‘অটো ব্রেকে ইট দিয়ে চালকের ঘুম’- মনগড়া তথ্য, রেল ইঞ্জিনে এমন ব্রেকই নেই!

0

মুক্তমঞ্চ ডেস্ক:

বাংলানিউজ২৪.কম সংবাদ প্রকাশ করেছে “ইট দিয়ে অটোমেটিক ব্রেক চাপা দিয়ে তূর্ণা নিশিথার চালক ঘুমিয়ে ছিলেন” এবং তারা সেটা রেলওয়ের এক “দায়িত্বশীল কর্মকর্তা”(!) থেকে জানতে পেরেছে।

চলুন জেনে নেয়া যাক একটা লোকোমোটিভে ব্রেকে কী কী থাকে এবং কোথায় থাকে?

– একটা লোকোমোটিভে ব্রেক থাকে ২টা, অটোমেটিক ব্রেক এবং ইন্ডিপেন্ডেন্ট ব্রেক। যখন একটা লোকোমোটিভ দিয়ে ট্রেন পরিচালনা করা হয় তখন অটোমেটিক ব্রেক ইউজ করা হয়। আর শুধু লোকোমোটিভ পরিচালনা করার জন্য ব্যবহার করা ইন্ডিপেন্ডেন্ট ব্রেক।

এগুলা থাকে কোথায়?

– লোকোমাস্টার এবং সহকারী লোকোমাস্টারের সামনে থাকা কন্ট্রোল স্ট্যান্ডের হাতের বাম পাশের উপরে থাকে অটোমেটিক ব্রেক এবং এর নিচেই থাকে ইন্ডিপেনডেন্ট ব্রেক। দুটো ব্রেকই পরিচালনা করতে হয় সম্পূর্ণ হাত দিয়ে। পা দিয়ে কোন ব্রেক পরিচালনা করার কোন ধরনের সুযোগ নেই। সেটা স্বয়ং ঈশ্বর মাটিতে নেমে আসলেও অসম্ভব।

তাহলে সংবাদে যে পায়ের ব্রেকের কথা বললো সেটা আসলে কী?

– সেটা কোনো ধরনের ব্রেক নয়। সেটা হচ্ছে এক ধরনের সেফটি ভালব। নাম হচ্ছে “ডেডম্যান ফুট প্যাডেল”। এটার কাজ কী? এটার কাজ হচ্ছে, যদি এলএম এবং এএলএম অ-সতর্ক থাকে তাহলে একটা নির্দিষ্ট সময় (২ মিনিট) পর এটা এলার্ম দিবে এবং এলার্ম দেয়ার সাথে সেটা থেকে পা তুলে পুনরায় ২-৪ সেকেন্ডের মধ্যে পা দিয়ে চাপা দেয়া লাগবে। অন্যথায় লোকোমোটিভে PC (Pneumatic Control) চলে আসবে এবং পুরো ট্রেনটি ব্রেক হয়ে কিছুক্ষণ সময়ের মধ্যেই দাঁড়িয়ে যাবে।

এই ডেডম্যান প্যাডেল ২ মিনিট চেপে ধরতে হয় তারপর আবার এলার্ম দিলে ছেড়ে ২-৪ সেকেন্ড পরেই পা বসাতে হয়। এবং ২ মিনিট পর পর এই প্রসেস চালাতেই হয়। নইলে গাড়ি ব্রেক হয়ে দাঁড়িয়ে যাবে। সুতরাং, সেটার উপর ইট দিক বা পা দিক, ২ মিনিট পর এলার্ম দিলে সেটা তুলে নিয়ে আবার প্যাডেলে বসাতে হবে। সেক্ষেত্রে ইট দিয়ে চেপে রাখাটা এবং চেপে রেখে এতক্ষণ ট্রেন পরিচালনা করাটা সম্পূর্ণ রকম অ-সম্ভব, অতিপ্রাকৃত বা কাল্পনিক একটা বিষয় ছাড়া কিছুই নয়।

এখন কথা হলো, যে দায়িত্বশীল কর্মকর্তা এই কাল্পনিক কথাবার্তা বলছে তার পরিচয় দেয়া হোক, তাকে প্রমাণ দেয়ার পর তার সবার সামনে ক্ষমা চাইতে হবে। অন্যথায় এহেন মিথ্যা খবর প্রকাশের জন্য Banglanews24.com কে ক্ষমা চাইতে হবে।

সবাই শেয়ার করুন, সবাইকে জানাবেন। মিথ্যা খবর জেনে কাউকে বিভ্রা’ন্তিতে পড়তে দিবেন না।

বিঃদ্রঃ এলএম এবং এএলএম এর যে কোন ভুল নাই সেটা আমি জাস্টিফাই করছিনা। ভুল থাকাটা অ-সম্ভব না। কিন্তু লেখাটা জাস্ট বাংলানিউজ একটা ভুল এবং মিথ্যা সংবাদ প্রকাশ করছে সেই ব্যাপারটা নিয়ে।

লেখক: নির্জন সৈকত
পরিচিতি: সহকারী লোকো মাস্টার, বাংলাদেশ রেলওয়ে।

শেয়ার করুন !
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply

error: Content is protected !!