চখা রাজাকারের পুত্র মির্জা ফখরুলকে নিয়ে নৌপ্রতিমন্ত্রী যা বললেন-

0

সময় এখন ডেস্ক:

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের বাবা একজন রাজাকার ছিলেন বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী।

মঙ্গলবার (১৭ ডিসেম্বর) দুপুরে দিনাজপুরের বোচাগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের এক অনুষ্ঠানে তিনি এ মন্তব্য করেন।

নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী বলেছেন, মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের বাবা কু’খ্যাত রাজাকার ছিলেন বলেই, রাজাকারদের তালিকা প্রকাশ করে বিএনপিকে হে’নস্তা করার কথা বলছেন। বিএনপি রাজাকারদের দিয়ে পরিচালিত বলে দাবি করেন তিনি।

খালিদ মাহমুদ বলেন, বিজয়ের মাসে বর্তমান সরকার ৪৮ বছরের আকাঙ্ক্ষিত প্রায় ১১ হাজার রাজাকার, আল বদর, আল শামসের তালিকা প্রণয়ন করেছে। ধারাবাহিকভাবে সব স্বাধীনতাবিরো’ধীদের তালিকা প্রকাশ করা হবে।

তিনি আরও বলেন, আমরা শহীদ স্মৃ’তিসৌধে ৩০ লাখ শহীদদের শ্রদ্ধা জানাচ্ছি, তখন আমরা দেখতে পাচ্ছি এই অপরাধী আর জ’ঙ্গিবাদের আশ্রয়দাতা তারা কী কথা বলছে। ওই মির্জা ফখরুল বলেছেন, এই রাজাকারের তালিকা নাকি বিএনপিকে হে’নস্তা, পর্যু’দস্ত করার জন্য করা হয়েছে।

তাহলে কি মির্জা ফখরুল আপনি মেনে নিলেন? আজকের বিএনপি-রাজাকার দিয়ে পরিচালিত হয়? তবে এটাও সত্য, মির্জা ফখরুল আপনি মির্জা রুহুল আমিন ওরফে চখা রাজাকারের সন্তান।

বোচাগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আবু সৈয়দ হোসেনর সভাপতিত্বে দিনাজপুর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মোস্তাফিজুর রহমান ফিজার, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ফারুকউজ্জামান চৌধুরী মাইকেল প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

মির্জা ফখরুলের পিতার পরিচয়:

২০১১ সালের মার্চে বিএনপির মহাসচিব খন্দকার দেলওয়ার হোসেনের প্রয়াণের পর দলের ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব হন সাবেক কৃষি, পর্যটন ও বেসরকারী বিমান চলাচল বিষয়ক প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করা ঠাকুরগাঁও-১ আসন এর সংসদ সদস্য মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

তার পিতা মির্জা রুহুল আমিন ’৭১ এ মুক্তিযু’দ্ধের বিরো’ধিতা করেছিলেন এবং তিনি একজন সক্রিয় রাজাকার ছিলেন। পরে তিনি ঠাকুরগাঁও অঞ্চলের একজন সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। রাজাকার হিসেবে কু’খ্যাতি পেয়েছিলেন তিনি। চখা রাজাকার হিসেবে এক নামে চিনতেন তাকে সবাই।

শেয়ার করুন !
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এই ওয়েবসাইটের যাবতীয় লেখার বিষয়বস্তু, মতামত কিংবা মন্তব্য– লেখকের একান্তই নিজস্ব। somoyekhon.net-এর সম্পাদকীয় নীতির সঙ্গে এর মিল আছে, এমন সিদ্ধান্তে আসার কোনো যৌক্তিকতাই নেই। লেখকের মতামত, বক্তব্যের বিষয়বস্তু বা এর যথার্থতা নিয়ে somoyekhon.net আইনগত বা অন্য কোনো ধরনের কোনো প্রকার দায় বহন করে না।

Leave A Reply

error: Content is protected !!