারতীয় সাবেক ওপেনার। ভারতের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজের আগে টাইগারদের নিয়ে মশকরা করেছেন তিনি।

টি-টোয়েন্টি সিরিজ শুরুর আগে মুখোমুখি ল’ড়াইয়ে একতরফাভাবে এগিয়ে ছিল ভারত। ফেস টু ফেস ৮ বারের দেখায় একবারও জিততে পারেনি বাংলাদেশ। জয়ের খুব কাছে গিয়েও ফিরে আসতে হয় ২ বার। ২০১৬ সালে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ এবং ২০১৮ সালের নিদাহাস ট্রফির ফাইনালের চিত্র কারোরই ভুলার কথা নয়।

এক অর্থে অ-বজ্ঞা করে এ সিরিজের জন্য তারুণ্যনির্ভর দল ঘোষণা করে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড (বিসিসিআই)। যেখানে বিশ্রাম দেয়া হয় নিয়মিত অধিনায়ক বিরাট কোহলিকে। সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনা করে একটি বিত’র্কিত বিজ্ঞাপন বানিয়েছে ক্রীড়াভিত্তিক ভারতীয় টেলিভিশন চ্যানেল স্টার স্পোর্টস। তাতে টাইগারদের ব্য’ঙ্গ করা হয়েছে। ব্য’ঙ্গাত্মক এ বিজ্ঞাপনে মূখ্য চরিত্রে অভিনয় করেছেন শেবাগ।

টি-টোয়েন্টিতে কখনই ভারতকে হারাতে পারেনি বাংলাদেশ। মূলত সেটিকে থিম করে এ প্রমো ভিডিও বানিয়েছে স্টার স্পোর্টস। তাতে শেবাগকে বলতে শোনা গেছে, কোহলি না থাকতেই এত উড়ছে, যদি টি-টোয়েন্টিতে প্রথমবারের মতো জিতে যায়; তা হলে যে কী করবে কে জানে?

এরই মধ্যে স’মুচিত জবাব পেয়ে গেছেন শেবাগ। ৩ ম্যাচ সিরিজের প্রথম ম্যাচে ভারতকে ৭ উইকেটে হারিয়েছে বাংলাদেশ। গেল রোববার দিল্লির অরুণ জেটলি স্টেডিয়ামে ৩ বিভাগেই সফরকারীদের কাছে উড়ে গেছে স্বাগতিকরা। সিরিজে ব্যাকফুটে ভারত, আর ১-০ তে এগিয়ে বাংলাদেশ। দারুণ জয়ের পরেও বিন্দুমাত্র উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেননি মুশফিক-মাহমুদউল্লাহরা।এ যেন ভারতীয় সাবেক ওপেনারের করা ক’টাক্ষেরই নীরব প্র’তিবাদ।

তবু পিছপা হচ্ছেন বীরু। ফের বাজি ধরেছেন ডানহাতি ব্যাটার। এবার বললেন, বাংলাদেশ সিরিজ জিতলে টুইট করা ছেড়ে দেবেন তিনি।

বাংলাদেশের বিপক্ষে ভারতের হারের পর স্টার স্পোর্টসে নতুন একটি বিজ্ঞাপন দেখা যাচ্ছে। তাতে তিনি বলেন, ঈশ্বর আমি টুইট করা ছেড়ে দেবো। শুধু ২য় টি-টোয়েন্টি ভারত হেরে গেলে। এরপর বাংলাদেশের শক্তি সামর্থ্য নিয়ে অ’বজ্ঞা করে আবারও মন্তব্য করেন শেবাগ।

এ সময় তিনি বলেন, হেরে যাওয়ার ভয় নেই। শুধু তাদের নাটকের চিন্তা।

শেয়ার করুন !
  • 345
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply