মিলাদের নামে শিক্ষার্থী প্রতি ৫০০ টাকা করে বেশি নেন প্রধান শিক্ষক

0

মাদারীপুর প্রতিনিধি:

শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের মুখে অবশেষে গ্রেপ্তার হলেন মাদারীপুরের শিবচর উপজেলার কুতুবপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সাখাওয়াত হোসেন। একই সঙ্গে বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক এবং অফিস সহায়ককেও গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির এক সদস্যের দায়ের করা মামলায় প্রধান শিক্ষক, আইসিটির সহকারী শিক্ষক ও অফিস সহায়ককে বুধবার (১১ ডিসেম্বর) সকালে গ্রেপ্তার করা হয়। দুপুরে তাদের জেলহাজতে পাঠানো হয়।

পুলিশ জানায়, কুতুবপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সাখাওয়াত হোসেন, আইসিটির সহকারী শিক্ষক আলমগীর মণ্ডল ও অফিস সহায়ক লালন ফকিরের বিরু’দ্ধে মামলা করেছেন বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সদস্য মতিউর রহমান।

চলতি বছর এসএসসির ফরম পূরণে ৫৩ জন শিক্ষার্থীর কাছ থেকে সরকার নির্ধারিত ফির অতিরিক্ত ৫০০ টাকা করে নেয়ায় তাদের বিরু’দ্ধে মামলা করা হয়। শিক্ষার্থীদের সঙ্গে প্র’তারণা করে প্রধান শিক্ষক ২৬ হাজার ৫০০ টাকা বেশি নিয়েছেন বলে মামলার এজাহারে উল্লেখ করেছেন বাদী।

এসএসসির ফরম পূরণে অতিরিক্ত টাকা আদায়, প্রবেশপত্র ও সনদ বিতরণে অতিরিক্ত টাকা নেয়া ও দুর্নীতিসহ নানা অ’নিয়মের অভিযোগে গত কয়েকদিন ধরে প্রধান শিক্ষকের পদ’ত্যাগের দাবি জানিয়ে আসছিল বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ও এলাকাবাসী।

সোমবার (৯ ডিসেম্বর) প্রধান শিক্ষকের পদ’ত্যাগের দাবিতে বিক্ষো’ভ করে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও উপজেলা চেয়ারম্যানের গাড়ি ভা’ঙচুর করে শিক্ষার্থীরা। এ সময় ৫০ রাউন্ড গু’লি ছুঁড়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে পুলিশ।

ওই দিন রাতেই অভিযান চালিয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও উপজেলা চেয়ারম্যানের গাড়ি ভা’ঙচুরের ঘটনায় ২২ জনকে আটক করে পুলিশ।

প্রধান শিক্ষক শাখাওয়াত হোসেন বলেন, এসএসসি পরীক্ষার্থীদের কাছ থেকে মিলাদের জন্য অতিরিক্ত কিছু টাকা নেয়া হয়েছে। ওসব টাকা বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মিষ্টি বিতরণের জন্য খরচ করা হয়েছে।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা শিবচর থানা পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) মীর নাজমুল হাসান বলেন, বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির এক সদস্য প্রধান শিক্ষকসহ ৩ জনের বিরু’দ্ধে মামলা করেছেন। তাদের ৩ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

শিবচর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল কালাম আজাদ বলেন, বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সদস্যের দায়েরকৃত মামলায় প্রধান শিক্ষকসহ ৩ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়। দুপুরে তাদের কারা’গারে পাঠানো হয়েছে।

শেয়ার করুন !
  • 1K
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply

error: Content is protected !!