রাঙ্গার বক্তব্যের তীব্র প্র’তিবাদ জানালেন রিজভী

0

সময় এখন ডেস্ক:

যুবলীগ নেতা শহীদ নূর হোসেনকে নিয়ে জাতীয় পার্টির মহাসচিব মশিউর রহমান রাঙ্গা অ’শ্রাব্য বক্তব্য দিয়েছেন উল্লেখ করে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী আহমেদ রাঙ্গার প্রতি ধি’ক্কার জানিয়েছেন।

তিনি বলেছেন, আমি শহীদ নূর হোসেন সম্পর্কে রাঙ্গার অ’শ্রাব্য ভাষা ব্যবহারের তীব্র ধি’ক্কার জানাই, প্র’তিবাদ জানাই।

মঙ্গলবার (১২ নভেম্বর) সকালে নয়াপল্টনে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে অঙ্গ-সহযোগী সংগঠনের উদ্যোগে মিছিল বের হয়। বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী আহমেদ এ মিছিলে নেতৃত্ব দেন। মিছিলটি বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনের থেকে শুরু হয়ে নাইটিঙ্গেল মোড় ঘুরে আবারও বিএনপি কার্যালয়ের সামনে এসে শেষ হয়। মিছিল শেষে পথসভায় সংক্ষি’প্ত বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

মশিউর রহমান রাঙ্গার সমালোচনা করে রিজভী আহমেদ বলেন, রাঙ্গাদের মতো রাজনৈতিক ভবঘুরেরা গণতন্ত্রের আইকনন নূর হোসেনের মতো শহীদদের বিরু’দ্ধে অ’শ্রাব্য কথা বলতে পারেন। এরা গণতন্ত্রের শ’ত্রু। তাই তারা বর্তমান শাসকদের সঙ্গে হাত মিলিয়ে গণতন্ত্র ও গণতান্ত্রিক প্রতিষ্ঠানগুলোকে ধ্বং’স করে দিয়েছে।

রিজভী বলেন, শহীদ নূর হোসেন আওয়ামী লীগেরই কর্মী ছিলেন। কিন্তু ‘৯০ এর পরাজিত স্বৈ’রাচারের পথকলিদের সঙ্গে জোট করে এই সরকার নূর হোসেনদের সঙ্গে বিশ্বাসঘা’তকতা করে গণতন্ত্রকে দেশের মাটি থেকে উ’চ্ছেদ করেছে।

তিনি বলেন, মিডনাইট নির্বাচনের অ’বৈধ সরকার দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে ব’ন্দি করে রেখেছে। তারা শুধুমাত্র দেশের একজন জনপ্রিয় নেত্রীকেই ব’ন্দি করেনি, বরং গোটা দেশ, গণতন্ত্র, মত প্রকাশের স্বাধীনতা, ব্যক্তি স্বাধীনতা এবং দেশের স্বাধীনতা-সার্বভৌমত্বকেও আটকে রেখেছে।

বিএনপির এই সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব মনে করেন, বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তির মধ্য দিয়েই গণতন্ত্র ফিরবে এবং দেশের স্বাধীনতা-সার্বভৌমত্ব নিরাপদ হবে, দেশের মানুষ নিরাপত্তা ফিরে পাবে। দেশনেত্রীর মুক্তির জন্য আমাদের আর বসে থাকলে চলবে না, জনগণকে সঙ্গে নিয়ে আন্দোলনে ঝাঁ’পিয়ে পড়তে হবে।

খালেদা জিয়া বর্তমানে ভীষণ অসুস্থ দাবী করে রিজভী বলেন, খালেদা জিয়া চলাফেলা করতে পারছেন না, নিজ হাতে খেতে পারছেন না। এমতাবস্থায় সরকার প্রধানকে বলব- প্র’তিহিংসার রাজনীতি ভুলে গিয়ে বেগম জিয়াকে অবিলম্বে মুক্তি দিন। নইলে জনগণের তীব্র ক্ষো’ভে আপনার মসনদ ভে’ঙে পড়বে।

এ সময় অন্যদের মধ্যে বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক ফজলুল হক মিলন, জাতীয়তাবাদী যুবদল ঢাকা মহানগর দক্ষিণের সাধারণ সম্পাদক গোলাম মাওলা শাহীন, ছাত্রদল নেতা কাউসারসহ বিএনপি এবং অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।

শেয়ার করুন !
  • 141
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply

error: Content is protected !!