ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা ‘সুপার ক্লাসিকো’ একটু পরেই, রেকর্ড-পরিসংখ্যান কী বলছে?

0

স্পোর্টস ডেস্ক:

ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা মুখোমুখি ল’ড়াই মানেই বিশ্বের কোটি কোটি দর্শকদের মধ্যে টান টান উত্তে’জনা, রোমাঞ্চ ও বৈ’রিতা। দু’দলের খেলোয়াড়রা কেউ কাউকে মাঠে যেমন ছাড় দিয়ে কথা বলে না তেমনি দর্শকরাও প্রতি-পক্ষের সমর্থকদের দুয়ো-ধ্বনি দিতে ভুল করে না। ফুটবলের অন্যতম দুই চিরপ্রতিদ্ব’ন্দ্বী নিজেদের মধ্যকার ১১২তম ম্যাচে মাঠে নামছে আজ।

শুক্রবার বাংলাদেশ সময় রাত ১১টায় সৌদি আরবের কিং স্টেডিয়ামে আন্তর্জাতিক প্রীতি ম্যাচে মুখোমুখি হবে দল দুটি। পুরো ফুটবল বিশ্ব আরও একটি সুপার ক্লাসিকোর সাক্ষী হতে যাচ্ছে।

৫ বারের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন আর ২ বারের বিশ্বচ্যাম্পিয়নদের ল’ড়াইয়ের আগে পরিসংখ্যানের দিকে চোখ বুলিয়ে নেওয়া যাক-

১৯১৪ সাল থেকে এ পর্যন্ত ১১০ ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছে ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা। পরিসংখ্যান ঘুরে দেখা যায়, দু’দলের মুখোমুখি ল’ড়াইয়ে আর্জেন্টিনার থেকে কিছুটা এগিয়ে রয়েছে সেলেসাওরা। এ পর্যন্ত ৪৬ ম্যাচে জয় নিয়ে মাঠ ছেড়েছে নেইমার-পেলে-রোনালদোরা। অন্যদিকে ম্যারাডোনা-বাতিস্তুতা-মেসিদের জয় ৩৯টি। ড্র হয়েছে ২৫ ম্যাচে।

১৯১৪ সালের ২০ সেপ্টেম্বর ফ্রেন্ডলি ম্যাচের মাধ্যমে দুই দল প্রথম দেখায় ৩-০ গোলের ব্যবধানে জয় পায় আর্জেন্টিনা। দুই দলের ল’ড়াইয়ে সবচেয়ে বড় জয়টাও আর্জেন্টাইনদের। ১৯৪০ সালে আকাশী নীল জার্সিধারীরা ব্রাজিলকে হারায় ৬-১ গোলের ব্যবধানে। অন্য দিকে ব্রাজিলের সবচেয়ে বড় জয় ৬-২ গোলের ব্যবধানে।

১৯৭৪ বিশ্বকাপ থেকে ১৯৭৬ সালে কো-পা ডেল আতলান্তিকো পর্যন্ত টানা ৫ ম্যাচে আর্জেন্টিনাকে হারিয়েছিল ব্রাজিল। আর্জেন্টিনা সর্বোচ্চ টানা ৪ ম্যাচ জিতেছিল ১৯৪০ থেকে ১৯৪৫ সালের মধ্যে।

মোট জয়ে ব্রাজিল এগিয়ে থাকলে কো-পা আমেরিকায় আর্জেন্টিনার আধি’পত্যই বেশি। কো-পাতে এই দুই দল মুখোমুখি হয়েছে সর্বমোট ৩৩ বার। আর্জেন্টিনার ১৬ জয়ের বিপরীতে ব্রাজিলের জয়ের সংখ্যা ১১। বাকি ৬ ম্যাচ ড্র হয়েছে। কো-পাতে এ দুই দল প্রথম মুখোমুখি হয় ১৯১৬ সালের ১০ জুলাই। ম্যাচটি ১-১ গোলে ড্র হয়।

১৯১৭ সালে আবারও এ দুই দল কো-পায় পরস্পরের মুখোমুখি হয়। সে ম্যাচে ব্রাজিলকে ৪-১ গোলের ব্যবধানে হারায় আর্জেন্টিনা। তবে কো-পার সর্বশেষ ম্যাচে জয় ব্রাজিলের। ২০১৯ সালের ২ জুলাইয়ে অনুষ্ঠিত সে ম্যাচে ব্রাজিল জয় পায় ২-০ গোলের ব্যবধানে।

অন্যদিকে শিরোপার পরিসংখ্যানে দেখা যায়, সর্বোচ্চ ৫ বার বিশ্বকাপ জিতেছে ব্রাজিল, বিপরীতে আর্জেন্টিনার ঝুলিতে বিশ্বকাপ রয়েছে মাত্র ২টি। আর কো-পা আমেরিকায় ব্রাজিলের ৯ শিরোপার বিপরীতে আর্জেন্টিনার শিরোপা সংখ্যা ১৪টি।

আর্জেন্টিনা দুবার টানা ৬ ম্যাচে অ-পরাজিত ছিল। প্রথমবার ১৯২৩ থেকে ১৯৩৯ সালের মধ্যে ও ২য় বার ১৯৯০ থেকে ১৯৯৩ সালের মধ্যে।

আর্জেন্টিনার বি’পক্ষে ব্রাজিলের সর্বোচ্চ গোলদাতার নামে কোনো বিস্ময় নেই। পেলেকে চেনে না, এমন কেউ সম্ভবত এই মর্ত্যধামেই নেই। কিন্তু এমিলিও বালদোনেদোকে কজন চেনেন? জাতীয় দলে শুধু ১৯৪০ সালেই খেলেছেন, ৬ ম্যাচের ৫টিই ব্রাজিলের বি’পক্ষে, তাতেই ৭ গোল। মানে ৮ গোল করেছেন পেলে আর ৭ গোল বালদোনেদোর।

আজকের খেলায় ব্রাজিলের সম্ভাব্য একাদশ: অ্যালিসন বেকার, দানিলো, থিয়াগো সিলভা, মারকুইনহোস, অ্যালেক্স সান্দ্রো, আর্থার মেলো, ক্যাসেমিরো, কৌতিনহো, গ্যাব্রিয়েল জেসুস, রবার্তো ফিরমিনো ও রিচার্লিসন।

আর্জেন্টিনার সম্ভাব্য একাদশ: অগাস্টিন মার্চেসিন, হুয়ান ফোয়েথ, জার্মান পেজ্জেলা, নিকোলাস ওটামেন্ডি, মার্কোস অ্যাকুনা, রদ্রিগো দি পল, লিয়ান্দ্রো প্যারেদেস, জিওভান্নি লো সেলসো, লিওনেল মেসি, সার্জিও আগুয়েরো ও লাওতারো মার্টিনেজ।

শেয়ার করুন !
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply

error: Content is protected !!